Header Top

‌জাতিসংঘের পুরস্কার পাচ্ছেন সোনিয়া বশির

Sonia-Bashir-Microsoft-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যবসায়িক কমিউনিটিকে যোগ্য নেতৃত্বদানকারী হিসেবে আন্তর্জাতিক পুরস্কার পাচ্ছেন মাইক্রোসফট বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবির।

আগামী ২১ সেপ্টেম্বর ইউনাইটেড ন্যাশনস গ্লোবাল কম্প্যাক্ট লিডারস সামিট ২০১৭ সম্মেলনে সোনিয়া বশির কবিরকে ‘ইউএন গ্লোবাল কম্প্যাক্ট লিডারস’ পুরস্কার দেবে সংস্থাটি। বিশ্বব্যাপী ১০ জনকে চলতি বছরে পুরস্কারটি দেওয়া হচ্ছে।

ইউএন গ্লোবাল ইম্প্যাক্ট প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং নির্বাহী পরিচালক লিজ কিংগো বলেন, ইতিবাচক পরিবর্তনের জন্য কিভাবে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হয়ে সেগুলো থেকে মুক্তি পেতে প্রতিটি এসডিজি ২০১৭ নেতৃত্বদানকারীদের প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিগতভাবে নেতৃত্বদান চালিকাশক্তি হিসেবে কাজ করেছে। তথ্য-প্রযুক্তিতে নারীর অংশগ্রহণে সোনিয়া বশির কবির প্রতিভাসম্পন্ন একজন নারী। ডিজিটাল স্বাক্ষরতা সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তিনি তথ্যপ্রযুক্তিতে নারীদের নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন।

Sonia-Bashir-Microsoft-techshohor

নারীদের ডিজিটাল শিক্ষার ক্ষমতায়নে ভূমিকা রাখায় সোনিয়া বশির কবিরকে সম্মানসূচক এ পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে।

সোনিয়া বশির কবির বলেন, জাতিসংঘের গ্লোবাল কম্প্যাক্ট দল ২০১৭ সালের এসডিজি নেতৃত্বদানকারী হিসেবে তাকে নির্বাচিত করায় সম্মানিত বোধ করেন তিনি।

তিনি বলেন, প্রযুক্তিতে দেশের নারীদের অনুপ্রাণীত ও সক্ষম করার ব্যাপারে তিনি আগ্রহী এবং তিনি নিশ্চিত যে, অন্যান্য যেকোনো দেশের তুলনায় বর্তমানে মধ্যম আয়ের দেশ বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তি খাত আগের চেয়ে অনেক বেশি সুবিধাজনক ও সহযোগিতামূলক পরিবেশ বিরাজ করছে, যা দেশটিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে দ্রুতগতিতে।

মানবাধিকার, শ্রম, পরিবেশ ও দুর্নীতি বিরোধী খাতের উন্নয়নে কৌশলগত ও পরিচালনা পদ্ধতির উপর নির্ভর করে বিশ্বের সবচেয়ে বড় কর্পোরেট টেকসই পদক্ষেপ ইউএন গ্লোবাল কম্প্যাক্ট পরিচালনা করা হয়।

এর মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট খাত সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের মাধ্যমে সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ অর্জন করা সহজতর হয়ে যায়। বাংলাদেশে ৫৫টি প্রতিষ্ঠান ও অব্যবসায়িক সংস্থা এ পদক্ষেপের সঙ্গে সংযুক্ত হয়েছে এবং এসব প্রতিষ্ঠান ও সংস্থাগুলোকে গ্লোবাল কম্প্যাক্ট নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ গত ২০০৯ সাল থেকে টেকসই ব্যবসায়িক পরিবেশ তৈরির লক্ষ্যে সহযোগিতা করে আসছে।

এবারের সম্মেলনে বিশ্বের প্রায় আট শতাধিক নেতৃত্বদানকারী অংশ নেবেন।

ইমরান হোসেন মিলন

১ টি মতামত

*

*

আরও পড়ুন