এমএনপি সেবায় অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : মোবাইল নম্বার অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদল বা এমএনপি সেবাটি অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন পেয়েছে।

বেশকিছু দিন অনুমোদন প্রক্রিয়াটি অর্থ মন্ত্রণালয়ে থাকার পর গত বৃহস্পতিবার সেটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন পাওয়ায় সেবাটি চালু করতে আর বেশি সময়ক্ষেপণ হবে না এবং সেবাটি আগামী ৬ থেকে ৯ মাসের মধ্যেই সবধরনের প্রক্রিয়া শেষ করে এমএনপি সেবা শুরু করা সম্ভব হবে বলে ফেইসবুকের একটি পোস্টে উল্লেখ করেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

সোমবার বিকেলে ফেইসবুক পোস্টে তারানা হালিম এমএনপি সেবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন এবং অচিরেই যে সেবাটি দেওয়া যাবে সেসব সম্পর্কে জানান।

বেশকিছু দিন অর্থ মন্ত্রণালয়ে অনুমোদন পাওয়ার অপেক্ষায় ছিল জানিয়ে তিনি লিখেন, আমরা অনুমোদনের জন্য পুনরায় সংশোধিত গাইডলাইন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর প্রেরণ করি। প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের পর আবার অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। অর্থ মন্ত্রণালয় (যেহেতু অর্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় আছে) থেকে অনুমোদন পেয়ে ফাইলটি সেদিনই আমরা বিটিআরসিতে পাঠিয়ে দেই।

দেশের তরুণদের এমএনপি নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ রয়েছে জানিয়ে ফেইসবুকে তিনি লেখেন, এমএনপি সার্ভিসের জন্য সকল অনুমোদন গ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। বাকি আছে কেবল আনুষ্ঠানিকতা। মোবাইল অপারেটরদের গ্রাহক পর্যায়ে এই সার্ভিস দেবার জন্য টেকনিক্যাল বিষয়ে প্রস্তুতি নিতে সর্বোচ্চ ৬-৯ মাস সময় লাগতে পারে। এরই মধ্যে জনগণকে তারা এই সেবা দিতে পারবে বলেও জানান তিনি।

এর আগে নতুন এ সেবা দেওয়ার জন্য রিভ নাম্বার লিমিটেড, গ্রিনটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, ইনফোজিলিয়ন, টেলিটেক কনসোরটিয়াম, ব্রাজিল-বাংলাদেশ কনসোরটিয়াম ও রুটস ইনফোটেক কোম্পানিগুলোকে বাছাই করা হয়।

এসব কোম্পানির অংশগ্রহণে নিলাম হওয়ার কথা থাকলেও তা পরে বাতিল করে দেয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

সেবাটি দিতে আবারও আগ্রহী প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে প্রস্তাবনা চেয়েছে বিটিআরসি। সোমবার বিটিআরসির লিগ্যাল অ্যান্ড লাইসেন্সিং বিভাগের পরিচালক এম এ তালেব হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আবারও এমন প্রস্তাবনা চাওয়া হয়েছে।

এমএনপি সেবায় অন্য অপারেটরে যেতে হলে গ্রাহককে প্রতিবার ৩০ টাকা চার্জ দিতে হবে। আর একবার অপারেটর বদল করলে গ্রাহককে সেই অপারেটরে থাকতে হবে কমপক্ষে ৯০ দিন।

বর্তমানে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত, পাকিস্তানসহ প্রায় ৭২টি দেশে এমএনপি সেবা চালু রয়েছে। তবে এমএনপি সেবার পথপ্রদর্শক ধরা হয় সিঙ্গাপুরকে।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

আরও পড়ুন