পর্ন সাইটে চুপিচুপি ঢোকার দিন ফুরাচ্ছে

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নিষিদ্ধ জিনিসের প্রতি আকর্ষণ সব সময়ই দুর্নিবার। এটা সব বয়সের মানুষের ক্ষেত্রেই কমবেশি খাটে। পর্নগ্রাফির বেলায় এটা আরও বাস্তব। এসব সাইটে ঢোকার বেলায় সবাই পরিচয় গোপন রাখতে চায়। আর ছোটরা বয়স চুরি করে বড় হয়ে যায়। তবে চুপিচুপি এসব সাইটে ঢোকার দিন বুঝি এবার ফুরাচ্ছে।

কারণ পর্নসাইট সাইটগুলোতে ঢোকার আগে ব্যবহারকারীদেরকে প্রমাণ দিতে হবে তাদের বয়স ১৮ বছর হয়েছে। বয়স যাচাই বাছাইয়ের এই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করা হবে আইডি চেক করার মাধ্যমে। ইন্টারনেটের জগতকে শিশুদের কাছে আরো নিরাপদ করে তুলতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার।

ডিজিটাল ইকোনোমি অ্যাক্ট নামে এই আইন জারি করা হলে পর্ন ওয়েবসাইটগুলো তাদের সাইটে এজ ভেরিফিকেশন কনট্রোল ইন্সটল করতে বাধ্য থাকবে। বয়স যাচাই বাছাইয়ের জন্য ব্যবহারকারীদের কাছে ক্রেডিট কার্ডের তথ্যও চাওয়া হবে।

আইনটি ভঙ্গ করলে পর্ন কোম্পানিগুলোর ওয়েবসাইট ব্লক করে দেবে ইন্টারনেট প্রোভাইডাররা। এর পাশাপাশি আইনটি কার্যকর করতে একটি রেগুলেটরি বডিও গঠন করা হবে।

তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন এতেও খুব বেশি লাভ হবে না। যুক্তরাজ্যের ওপেন রাইটস গ্রুপের পরিচালক জিম কিলক বলেছেন, বয়স যাচাই বাছাইয়র জন্য পর্ন কোম্পানিগুলোকে ডাটাবেস তৈরি করতে হতে পারে। যার ফলাফল ভালো হবে না।

ডিজিটাল মন্ত্রী ম্যাট  হ্যানকক এ বিষয়ে বলেছেন, আইনটি কার্যকর হওয়ার মানে হলো অন্য যেকোনো দেশের চেয়ে যুক্তরাজ্যে শিশুদের ইন্টারনেটে বেশি নিরাপত্তা দিতে সক্ষম হবে।

উল্লেখ্য, গত বছর ন্যাশনাল সোসাইটি ফর দ্য প্রিভেনশন অব ক্রুয়েলটি টু চিল্ডরেনের (এনএসপিসিসি) এক জরিপে দেখা গেছে, ২৮ শতাংশ শিশু ইন্টারনেট ব্রাউজ করতে করতে পর্ন সাইটে ঢোকে। আর ১৯ শতাংশ শিশু নিজে থেকেই ইন্টারনেটে গিয়ে পর্ণ সাইট সার্চ করে।

বিবিসি অবলম্বনে আনিকা জীনাত

২ টি মতামত

*

*

আরও পড়ুন