ভিসা দিতে সামাজিক মাধ্যম খতিয়ে দেখবে মার্কিন দূতাবাস

wallpaper-usa-techshohor
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা প্রত্যাশী প্রার্থীদের সামাজিক মাধ্যমের ইতিহাস খতিয়ে দেখা হবে। প্রার্থীদের বিগত ১৫ বছরের কর্মকাণ্ড  দেখার পরেই তারা সিদ্ধান্ত নেবে ভিসা দেবে কি না।

এজন্য ভিসা প্রত্যাশীদের কাছে মার্কিন দূতাবাসের কর্মকর্তারা ‘ইউজার নেইম’ চেয়ে একটি প্রশ্নপত্রের মাধ্যমে তাদের কার্যকলাপ ঘেঁটে দেখবে।

এখানেই শেষ নয়, তারা ইমেইল ঠিকানা ও ফোন নম্বরের পাশাপাশি প্রার্থীর গত ১৫ বছরের কার্যকলাপও যাচাই করবে। যারা এই প্রশ্নমালা পূরণে অস্বীকৃতি জানাবে তাদেরকে ভিসা দেওয়া নাও হতে পারে। সম্প্রতি ট্রাম্প প্রশাসন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

দেশটির স্টেট ডিপার্টমেন্টের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, যখন জাতীয় নিরাপাত্তার জন্য কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার প্রয়োজন পড়বে তখনই এই তথ্যগুলো চাওয়া হবে। তাদের ধারণা, প্রায় ০.৫ শতাংশ ভিসা প্রার্থীকে এই প্রশ্নমালা দেওয়া হতে পারে।

তবে সমালোচকরা বলছেন, এসব পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুধু ব্যক্তিগত তথ্য যোগাড় করতেই কাজে দেবে। কাজের কাজ কিছু হবে না। নিরাপত্তা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রের এই প্রক্রিয়ার ফলাফল হবে শূন্য।

২০১৬ সালে মার্কিন শুল্ক ও সীমান্ত প্রতিরক্ষা বিভাগ ভ্রমণকারীদেরকে ভিসা ওয়েভার প্রোগ্রামের আওতায় নিয়ে আসার একটি প্রস্তাব করেছিল। গত ডিসেম্বরে ভ্রমণকারীদের অনেকেই এই প্রোগ্রামের আওতায় আসতে বাধ্য হন। বর্তমানে যারা এই প্রোগ্রামের আওতায় নেই তাদের জন্যই প্রশ্নমালাটি তৈরি করা হয়েছে।

বিবিসি অবলম্বনে আনিকা জীনাত

*

*

আরও পড়ুন