র‍্যানসমওয়্যারের বিরুদ্ধে জেগে ওঠার আহ্বান মাইক্রোসফটের

Microsoft-logo-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বিশ্বব্যাপী গত শুক্রবারের সাইবার হামলাকে সকর্তবার্তা হিসেবে নিয়ে এর বিরুদ্ধে বিভিন্ন দেশকে এখনি জেগে ওঠার আহ্বান জানিয়েছে সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফট।

গত শুক্রবার থেকে এখন পর্যন্ত এই সাইবার হামলার শিকার হয়েছে দেড় শতাধিক দেশের দুই লাখের বেশি কম্পিউটার।

এই হামলায় বিভিন্ন দেশের সরকারের কাছ থেকেও হ্যাকাররা মুক্তিপণ আদায় করতে বার্তা দিয়েছে। এমনকি বিভিন্ন রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ এবং সংবেদনশীল অনেক তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে এই হ্যাকাররা।

Techshohor Youtube

এটি বলছে, সর্বশেষ ভাইরাস মাইক্রোসফট উইন্ডোজের মাধ্যমে সনাক্ত করেছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা।

আরও পড়ুন: র‌্যানসমওয়্যার আক্রমণ হতে যেভাবে নিরাপদ থাকবেন

hack-nsa-techshohor

তবে র‍্যানসমওয়্যার অাক্রান্তের খবর সোমবারও পাওয়া গেছে। সোমবার সকালে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান যখন সকালে কাজ শুরু করে তখন তাদের কম্পিউটারে এমন র‍্যানসমওয়্যার আক্রমণ করেছে বলেও জানায় মাইক্রোসফট।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সপ্তাহের মাঝামাঝিতে এসে ভাইরাস আগের চেয়ে ধীর গতিতে ছড়াচ্ছে। শেষ দিকে এটি আরও দুর্বল হয়ে পড়বে।

সোমবার দক্ষিণ কোরিয়া বলেছে, দেশটিতে তারা মাত্র নয়টি র‍্যানসমওয়্যার আক্রমণের খবর পেয়েছে। তবে সেগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানায়নি।

অস্ট্রেলিয়া সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা বেশ কয়েকটি ক্ষুদ্র ও মাঝারি মানের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে র‍্যানসমওয়্যার আক্রমণে সিস্টেম বন্ধ হওয়ার খবর পেয়েছে।

অন্যদিকে নিউজিল্যান্ড সরকারের বাণিজ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, দেশটিতে সাইবার আক্রমণে কয়েকটি ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আক্রান্ত হয়েছে। তবে সেগুলো নিয়ে বিস্তারিত তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

জাপানে গাড়ি তৈরির প্রতিষ্ঠান নিশান এবং ইলক্ট্রনিক পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হিটাচি র‍্যানসমওয়্যার আক্রমণের শিকার বলে বলছে প্রতিষ্ঠানগুলো।

অন্যদিকে চীনের এনার্জি জায়ান্ট পেট্রোচাইনা বলছে, কিছু পেট্রোল স্টেশনের গ্রাহকরা পেমেন্ট করতে গিয়ে সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন।

মাইক্রোসফটের বিবৃতি

সাইবার আক্রমণে নিয়ে একটি বিবৃতি দিয়েছে মাইক্রোসফট। বিবৃতিতে মাইক্রোসফটের চিফ লিগ্যাল অফিসার ব্র্যান্ড স্মিথ বিভিন্ন দেশের কম্পিউটার সিস্টেমের নিরাপত্তা সংক্রান্ত ত্রুটিগুলি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহের উপায়গুলি নিয়ে সমালোচনা করেন।

তিনি বলেন, আমরা উইকিলিকসকে নিয়ে সিআইএ-এর দুর্বলতা দেখেছি। যেকারণে এমন ঘটনা ঘটার ক্ষেত্র তৈরি হওয়ার সুযোগ পেয়েছে।

এনএসএ ভাইরাসে আক্রমণ এবং বিভিন্ন সংবেদনশীল তথ্য চুরি করার ঘটনা বিশ্বব্যাপী গ্রাহকদের মধ্যে আস্থাহীনতার জন্ম দেবে।

বিবৃতিতে বলা হয়, বিশ্বব্যাপী সব রাষ্ট্র এ সরকারকে এটা বুঝতে হবে যে এটা আমাদের জন্য জেগে ওঠার সময়। এছাড়া আমরা সামনের দিনগুলোতে আরও বড় সমস্যার সম্মুখীন হবো।

ইমরান হোসেন মিলন  

আরও পড়ুন: 

*

*

আরও পড়ুন