ফ্রিল্যান্সিং-আউটসোর্সিংয়ে কর্মপরিকল্পনা তৈরি করছে সরকার

Evaly in News page (Banner-2)

আল-আমীন দেওয়ান, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : পেশাদার খাত হিসেবে প্রতিষ্ঠা এবং তা হতে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য অর্জনে ফ্রিল্যান্সিং-আউটসোর্সিংয়ের জন্য কর্মপরিকল্পনার তৈরি করছে সরকার।

আউটসোর্সিংয়ের বর্তমান ও ভবিষ্যত চ্যালেঞ্জের সঙ্গে সম্ভাবনাগুলো তুলে আনা, ফ্রিল্যান্সিংকে শৃঙ্খলায় আনা, পেশাদার ও দক্ষ জনবল তৈরি করা, প্রতিষ্ঠান তৈরির দিকনির্দেশনা থাকবে এতে।

কর্মপরিকল্পনা তৈরিতে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে দেশের সফটওয়্যার খাতের শীর্ষ সংগঠন বেসিসকে। তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সহায়তায় তিন মাসের মধ্যে এটি তৈরি করে তা সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের সর্বোচ্চ ফোরাম ডিজিটাল বাংলাদেশ টাস্কফোর্সে জমা দিতে বলা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরীর সভাপতিত্বে গত ২৭ মার্চ ডিজিটাল বাংলাদেশ টাস্কফোর্সের নির্বাহী কমিটির সভায় এই নির্দেশনা দেয়া হয়।

outsource

বেসিস সভাপতি তথ্যপ্রযুক্তিবিদ মোস্তাফা জব্বার টেকশহরডটকমকে জানান, কর্মপরিকল্পনা তৈরিতে ইতোমধ্যে বেসিস উদ্যোগ নিয়েছে। গবেষণা ও জাতীয় জরিপের মাধ্যমে এটি করা হবে। ফ্রিল্যান্সিং-আউটসোর্সিংয়ে কোথায় কী চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা রয়েছে তা দেখা হবে।

তিনি বলেন, খাতটিতে দক্ষ জনবলের অভাব রয়েছে। শুধু মার্কেটপ্লেসে অ্যাকাউন্ট খুলে কোনোভাবে ৫-১০ ডলার আয় করলেই দক্ষতা বোঝায় না। দীর্ঘমেয়াদে আন্তর্জাতিক বাজারে টিকে থাকতে পেশাদার কাজে সত্যিকার দক্ষতার প্রয়োজন আছে। এটা ডিজিটাল বাংলাদেশের ব্র্যান্ডিংয়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

ডিজিটাল বাংলাদেশ টাস্কফোর্সের এই সদস্য বলেন, ট্রেনিংয়ের ক্ষেত্রে সরকারের বিভিন্ন দপ্তর ও সরকারি-বেসরকারি সমন্বয়ের প্রয়োজন আছে। তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ৫ বিলিয়ন ডলার রপ্তানি আয়ে এই ফ্রিল্যান্সিং-আউটসোর্সিংয়ের যে ভূমিকার কথা বলছি সেখানে সুস্পষ্ট ধারণার দরকার আছে। এখন কোন অবস্থায় আছি আর কীভাবে এগুচ্ছে বিষয়টি তা পরিস্কার না হলে লক্ষ্য অর্জনের ফ্রিল্যান্সিং-আউটসোর্সিংয়ের অবদানও অস্পষ্ট থাকবে, এটি টেকসইও হবে না।

তিনি বলেন, অনেকেই ব্যক্তি পর্যায়ে কাজ করে এক সময় হারিয়ে যাচ্ছেন। ব্যক্তি হতে প্রতিষ্ঠান হচ্ছে না। যারা ভাল কাজ জানেন, দক্ষ তারা আবার পরবর্তী প্রজন্ম তৈরিতে অবদান রাখছে না। মার্কেটটা শেয়ারিংয়ে গতি নেই।

মোস্তাফা জব্বার বলছেন, ৪ হাজার ক্যাটাগরির কাজ রয়েছে। স্পেশালাইজড কাজের জন্য দক্ষতা কম। এখানে দক্ষতা প্রয়োজন। অর্ধদক্ষ বা অ্যাকাউন্ট খুলতে পারার জনবল বরং মার্কেটপ্লেসগুলোর জন্য বিপদজনক।

সার্বিক বিষয়গুলো নিয়েই এই কর্মপরিকল্পনা করা হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি জানান, তিন মাসের মধ্যেই কর্মপরিকল্পনা তৈরি করে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগকে দেয়া হবে। বিভাগ এটি টাস্কফোর্সে উপস্থাপন করবে।

*

*

আরও পড়ুন