বিপ্লবীর বিদায়ে লাল সালামে ভরা ফেইসবুক ওয়াল

Fidel-castro-Techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : শুধু একটি মৃত্যু নয় এটি। একজন বিপ্লবীর মৃত্যুও বটে। সেই বিপ্লবী শুধু নিজ দেশ নয়, চেয়েছিলেন সারা বিশ্বের নিপীড়িত মানুষের মুক্তি। সারা বিশ্বে সেই মুক্তির স্বাদ দিতে না পারলেও দিয়েছেন নিজ দেশ কিউবার জনগণকে। ফিদেল আলেসান্দ্রো কাস্ত্রো রুজ, যিনি বিশ্বে পরিচিত ফিদেল কাস্ত্রো নামে।

কিউবার মহান বিপ্লবী নেতা ও সাবেক প্রেসিডেন্ট ফিদেল কাস্ত্রো স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার রাত ১০ টা ২৯ মিনিটে হাভানায় মারা যান। দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট ও তার ভাই রাউল কাস্ত্রো রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে তার মৃত্যুর কবর প্রচার করেন।

শনিবার সকালে বাংলাদেশে ফিদেলের মৃত্যুর কবর ছড়িয়ে পড়ে খুব দ্রুত। আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক হয়ে উঠতে থাকে তাকে স্মরণের প্রধান ক্ষেত্র।

Techshohor Youtube

Fidel-castro-Techshohor
ফেইসবুকের ওয়াল এখন বলতে গেলে বিপ্লবীর মৃত্যুতে বিপ্লব ছড়াচ্ছে। অনেকেই জানাচ্ছেন ফিদেলকে লাল সালামের বিদায়।
জয়দীপ দে শাপলু যেমন লিখেছেন, বিদায় কমরেড, বিদায় বন্ধু… বিদায় কাস্ত্রো…।

অসাম্যকে সমতা দিতে বিপ্লবী হয়েছেন। সমতা নিশ্চিতে কাজও করেছেন। তাইতো রফিক মুয়াজ্জিন নামের একজন লিখেছেন, স্বর্গেও একটা বিপ্লব করো, কমরেড ফিদেল কাস্ত্রো। সেখানেও অনেক অসাম্য আছে।

বাংলাদেশের সঙ্গে কিউবার ছিল খুব ভালো সম্পর্ক। বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে তার সাক্ষাৎ যার অন্যতম উদাহরণ। তাইতো সেই স্মৃতিকে উসকে দেয় শরিফুল হাসানের দেওয়া ছবি। তিনি ফেইসবুকে ফিদেলের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর ছবি পোস্ট করে হয়তো সেটাই বুঝিয়েছেন।

BB-FC-Techshohor
আমি হিমালয় দেখিনি কিন্তু শেখ মুজিবকে দেখেছি। ব্যক্তিত্ব এবং সাহসিকতায় তিনিই হিমালয়-ফিদেল কাস্ত্রো। উক্তিটি পোস্ট করে ফিদেলকে স্মরণ করেছেন রায়হান আহমেদ আশরাফী।

দেশে গণসংহতি আন্দোলনের নেতা জোনায়েদ সাকি লাল সালাম জানিয়ে লিখেছেন, সারা পৃথিবীর মুক্তিকামী মানুষ প্রতিটি লড়াইয়ে আপনাকে স্মরণে রাখবে। লাল সালাম ফিদেল কাস্ত্রো।

ফিদেল কাস্ত্রো জন্মগ্রহণ করেন ১৯২৬ সালের ১৩ আগস্ট। আর ৯০ বছর বয়সে ২৫ নভেম্বর মারা গেলেন কিউবান বিপ্লবের মহান এই মানুষটি।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

আরও পড়ুন