ভারতে ই-কমার্সে ক্যাশ অন ডেলিভারি বন্ধ!

Cash on Delivery-TechShohor
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : চলমান পাঁচশো ও হাজার টাকার নোটের লেনদেন বন্ধ হওয়ায় বিপাকে পড়েছে ভারতের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো। বেশিরভাগ ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ক্যাশ অন ডেলিভারি সিস্টেম বন্ধ করে দিয়েছে। আবার অনেকেই নিয়েছেন ভিন্ন পন্থা।

গত মঙ্গলবার থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী চলমান পাঁচশো ও হাজার টাকার নোটের লেনদেন বন্ধ ঘোষনা করেন। পুরাতন পাঁচশো টাকার নকশা বদলে নতুন নোট আনা হবে। আর এক হাজার টাকার পরিবর্তে আসবে দুই হাজার টাকার নোট। থাকবে অতিরিক্ত সুরক্ষা। ফলে অনেকেই ভোগান্তিতে পড়েছেন।

Cash on Delivery-TechShohor

দেশটির ই-কমার্স খাতের প্রায় ৭০ শতাংশ ক্যাশ অন ডেলিভারির মাধ্যমে বিক্রি হয়ে থাকে। মূল্য বেশি হলেও অনেকের কাছে থাকা পাঁচশো ও হাজার টাকার নোট দিয়ে পরিশোধ করতে চাইছেন। ফলে বিপাকে পড়ছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো। এই পরিস্থিতিকে সামাল দিতে ইতিমধ্যেই অ্যামাজন ও পেটিএম ক্যাশ অন ডেলিভারি সিস্টেম বন্ধ করে দিয়েছে।

অন্যদিকে উবার, বিগবাস্কেটের মতো কিছু কোম্পানি গ্রাহকদের স্বল্পমানের নোট দিয়ে মূল্য বা বিল পরিশোধে গ্রাহকদের আহ্বান জানাচ্ছেন। অপর ই-কমার্স প্লাটফর্ম ফ্লিপকার্ট ও স্ন্যাপডিল ক্যাশ অন ডেলিভারির ক্ষেত্রে মূল্যের সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছে।

এ বিষয়ে অ্যামাজন ইন্ডিয়ার একজন মুখপাত্র বলেন, আমরা সাময়িকভাবে ক্যাশ অন ডেলিভারির মাধ্যমে নতুন অর্ডার সিস্টেম বন্ধ করে দিয়েছি। যারা গত মঙ্গলবার মধ্যরাতের আগে অর্ডার কেরছেন তাদেরকে ডেলিভারির সময় ডেবিট অথবা ক্রেডিট কার্ড কিংবা সচল নোটের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধের সুযোগ রাখা হয়েছে। গ্রাহকদের সুবিধার্তে বেশ কিছু ইলেক্ট্রনিক পেমেন্ট সিস্টেম সুবিধা থাকছে।

ফ্লিপকার্ট ও স্ন্যাপডিল ক্যাশ অন ডেলিভারির ক্যাশ অন ডেলিভারি এক হাজার ও দুই হাজার রুপিতে সীমাবদ্ধ করে দিয়েছে এবং গ্রাহকদের স্বল্পমানের নোট প্রদানের আহ্বান জানিয়েছেন। অন্যদিকে শপক্লুস ক্যাশ অন ডেলিভারিতে মূল্য ৯৯৯ রুপিতে সীমাবদ্ধ করে দিয়েছে।

নতুন ঘোষনায় দেশজুড়ে সব এটিএম পরিসেবা বন্ধ রয়েছে। পরবর্তী আটচল্লিশ ঘন্টায় নোট নোট আসলে সেগুলো এটিএমে ভরে চালু করা হবে।

ইকোনমিক টাইমস অবলম্বনে রুদ্র মাহমুদ

*

*

আরও পড়ুন