বিল গেটস সম্পর্কে জানা-অজানা ১১ তথ্য

বিল-গেটস-মেলিন্ডা-গেটস-টেকশহর

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : পৃথিবী বদলে দেওয়া মানুষদের মধ্যে একজন বিল গেটস । তার ৬১তম জন্মদিন ছিলো গতকাল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনের সিয়াটলে২৮ অক্টোবর, ১৯৫৫ সালে জন্ম নেওয়া মানুষটিকে পুরো বিশ্ব চেনে বিজনেস ম্যাগনেট, কম্পিউটার প্রোগ্রামার, আবিষ্কারক, দানবীর, সোশ্যাল ওয়ার্কার হিসেবে। মাইক্রোসফটের কল্যাণে তিনি ছিলেন বিশ্বের শীর্ষ ধনীও। বিল গেটস সম্পর্কে জানা – অজানা ১১টি তথ্য তুলে ধরা হলো এই প্রতিবেদনে।

১৩ বছর বয়সে বিল গেটস লেকসাইড স্কুলে ভর্তি হন। তার প্রোগ্রামিং এর প্রতি আগ্রহ দেখে স্কুল তাকে প্রোগ্রামিং অনুশীলনের ব্যবস্থা করে দেয়। সেই কম্পিউটার সেকশনে বসেই গেটস তার প্রথম প্রোগ্রাম তৈরি করেন যার নাম রাখেন ‘Tic-Tac-Toe’। যে প্রোগ্রামটি কম্পিউটারের সাথে গেইম খেলার জন্য ব্যবহার করে গেটস সবাইকে চমকে দেন।

লেকসাইড স্কুল থেকে ১৯৭৩ সালে পাশ করেন বিল গেটস। তারপর তিনি স্যাট পরীক্ষায় ১৬০০ এর মধ্যে ১৫৯০ নম্বর পান। সেই বছরই তিনি হাভার্ড কলেজে ভর্তি হন।

bill gates

হাভার্ডে পড়া অবস্থান বিল গেটস ও তার বন্ধু পল অ্যালেন ‘বেসিক ফর দ্য ফাস্ট মাইক্রোকম্পিউটার’ নামে একটি কম্পিউটারের ভাষা নিয়ে কাজ শুরু করেন।

বিল গেটসের আবিষ্কৃত ডেমো অপারেটিং সিস্টেম নীতিবিরুদ্ধ হওয়ায় এবং কাউকে কিছু না জানিয়ে এটিকে কম্পিউটারে ব্যবহার করায় গেটস ও তার তিন বন্ধু পল অ্যালেন, রিক ওয়েইল্যান্ড এবং কেন্ট ইভানস-কে স্কুল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।

১৯৭৫ সালে বিল গেটস ও তার বন্ধু মিলে তৈরি করে মাইক্রোসফট নামে সফটওয়্যার কোম্পানি।

১৯৮০ সালে আইবিএমের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়ে কাজ শুরু করে মাইক্রোসফট। তখন আইবিএমের জন্য মাইক্রোসফট ব্যক্তিগত কম্পিউটারের জন্য এমএস ডস অপারেটিং সিস্টেম তৈরি করে।

Bill and Melinda Gates

উত্তরাধিকারী কোনো সম্পদ ছাড়াই বিল গেটস নিজের যোগ্যতা ও পরিশ্রমে বিলিওনিয়ার হন। ৩১ বছর বয়সে তিনি বিলিয়ন ডলারের মালিক হন।

ফোর্বস ম্যাগাজিন প্রকাশিত তালিকায় গত ২১ বছরের মধ্যে ১৬ বারই বিশ্বের শীর্ষ ধনী নির্বাচিত হয়েছেন এই প্রযুক্তি দক্ষ ব্যক্তি।

সামাজিক কর্মকাণ্ডে অবদানের জন্য গত বছর ভারতের পদ্মভূষণ পুরস্কার পেয়েছেন প্রযুক্তি জায়ান্ট মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস ও তার স্ত্রী মেলিন্ডা গেটস। এই দম্পতি ২০০০ সালে ৩৪. দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার অনুদান দিয়ে বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন নামে একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন। বিশ্বের খাদ্য, স্বাস্থ্য ও শিক্ষা ক্ষেত্রের নানা সমস্যা দূর করার জন্য কাজ করে আসছে সংগঠনটি।

বিল গেটসের যে পরিমাণ অর্থ-সম্পদ আছে, সেগুলো যদি একটি দেশের মোট সম্পদের পরিমাণের সঙ্গে তুলনা করা হয়, তাহলে বিল গেটস হলো পৃথিবীর ৩৭তম ধনী দেশ।

অক্টোবর মাসের সর্বশেষ তালিকা অনুযায়ী, আট হাজার ১৭০ কোটি ডলার সমমূল্যের সম্পদের মালিক বিল গেটসই বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তি।

তুসিন আহমেদ

*

*

আরও পড়ুন