ই-কমার্সের ভিত্তি গড়া শেষ, কাজ এখন উদ্যোক্তাদের : তারানা

Tarana-E-commerce-Techshohor
ছবি : ফেইসবুক থেকে সংগৃহীত
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ই-কমার্সের মূল ভিত্তি ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি। সেই প্রাথমিক কাজ হিসেবে ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি করে দেওয়া হয়েছে। এখন ই-কমার্সকে এগিয়ে নিতে উদ্যোক্তাদের কাজ করতে বলেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

এছাড়াও খাতটিতে ছোট-বড় সবধরনের ব্যবসায়ী সমান সুযোগ পান সেজন্য সবার সমান সুযোগ সুবিধা বা লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড গঠনের উপর গুরুতক্বারোপ করার কথা বলেন তিনি।

বুধবার রাজধানীর র‍্যাডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেন হোটেলে ‘ই-কমার্স পলিসি কনফারেন্সের’ ‘বিজনেস লিডারশিপ ডায়ালগ অন ই-কমার্স’ শীর্ষক আলোচনায় এসব কথা বলেন তিনি।

Tarana-E-commerce-Techshohor
ছবি : ফেইসবুক থেকে সংগৃহীত

বাংলাদেশ এগিয়ে গেলেও ই-কমার্স খাতটি এখনো সংহত নয় উল্লেখ করে তারানা হালিম বলেন, আমাদের ই-কমার্স খাতটির উন্নয়নে প্রাতিষ্ঠানিক সমন্বয়ের অভাব রয়েছে। এজন্য আমরা এখনো কিছুটা হলেও পিছিয়ে আছি। তবে সমন্বয়হীনতা দূর করতে সবারই খাতটির দিকে খেয়াল রাখতে হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

এছাড়াও দেশে যে নয় হাজার ৮৮৬টি ডাকঘর আছে সেগুলোকে ই-কমার্সে নিয়ে আসার জন্যও ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ কাজ করে যাচ্ছে বলে জানান তিনি।

তবে দেশে বেশিরভাগ ই-কমার্স ব্যবসা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক কেন্দ্রিক হওয়ায় নিরাপত্তার দিকে বেশি দৃষ্টি দিতে বলেন প্রতিমন্ত্রী। এজন্য বিটিসিএল থেকে সার্বিক সহায়তা দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বেসিস জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি রাসেল টি আহমেদ। আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আইসিটি জার্নালিস্ট ফোরামের (বিআইজেএফ) সভাপতি মুহম্মদ খান, এফবিসিসিআই সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ, জেএএন অ্যাসোসিয়েট এমডি আব্দুল্লাহ এইচ কাফি, দোহাটেক নিউ মিডিয়ার স্বত্বাধিকারী এ কে এম সামছুদ্দোহা, ই-ক্যাবের সভাপতি রাজিব আহমেদ, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্য) সভাপতি আহমেদুল হক, সিটিও ফোরাম সভাপতি তপন কান্তি সরকার, ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইসপাব) সভাপতি এম এ হাকিম।

দেশে সময়োপযোগী ই-কমার্স নীতিমালা প্রণয়নে ই-কমার্স লেনদেন, পেমেন্ট, ডেলিভারি, গ্রাহকের বিশ্বস্ততা অর্জনসহ এর নিরাপত্তার উপর গুরুত্বারোপ করেন বক্তারা।

এর আগে ‘স্থানীয়ও এ আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ’ শীর্ষক আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তারা দেশিয় উদ্যোগকে এগিয়ে নিতে নিজেদেরই ভূমিকা রাখার উপর জোরারোপ করেন। এছাড়াও তারা দেশে সব ধরনের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড বজায় রাখার জন্য সরকারকে মনিটর করার ব্যবস্থা নিতে দাবি জানান।

এছাড়াও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে ই-কমার্স ব্যবসায়ীরা যেনো ঋণ পান সে ব্যবস্থা করতে সরকারকে অনুরোধ জানান।

সেশনটিতে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের এমডি হোসনে আরা বেগম, সাবের আইসিটি সচিব নজরুল ইসলাম খান, এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক ও সাবেক বেসিস সভাপতি শামীম আহসান, আজকেরডিল ও বিডিজবস এর প্রধান নির্বাহী ফাহিম মাশরুর, বেসিসযুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল, রিভ সিস্টেমসের গ্রুপ সিইও রেজাউল হাসানসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

আরও পড়ুন