ভ্রমণে যে ৮ গ্যাজেট সঙ্গে নেবেন

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ঈদের ছুটিতে ঘুরে বেড়াতে চান অনেকেই। এবার টানা ৯ দিন রয়েছে সরকারি ছুটি। প্রযুক্তিময় এ সময়ে কিছু গ্যাজেট সঙ্গে নিলে তা ভ্রমণকে করবে আরও সহজ ও মজাদার।

ভ্রমণের সময় যেসব গ্যাজেট বেশি কাজে দেবে তা তুলে ধরতে এ প্রতিবেদন।

powerbank-techshohor

পাওয়ার ব্যাংক: ভ্রমণের সময় সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়তে হয় হাতে থাকা স্মার্ট ডিভাইসটি নিয়ে। যাত্রার সময় সম্পূর্ণ চার্জ নিয়ে বের হলেও দিনের অর্ধেক সময় যেতে না যেতেই ডিভাইসের চার্জ ফুরিয়ে যায় অনেক সময়।

স্মার্টফোনের চার্জ দ্রুত শেষ হয়ে গেলে পড়তে হয় বিপাকে। গুরুত্বপূর্ণ অনেক কল মিস হয়ে যায়। তাই ভ্রমণের সময় অবশ্যই পাওয়ার ব্যাংক সঙ্গে নিতে হবে।

বাংলাদেশের বাজারে নানা ব্র্যান্ড ও নন-ব্র্যান্ডের পাওয়ার ব্যাংক পাওয়া যায়। রাস্তার পাশে ফুটপাত থেকে শুরু করে ছোটবড় সব দোকানেই পাওয়ার ব্যাংক পাওয়া যায়। বিশেষ করে প্রযুক্তি পণ্য বিক্রি করে এরূপ শপিং মলে খোঁজ মিলবে পাওয়া ব্যাংকের।

৪০০ টাকা থেকে শুরু করে ১০ হাজার টাকার অধিক মূল্যের পাওয়ার ব্যাংক রয়েছে বাজারে। শাওমি, এইচপি, ওয়ানপ্লাস, হুয়াওয়ে ইত্যাদি ব্র্যান্ডের পাওয়ার ব্যাংক রয়েছে। মূলত পাওয়ার ব্যাংকের মিলিঅ্যাম্পিয়ারের উপর নির্ভর করে  মূল্য। যত বেশি ব্যাটারি ক্ষমতা তত বেশি মূল্য।

ভ্রমণকালে ব্যবহারের জন্য অধিক মিলিঅ্যাম্পিয়ারের পাওয়ার ব্যাংক কেনা উচিত। এমন পাওয়ার ব্যাংক কেনা উচিত যেটি দিয়ে ফোনটিকে অন্তত ৩ বার চার্জ দেয়া যায়।

স্মার্ট বাইনোকুলার: পর্যটকরা বাইনোকুলার ব্যবহার করে থাকেন প্রকৃতি বা দূরের দৃশ্য দেখার জন্য। বাইনোকুলারের সাহায্যে পাখি দেখা বা সৌন্দর্য দেখার জুড়ি নেই। তাই ভ্রমণকালে বাইনোকুলার সঙ্গে রাখা জরুরি। তবে এই স্মার্ট যুগে রয়েছে স্মার্টবাইনোকুলার। এই ডিভাইসটি দিয়ে শুধু দূরের দৃশ্য দেখাই নয়, ছবি তোলা বা ভিডিও করা যায়। এতে রয়েছে জিপিএস সুবিধা।

যে কোন ধরনের বাইনোকুলার কেনার জন্য ঘুরে আসতে পারেন গুলিস্থান স্টেডিয়াম মার্কেটে । সাধারণত এক হাজার টাকা থাকে ৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মানের বাইনোকুলার পাওয়া যায়। এছাড়া স্মার্টবাইনোকুলার আইডিবি বা বসুন্ধরা শপিং মলে পাওয়া যাবে। তবে স্মার্টবাইনোকুলার অনলাইনেও কেনা যাবে।

biancular-techshohor

স্মার্টবাইনোকুলারের দাম সাধারণ বাইনোকুলার থেকে বেশি হবে। সাম্প্রতি সময়ে সনি ‘ডিভ৫০ভি’ নামে একটি স্মার্টবাইনোকুলার বাজারে এনেছে। বাংলাদেশি টাকায় এটির দাম ১ লাখ ৬০ হাজার।

হেডফোন: যাত্রা পথে বাস বা ট্রেনে দীর্ঘ সময় বসে থাকাটা বিরক্তের কারণ হতে পারে। তবে যদি গান শোনা যায় তাহলে কিছুটা বিরক্তি কমে যাবে। বাস বা ট্রেনে লাউড স্পিকারের গান শুনা যায় না, এতে করে অন্যের অসুবিধা হতে পারে। তাই প্রয়োজন একটি ভালো মানে হেডফোন।  ভ্রমণকাল হেডফোন অবশ্যই সঙ্গে নেয়া উচিত।

এমন ধরনের হেডফোন দরকার সেটায় খুব লাউড সাউন্ড হবে না এবং উন্নত মানের মিউজিক সুবিধা দিবে।  বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বিভিন্ন ধরনের হেডফোন রয়েছে। ভ্রমণের ক্ষেত্রে  ব্লুটুথ হেডফোন কেনা উচিত। তাহলে তারের ঝামেলা থাকবে না।

ফুটপাত থেকে শুরু করে প্রযুক্তি পণ্য বিকিকিনির বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের তারযুক্ত ও ব্লুটুথ হেডফোন ১০০ টাকা থেকে ১০ হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যায়।

পাওয়ার ও চার্জিং ক্যাবল: অনেকেই ডিভাইসের পাওয়ার ও চার্জিং ক্যাবল সঙ্গে নিতে ভুলে যান। এতে করে ডিভাইসের চার্জ শেষ হয়ে গেলে পড়তে হয় বিপাকে। বাজারে ‘অল ইন ওয়ান’ নামে চাজিং বা পাওয়ার ক্যাবল পাওয়া যায়। এটির সাহায্যে একই সঙ্গে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ফোনে চার্জ দেয়া যাবে। ২০০ থেকে ১ হাজার টাকার মধ্যে দেশের প্রযুক্তি বাজারে এই ধরনের ক্যাবল কিনতে পাওয়া যায়।

ChargeAll-Universal-techshohor

এমপিথ্রি প্লেয়ার: যেখানে ভ্রমণে যাচ্ছেন সেখানেও হয়তো মন চাইবে গান শুনতে। তাই গান শোনার জন্য রাখতে পারেন এমপিথ্রি প্লেয়ার কিংবা আইপড। যাত্রা পথে স্মার্টফোন ব্যবহার করে গান শুনলে দ্রুত চার্জ শেষ হয়ে যায়। ফলে দীর্ঘ সময় ভ্রমণের সময় আপনি গান প্রেমিক হলে এমপিথ্রি প্লেয়ার বা আইপ্যাড সঙ্গে নেয়া উচিত।

বাজারে ব্র্যান্ড ও নন ব্র্যান্ড অনেক এমপিথ্রি প্লেয়ার রয়েছে। ৫০০ টাকা থেকে শুরু করে ১০ হাজারের অধিক মূল্যে এমপিথ্রি প্লেয়ার বাজারে রয়েছে। ইলেকট্রনিক্সের দোকন থেকে শুরু করে প্রযুক্তি  বিকিকিনির শো-রুমে পাওয়া যাবে এমপিথ্রি প্লেয়ার।

স্মার্টওয়াচ: ভ্রমণের সময় কোন প্রাকৃতির দৃশ্য ছবি তোলা বা হাতে ভারি ব্যাগ হাতে থাকার সময় গুরুত্বপূর্ণ ফোনকল আসতে পারে। এমন সময় স্মার্টফোন পকেট থেকে বের করা কষ্টকর হয়ে পরে। হাতে যদি স্মার্টওয়াচ থাকে তাহলে পকেটে ফোন রেখেই কল রিসিভ করে কথা বলা যাবে। এছাড়া জিপিএস, ছবি তোলা, হার্টবিট সেন্সরসহ নানা সুবিধা রয়েছে স্মার্টওয়াচে। যা ভ্রমণকালে দারুণ কাজে লাগবে। তাই যাত্রা পথে স্মার্টওয়াচ সঙ্গে নেয়া উচিত।

স্যামসাং, সনি, এলজি, হুয়াওয়ে, অ্যাপলসহ নানা ব্র্যান্ডের স্মার্টওয়াচ বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। ব্র্যান্ডের স্মার্টওয়াচ ১৫ হাজার থেকে শুরু করে ৭০ হাজার টাকা পর্যন্ত পর্যন্ত রয়েছে। এছাড়া নন ব্র্যান্ডের বিভিন্ন স্মার্টওয়াচ ২ থেকে ৫ হাজার টাকার মধ্যে কেনা যায়। বসুন্ধরা সিটি শপিং মল, আইডিবি ভবনের পাশাপাশি দেশে থাকা বিভিন্ন অনলাইন ই-কমার্স ওয়েবসাইট থেকে কেনা যাবে স্মার্টওয়াচ।

smartwatch-techshohor

ক্যামেরা ও গোপ্রো: ভ্রমণে সবচেয়ে প্রয়োজনীয় ও নিত্য সঙ্গী হলো ক্যামেরা। ভ্রমণকালে দশর্ণীয় স্থানগুলোকে ক্যামেরা বন্দি করে রাখতে চায় সবাই। এতে করে ভ্রমণের স্মৃতিগুলো হারিয়ে যায় না। স্মৃতি বন্দি করে রাখতে প্রয়োজন ক্যামেরার। তাই ভ্রমণকালে অবশ্যই ক্যামেরা নেয়া উচিত। বাজারে নানা ধরনের নানা ব্র্যান্ডের ক্যামেরা রয়েছে। ছবি তোলার জন্য বর্তমানে ডিএসএলআর ক্যামেরার প্রচলন বেশি।

ক্যানন ব্র্যান্ডের ক্যামেরা ৩৫ হাজার থেকে শুরু করে ৩ লাখ ৩০ হাজার টাকায় কিটলেন্সসহ পাওয়া যাবে।

১৫ হাজার থেকে শুরু করে ৫৮ হাজার টাকার মধ্যেই কেনা সম্ভব নিকনের কমপ্যাক্ট ক্যামেরা। ২৩ হাজার থেকে ৫৮ হাজার টাকার মধ্যেই পাবেন নিকনের কুলপিক্স অ, ঝ ৯৭০০, অডট১১০ (ওয়াটারপ্রুফ) এবং কুলপিক্স ঝ ৯৬০০ মডেলের ক্যামেরাগুলো। এছাড়া ফুজি, সনিসহ আরও অনেক প্রতিষ্ঠানের ক্যামেরা বিক্রি হচ্ছে দেশের বাজারে।

অ্যাডভেঞ্চার প্রিয়দের জন্য ছোট আকারের ক্যামেরা তৈরি করে গোপ্রো। এটি ব্যবহার করে চলার পথে বহনের ঝামেলা ছাড়াই মাথায় বা কোমড়ে গোপ্রো বেঁধে ছবি তোলা যাবে। গোপ্রো সম্পূর্ণ পানিরোধী হওয়ায় পানিতে চালানোর জন্য কোনো আলাদা কেসিং দরকার হয় না। গ্রোপ্রো ক্যামেরা ডিভাইসটির রেকর্ডকৃত দৃশ্য পিসিতে, মোবাইল অ্যাপে বা রিমোট কন্ট্রোল ডিভাইসে দেখার প্রয়োজন হয়। ভ্রমণের সময় ভিডিও ও ছবি তোলাকে আরও মজাদার ও আকর্ষণীয় করে তুলবে গোপ্রো।

gopro-techshohor

গোপ্রো ছাড়াও এরুপ একশন ক্যামেরা সনি, শাওমিসহ চীনের বিভিন্ন নন ব্র্যান্ড প্রতিষ্ঠান তৈরি করে থাকে। ২১ হাজার টাকা থেকে শুরু হয় এ ধরনের ক্যামেরা।

সেলফি স্টিক: বর্তমানে চলছে সেলফি উন্মাদনার যুগ।  বন্ধুদের আড্ডা থেকে শুরু করে ভ্রমণ কালে সেলফি তোলা যেন নিয়মে পরিণত হয়েছে। বিশেষ করে গ্রুপ ছবি তোলার জন্য সেলফি কদর বেশি। সেলফি তোলাকে আরও আকষর্ণীয় করে সেলফি স্টিক।

১০০ টাকা থেকে শুরু করে ২ হাজার পর্যন্ত বিভিন্ন দামের সেলফি স্টিক রয়েছে।  মোবাইল ফোনের দোকানগুলোতেই পাওয়া যায়।

*

*

আরও পড়ুন