বিদেশিদের জন্য ই-কমার্সের দ্বার খুলে দিল ভারত

ecommerce
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বৈশ্বিক ই-কমার্স খাতে শতভাগ বিনিয়োগ করতে চায় ভারত। দেশটির অর্থ মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার প্রথমবারের মতো মাল্টি-বিলিয়ন ডলারের এই সেক্টরটিতে বিদেশি প্রতিষ্ঠানদের বিনিয়োগের জন্য অনুমোদন দিয়েছে।

২০১১ সালে ভারত ই-কমার্সের খুচরো মার্কেটে প্রবেশ করে। তবে দেশটি এখনো দ্রুত বর্ধনশীল এই খাতটিতে পিছিয়ে রয়েছে। দেশটির ই-কমার্স বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, খাতটিতে বৈশ্বিক বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সরকারের সংরক্ষিত নীতিমালা এর জন্য দায়ী।

গত মঙ্গলবার ভারতের অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়, তারা বৈশ্বিক ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস সরাসরি বিনিয়োগের জন্য অনুমোদন দিয়েছে। এরফলে দেশটির ব্যবসায়ীরা খাতটির জন্য গুদাম, তালিকা ও লেনদেন প্রক্রিয়া শুরু করতে পারবে। পাশাপাশি বিদেশি ই-কমার্স কোম্পানিগুলোও ভারতে তাদের কার্যক্রম সম্প্রসারিত করতে পারবে।

ecommerce

মন্ত্রণালয় থেকে আরও বলা হয়, ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো বিক্রি বাড়ানোর জন্য পণ্যের দামকে কোনোভাবেই প্রভাবিত করতে পারবে না। পাশাপাশি একজন ব্যবসায়ী ২৫ শতাংশের বেশি পণ্য বিক্রি করতে পারবে না।

দেশটিতে ইতোমধ্যেই রমরমা ব্যবসা করছে শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স সাইট অ্যামাজন। এছাড়া বিদেশি অর্থায়নে স্থানীয়ভাবে চলছে ফ্লিপকার্ট ও স্ন্যাপডিল।

ই-কমার্স বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, ই-কমার্স খাতে ভারত দ্রুত সামনের দিকে এগিয়ে যাবে। ধারণা করা হচ্ছে, ২০২৫ সাল নাগাদ দেশটির ই-কমার্স পণ্যের বাজার দর হবে ২২ হাজার কোটি মার্কিন ডলার। যা ২০১৫ সালে ছিল মাত্র ১১ শ কোটি মার্কিন ডলার।

রয়টার্স অবলম্বনে শামীম রাহমান

আরও পড়ুন: 

*

*

আরও পড়ুন