Header Top

মুক্তপাঠ : অনলাইনে শিখবে সবাই

muktopath

ইমরান হোসেন মিলন, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : এক ফেব্রুয়ারি, সোমবার। দেশের সব বয়সী, সব পেশার মানুষের জন্য চালু হলো এক অনলাইন বিদ্যাপীঠ। যার নাম ‘মুক্তপাঠ’।

অনলাইন বিনামূল্যে এই ই-লার্নিং প্লাটফর্ম থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করতে পারবেন সবাই। নানা মাধ্যমে মুক্তপাঠ মিলবে অফলাইনে থেকেও।  আর সফলভাবে প্রশিক্ষণ শেষ করলে পাওয়া যাবে সনদ।

দেশের সুবিধাবঞ্চিত ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠী মুক্তপাঠ থেকে বিভিন্ন বৃত্তিমূলক শিক্ষা গ্রহণ করে আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ পাবেন। যেখানে সাধারণ শিক্ষা, কারিগরি শিক্ষা, বৃত্তিমূলক শিক্ষা এবং জীবনব্যাপী শিক্ষা বিষয়ক কোর্স রয়েছে।

মুক্তপাঠের সব কনটেন্ট ব্যবহার করা যাবে মোবাইল ফোনেও। এছাড়া সামাজিক মাধ্যমকে যুক্ত করায় মূল প্লাটফর্মের পাশাপাশি মুক্তপাঠের কন্টেন্ট ইউটিউব, গুগল প্লাস এবং ফেইসবুক থেকে ব্যবহার করা সম্ভব হবে।

মুক্তপাঠের কারিগরদের একজন চট্টগ্রাম টিচার্স ট্রেনিং কলেজের প্রভাষক জয়দীপ দে শাপলু। যিনি প্লাটফর্মটির নাম ও লোগোসহ আটটি কনটেন্টও তৈরি করেছেন।

তিনি টেকশহরডটকমকে বলেন, অমর একুশে বই মেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন ই-লার্নি প্লাটফর্ম ‘মুক্তপাঠ’ উদ্বোধন করলেন তখন গর্বে বুক ভরে উঠলো।

জয়দীপ দে জানান, বিভিন্ন বিষয়ে ভিডিও কনটেন্ট তৈরি, টিউটোরিয়াল, দক্ষতা উন্নয়নের নানা বিষয়ে অনলাইন ও অফলাইনে শেখার ব্যবস্থা থাকছে মুক্তপাঠ (www.muktopaath.gov.bd) প্লাটফর্মে।

Muktopath

‘শিখুন…যখন যেখানে ইচ্ছে’ শ্লোগান দিয়ে উদ্যোগটি বাস্তবায়ন করেছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রকল্প।

জয়দীপ দে বলেন, এর আগে আমরা দেশের বিভিন্ন স্থানে শিক্ষকদের জন্য ১৪ দিনের করে একটি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম আয়োজন করেছি। কিন্তু তিন বছর পর দেখা গেল প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে মাত্র ৯০ হাজার। যা প্রায় আট লাখ শিক্ষকের ন্যূনতম অংশ।

সেই চিন্তা থেকেই মুক্তপাঠ ডেভেলপ করা হয়েছে বলে জানান জয়দীপ। বললেন, ইতোমধ্যে আমরা শিক্ষকদের জন্য বেশকিছু কনটেন্ট তৈরি করেছি। যা আরও করা হচ্ছে। এর বাইরেও কৃষক, গৃহিণীসহ অন্যান্যদের জন্যও থাকবে কনটেন্ট।

মুক্তপাঠ নিয়ে এটুআইয়ের পলিসি বিশেষজ্ঞ আফজাল হোসেন সারওয়ার বলেন, দেশের বেশকিছু টিচার্স ট্রেনিং কলেজের শিক্ষকদের অক্লান্ত পরিশ্রমে মুক্তপাঠ আজ তাদের স্বপ্ন নিয়ে পথ চলা শুরু করেছে।

muktopath

আফজাল হোসেন বলেন, মুক্তপাঠের জন্য কনেটন্ট তৈরি শুধু শিক্ষকরাই করবে না। এটা যেকেউ করতে পারবেন। তবে সেটা অবশ্যই সময়োপযোগী হতে হবে এবং তা সঠিক হতে হবে। অবশ্য মুক্তপাঠের সঙ্গে জড়িতরা সেটা পরীক্ষা করবে।

তিনি বলেন, আমরা পরিকল্পনা করেছি অল্প সময়ের মধ্যে মুক্তপাঠে ক্যাটাগরি করে শিক্ষা, প্রোগ্রামিং, মাছ চাষ, কৃষি, দক্ষতা উন্নয়নে যুব প্রশিক্ষণসহ নানা বিষয় রাখা হবে। ইতোমধ্যে প্রান্তিক চাষীদের জন্য উচ্চফলনশীল শস্য উৎপাদনের জন্য কেঁচো সার সম্পর্কিত প্রায় ৭০টি ভিডিও রাখা হয়েছে।

মুক্তপাঠ দুটি দলে কাজ করেছে। যার মূল দলে ছিলেন জয়দীপ দে শাপলু, সাবিহা সুলতানা, ঈশিতা পাল, আহসান আরেফিন চৌধুরী ও সাইদুজ্জামান পাঠান।

এছাড়াও হাবিবুল ইসলাম সুমন, মির্জা মোহাম্মদ দিদারুল আনাম, মো. কবির হোসেন, রোকন উদ্দীন শিকদার, তাসরিফা খানম, গাজী সালাউদ্দীন সিদ্দিকী, রায়হানা তাসলিমসহ আরো অনেকেই প্রাথমিক অবস্থায় কনটেন্ট তৈরির কাজ করেছেন।

 

 

৭ টি মতামত

    • tahmina tania said:

      ধন্যবাদ । নিউজের ভেতরে লিংক আছে । ওই সাইটে লগ ইন করে করতে পারেন ।

*

*

আরও পড়ুন