বাংলা সাহিত্যের নতুন ডিজিটাল প্লাটফর্ম বেঙ্গল ই-বই  

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : লক্ষ্য বাংলা ভাষাকে বিশ্বময় ছড়িয়ে দেওয়ার। আর এর জন্য ডিজিটাল প্লাটফর্মে বাংলা সাহিত্যে পড়া বা সংগ্রহের উদ্যোগের চেয়ে ভাল কী-ই বা হতে পারে। শুক্রবার সেই উদ্যোগ বাস্তবে রূপ নিল বেঙ্গল ই-বই এর মাধ্যমে।

প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে খুব সহজেই এবং স্বল্প খরচে যে কেউ বেঙ্গল ই-বই থেকে বই ডাউনলোড করতে অথবা অনলাইনে বসে পড়তে পারেন সেই সুবিধা রয়েছে।

বাংলা ভাষায় ই-বুকের একটি প্লাটফর্ম হিসেবে কাজ করা, বিশ্বের যেকোনো স্থান থেকে সহজেই যে কেউ বাংলা সাহিত্য পড়তে পারেন এবং দেশের তরুণদের মধ্যে বই পড়ার অভ্যাস তৈরি করার লক্ষ্য নিয়ে শুক্রবার যাত্রা শুরু করেছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের এই ই-বই প্রকল্প।
বেঙ্গল পাবলিকেশন্সের ই-বই প্রকল্পে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করেছে ব্লুজ কমিউনিকেশনস লিমিটেড।

Techshohor Youtube

e book

জাতীয় জাদুঘরের নলিনীকান্ত ভট্টশালী হলে বেঙ্গল ই-বইয়ের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন লেখক আনিসুল হক ও মুনিজে মনজুর। এছাড়াও বেঙ্গল পাবলিকেশন্সের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের, কর্মকর্তা, লেখক ও প্রকাশকরা উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বেঙ্গল পাবলিকেশন্স এর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে এর ভাণ্ডার বাড়ানো ও তরুণদের মধ্যে বই পড়ার অভ্যাস তৈরির লক্ষ্যে নানামুখী আরো উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানান।

বেঙ্গল ই-বই এর পরিচালনা বিভাগের প্রধান আসকার ইবনে ফিরোজ টেকশহরডটকমকে বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে ৯০টি বই দিয়ে এই ই-বইয়ের যাত্রা শুরু করছি। আগামী এক মাসের মধ্যে আড়াইশোটি বই আপলোড করা হবে। এরপর ধীরে ধীরে এর ভাণ্ডার বাড়তে থাকবে।

তিনি বলেন, অনলাইনে পড়ার পাশাপাশি যেকেউ এখন থেকে বই ডাউনলোড করতে পারবেন। বইভেদে পাঠকদের কার্ডের মাধ্যমে ১০ টাকা থেকে শুরু করে তদুর্ধ্ব মূল্য পরিশোধ করতে হবে।

ফিরোজ জানান, অন্যান্য বইয়ের মতো আমরা এখানে স্ক্যান করে দিবো না। বরং বইগুলোর রয়ালিটি কিনে সেগুলো কম্পোজ করে পিডিএফসহ আরো দুটি ফরম্যাটে আপলোড করা হবে।

২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে বেঙ্গল পাবলিকেশন্স ই-বইয়ের কাজ শুরু করে প্রায় দুই বছর পর পাঠকদের জন্য উন্মুক্ত করতে সক্ষম হলো।

ইমরান হোসেন মিলন

 

*

*

আরও পড়ুন