ডটবাংলা চালুর অনুমোদন মেলেনি এখনও

ডটবাংলা1
Evaly in News page (Banner-2)

আল-আমীন দেওয়ান, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২১ ফেব্রুয়ারিতে ইন্টারন্যাশনালাইজড ডোমেইন নেইমে (আইডিএন) বাংলা (ডটবাংলা) চালুর ঘোষণা থাকলেও এখনও তার অনুমোদন দেয়া হয়নি।

কান্ট্রি কোড টপ-লেভেল এই ডোমেইন হিসেবে বাংলাদেশের জন্য ডটবাংলার বরাদ্দ থাকলেও ডোমেইন ম্যানেজার হিসেবে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেডকে (বিটিসিএল) আজও অনুমোদন দেয়নি আন্তর্জাতিক ডোমেইন ব্যবস্থাপনা নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইন্টারনেট করপোরেশন ফর অ্যাসাইন্ড নেইমস অ্যান্ড নাম্বারস (আইক্যান)। তাদের ওয়েবসাইটে রুট জোন ডাটাবেইজে স্পন্সরিং অর্গানাইজেশনে ঝুলে আছে ‘নট অ্যাসাইন’ স্ট্যাটাস।

ফলে ডোমেইন নেইম চালুর মূল সোর্স বিশ্বের ১৩ টি টপ লেভেল ডিএনএস সার্ভারে ডটবাংলা ডোমেইন সংরক্ষণের ছাড়পত্রও দেয়নি সংস্থাটি।

যদিও ডোমেইন ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালনের সরকারি সিদ্ধান্তের পর বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক অপারেটরস গ্রুপের (বিডিনগ) সহযোগিতায় বিটিসিএল প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশ সংগ্রহ, সার্ভার স্থাপন, বিভিন্ন কারিগরি প্রক্রিয়া ও ডোমেইন বিক্রির নীতিমালা চূড়ান্ত করে রেখেছে।

বিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) গোলাম ফখরুদ্দিন আহমেদ চৌধুরী টেকশহরডটকমকে জানান, ডোমেইন ম্যানেজার হিসেবে সকল কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। আমারা আইক্যানের কাছে আবেদন করে রেখেছি। সংস্থাটির বোর্ড সভায় এটি অনুমোদনের অপেক্ষা করা ছাড়া আমাদের আর কিছুই করার নেই।

ডটবাংলা

এর আগে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) ও বিটিসিএলের মধ্যে ডটবাংলার দায়িত্ব পাওয়া নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতা ছিল।

২০১৫ সালের জুনে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত ডমস্টিক নেটওয়ার্কিং কো-অর্ডিনেশন কমিটির (ডিএনসিসি) সভায় বিটিসিএলকে ডটবাংলার দায়িত্ব দেয়া হয়।

ইন্টারনেট যোগাযোগ বিশেষজ্ঞ ও বিডিনগ বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান সুমন আহমেদ সাবির টেকশহরডটকমকে জানান, বাংলাদেশের দিকের কাজ শেষ। এখন আইক্যানের কাজ। সম্ভবত যুক্তরাষ্ট্রের কমার্স ডিপার্টমেন্ট থেকে এখনও ছাড়পত্র পায়নি আইক্যান। তাই ডটবাংলাকে  টপ লেভেল ডিএনএস সার্ভারগুলোতে লিপিবদ্ধ করতে অনুমোদন দেয়া হয়নি।

তিনি বলেন, এখন শুধু অনুমোদনটাই মূল বিষয়। অনুমোদনের পর এটি চালু করতে যেসব কারিগরি প্রক্রিয়া অবলম্বন করা হয় তা সব মিলিয়ে দুই দিনের কাজ। যেহেতু ২১ ফেব্রুয়ারি ডটবাংলা চালুর ঘোষণা রয়েছে তাই আইক্যানের সঙ্গে গুরুত্ব দিয়ে নিয়মিত যোগাযোগ করতে হবে ।

আইক্যানের সাথে যোগাযোগ করেছিলেন ইন্টারনেট বিশেষজ্ঞ এবং বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক অপারেটরস গ্রুপের (বিডিনগ) সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম পাপ্পু।

তিনি টেকশহরডটকমকে জানান, আইক্যান এখন ডটবাংলার রুট জোন অ্যাসাইন করেনি। সার্ভার কনফিগারেশনসহ বিটিসিএলের সব কাজ শেষ। এখন আইক্যানকে রুট জোন ডেলিগেশন করতে হবে। বিটিসিএল ইতোমধ্যে বিস্তারিত আবেদন পাঠিয়ে রেখেছে।

পাপ্পু বলেন, ডটবাংলার জন্য পিসিএইচ ব্যাকআপ করে দিয়েছি আমরা। যাতে কোনো কারণে বিটিসিএলের সার্ভার ডাউন থাকলে ডটবাংলার নেটওয়ার্ক বিঘ্নিত না হয়।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে ইন্টারন্যাশনালাইজড ডোমেইন নেইমে (আইডিএন) লেখার ভাষা হিসেবে বাংলা ভাষার আনুষ্ঠানিক অনুমোদন পায় বাংলাদেশ।

২০১০ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সরকার আন্তর্জাতিক ডোমেইন হিসেবে ‘ডটবাংলা’ কার্যকর করতে আইক্যান এর কাছে আবেদন করেছিল।

বাংলাদেশের আবেদনের পর সংস্থাটি বাংলা ভাষাকে মূল্যায়ন করে। এরপর ইন্টারনেট অ্যাসাইনড নাম্বারস অথোরিটির (আইএএনএ) অনুমোদনও মেলে।

এর পর এই ডটবাংলার দায়িত্ব কে নেবে সে বিষয়ে আইডিএনের কাছে আবেদন করে তা বাস্তবায়নের প্রক্রিয়াটি অবশিষ্ট ছিলো। কিন্তু ২০১৫ সালের জুন পর্যন্ত এই সিদ্ধান্তই নেয়া হয়নি।

আর এখন সবকিছু করার পর আইক্যানের সিদ্ধান্তের অপেক্ষা।

*

*

আরও পড়ুন