Samsung IM Campaign_Oct’20

নতুন বছরে নজর কাড়বে যে ১০ সাশ্রয়ী ফোন

Evaly in News page (Banner-2)

আহমেদ মনসুর, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : স্বাগতম ২০১৬। নতুন বছরকে ঘিরে সবারই কম বেশি নতুন কিছু চাওয়া-পাওয়া থাকে। এমন প্রযুক্তিপ্রেমীদের কথা ভেবেই জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানগুলো প্রস্তুতি নিয়েছে অনেক আগেই।

নতুন বছরে যারা স্মার্টফোন কেনার অপেক্ষায় আছেন তাদের কথা ভেবে নতুন কিছু আনার ঘোষণা দিয়েছে বিভিন্ন হ্যান্ডসেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। এর মধ্য থেকে সেরা ১০ হ্যান্ডসেটের টুকিটাকি হাজির করা হলো টেকশহর ডটকম পাঠকদের সামনে।

lenovo k4 note

লেনোভো কে ফোর নোট
বাজেট ফোন হিসেবে ‘কে ৩ নোট’ বা ‘ভাইব শট’ দিয়ে বিকাশমান মোবাইল বাজারে বেশ সুনাম কামিয়েছে চীনা কোম্পানি লেনোভো। ‘কে’ সিরিজকে আরও জনপ্রিয় করে তুলতে কোম্পানিটি নতুন বছরে বাজারে আনছে ‘কে ৪ নোট’।

এতে রয়েছে ১.৭ জিএইচজেড অক্টাকোর প্রসেসর ও অ্যান্ড্রয়েড ৫.৫ অপারেটিং সিস্টেম। ৩জিবি র্যাামের এই ফোনে আছে ১৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ, যা মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে আরও ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ডুয়াল সিমের এই ফোনে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল ব্যাক ও ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। ফুল এইচডি আইপিএস ডিসপ্লের সঙ্গে রয়েছে ২৯০০ এমএইচ ব্যাটারি।

তবে এর গুরুত্বপূর্ণ ফিচার হল সাউন্ড। ৩৬০ ডিগ্রি ডলবি সারাউন্ডিং সাউন্ড, যা গান শোনার জন্য খুবই ভাল। হাই কনফিগারেশনের গেম খেলা বা ফুল এইচডি সিনেমা দেখার জন্য এই ফোন উপযুক্ত হতে পারে।

এতে আছে ১০৮০ x ১৯২০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের ৫.৫ ইঞ্চির এইচডি ডিসপ্লে। এছাড়াও আছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। থাকবে মেটাল বডি।

মটোরোলা মটো এক্স ফোর্স
হাত থেকে কোনো শক্ত বস্তুর উপর পরে স্মার্টফোন ভাঙাটা বিচিত্র কিছু না। তবে ‘মটো এক্স ফোর্স’ নামের একটি ডিভাইস উন্মোচন করেছে মটোরোলা, যা অনেক উপর থেকে কোনো শক্ত বস্তুর উপর পরলেও ভাঙবে না।

ডিভাইসটি যুক্তরাজ্যে পাওয়া যাচ্ছে। শিগগিরই ডিভাইসটি অন্যান্য দেশের বাজারে পাওয়া যাবে।

Moto X Force pre-orders start in the UK

ফোনটির ব্যাপারে মটোরোলা কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, ৩ বছর সময় নিয়ে এই ডিভাইস তৈরি করা হয়েছে। এর স্ক্রিনের উপর ৪ বছরের গ্যারান্টি দেয়া হচ্ছে। কোনোভাবেই ভাঙবে না এই ডিভাইসের ডিসপ্লে।

মটো শ্যাটারশিল্ড দিয়ে তৈরি এই ফোনের স্ক্রিন ৫ ধরনের লেয়ার দিয়ে বানানো হয়েছে। বাজারের অন্যান্য হ্যান্ডসেট প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের ফোন সাধারণত ২ ধরনের লেয়ার দিয়ে বানানো হয়। ফোনটিতে প্রথমে অ্যালুমিনিয়ামের কোর ব্যবহার করা হয়েছে। এরপর ৫.৪ ইঞ্চির অ্যামোলেড ডিসপ্লে রয়েছে। এছাড়াও আছে ডুয়াল টাচ লেয়ার, ইন্টেরিয়র লেয়ার ও প্ল্যাস্টিকের লেয়ার।

ডিভাইসটিতে ২১ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা, ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট স্ন্যাপার, ৩জিবি র্যা ম ও ৩২জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ সুবিধা রয়েছে। এতে প্রসেসর হিসেবে কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ৮১০ ব্যবহার করা হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড ৫.১.১ ললিপপ চালিত এই ফোনে ৩৭৬০এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে।

আসুস জেনফোন ম্যাক্স
২০১৬ সালের জানুয়ারিতে বাজারে আসবে আসুস জেনফোন ম্যাক্স। এতে থাকছে ৭২০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের ৫.৫ ইঞ্চি আইপিএস ডিসপ্লে, ডিসপ্লে সুরক্ষায় থাকছে গরিলা গ্লাস ৪।

এতে আছে ১.২ গিগাহার্জ কোয়াডকোর প্রসেসর এবং সাথে আছে স্ন্যাপড্রাগন ৪১০ চিপসেট। এতে আরও আছে ২ গিগাবাইট র্যাসম এবং ১৬ গিগাবাইট বিল্ট-ইন স্টোরেজ ক্যাপাসিটি।

asus zenfone max

স্মার্টফোনটিতে আছে ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা, যাতে ডুয়েল এলইডি ফ্ল্যাশ এবং লেজার অটোফোকাস রয়েছে। সেলফি তোলার জন্য রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। ফ্রন্ট ক্যামেরায় ব্যবহার করা হয়েছে ৮৫ ডিগ্রি ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স।

ডুয়েল সিম সুবিধার স্মার্টফোনটিতে থ্রিজির পাশাপাশি ফোরজি নেটওয়ার্ক সমর্থন সুবিধা রয়েছে। এর অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকবে অ্যান্ড্রয়েড ৫.০ ললিপপ ভিত্তিক জেন ইউআই ২.০। স্মার্টফোনটির মূল্য কত হবে, এ ব্যাপারে এখনও কিছু জানা যায়নি।

এইচটিসি ওয়ান এক্স৯
‘এইচটিসি ওয়ান এ৯’ জনপ্রিয়তা পাওয়ায় ‘এইচটিসি ওয়ান এক্স৯’ নামের আরেকটি স্মার্টফোন বাজারে আনছে তাইওয়ানভিত্তিক প্রযুক্তিপণ্য প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান এইটিসি।

ডিভাইসটি চীনের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। শিগগিরই তা অন্যান্য দেশের বাজারে আসছে। ডিভাইসটি ২ হাজার ৩৯৯ ইয়েনে বিক্রি হচ্ছে চীনে, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২৯ হাজার ৭০ টাকা।

HTC One X9

এইচটিসি ওয়ান এক্স৯ স্মার্টফোনে ৫.৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি ডিসপ্লে রয়েছে। এতে প্রসেসর হিসেবে মিডিয়াটেক হেলিও এক্স ১০ সিরিজের অক্টাকোর চিপসেট এবং অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালো ব্যবহার করা হয়েছে। ৩জিবি র্যা মের এই ফোনে ৩২জিবির ইন্টারনাল স্টোরেজ সুবিধা পাওয়া যাবে, যা মাইক্রোএসডি কার্ড দিয়ে আরও ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ডিভাইসটিতে ভিডিও করা ও ছবি তোলার জন্য ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা রয়েছে। আর ভিডিও চ্যাট ও সেলফি তোলার জন্য এতে ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে।

দীর্ঘ সময় ব্যাকআপ সুবিধা দেয়ার জন্য ফোনটিতে ৩০০০ মিলিঅ্যাম্পায়ার আওয়ারের ব্যাটারি রয়েছে। কানেক্টিভিটির দিক থেকে ফোন টুজি, থ্রিজি, ফোরজি, ওয়াইফাই, ব্লুটুথ, মাইক্রোইউএসবি নেটওয়ার্ক সমর্থন করবে।

হুয়াওয়ে পি৯
‘হুয়াওয়ে পি৯’ নামের একটি ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন বাজারে আনতে যাচ্ছে হুয়াওয়ে। ডিভাইসটি ২০১৬ সালের মার্চ মাস নাগাদ বাজারে আসবে।

Huawei P9 could be released in March

চলতি বছরের এপ্রিল মাসে ‘হুয়াওয়ে পি৮’ বাজারে আনে হুয়াওয়ে। এই স্মার্টফোন সাড়া জাগানোয় এবার হুয়াওয়ে পি৯ বাজারে আনছে। এই ফ্ল্যাগশিপ ফোনও বাজার মাতাবে বলে মনে করছেন বাজার বিশ্লেষকরা।

ডিভাইসটির স্পেশিফিকেশন নিয়ে খুব বেশি কিছু জানা যায়নি। শুধু জানা গেছে, এতে হুয়াওয়ে পি৮ এর মতো ৫.২ ইঞ্চির ডিসপ্লে থাকবে। ডিভাইসটির ডিজাইন বাঁকানো হতে পারে। ৪জিবি র্যা মের এই ফোনে হুয়াওয়ের নিজস্ব অক্টা-কোর কিরিন প্রসেসর থাকবে। এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার ও অটো-ফোকাসের দুটি রিয়ার ক্যামেরা থাকতে পারে।

জিওমি এমআই ৫
নতুন বছরের এপ্রিল মাসে বাজারে আসবে জিওমি এমআই ৫। ফাঁস হওয়া তথ্যে জানা গেছে, কালো, সোনালী, গোলাপী এবং সাদা রঙে বাজারে আসবে ডিভাইসটি।

সম্প্রতি জিওমি এমআই ৫ স্মার্টফোনের ছবি ও তথ্য ফাঁস করে চীনা ওয়েবসাইট যায়েকি। সাইটটির ছবিতে ডিভাইসটির সামনের প্যানেল ও নিচের বেজেল তুলে আনা হয়। পাশাপাশি স্মার্টফোনটির দামসহ নানা কনফিগারেশনের তথ্যও তুলে আনে।

Xiaomi Mi 5 Leak Includes Images, Price, and Specifications

সাইটটি জানায়, এমআই ৫ ডিভাইসে ডিসপ্লের নিচের দিকে স্লিম হোম বাটন থাকবে। মেটাল ফ্রেম ডিজাইনের এই ফোনের নিচে ইউএসবি টাইপ-সি এবং ডুয়াল স্পিকার থাকবে।

সাইটটি আরও জানায়, ফ্ল্যাগশিপ ফোনটিতে ২.৫ডি কার্ভড গ্লাস ডিসপ্লে থাকবে এবং এর ব্যাক প্যানেল থ্রিডি গ্লাসে মোড়ানো থাকবে। শুধু তাই নয়, ফোনটিতে বাজার সেরা ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর থাকবে।

যায়েকির আগেও ডিভাইসটির নানান তথ্য ফাঁস করে বেশ কিছু ওয়েবসাইট। ফাঁস হওয়া ওইসব তথ্যমতে, স্মার্টফোনটিতে ফুল এইচডি বা কিউএইচডি রেজ্যুলেশনের ৫.২ ইঞ্চির ডিসপ্লে থাকবে। এতে প্রসেসর হিসেবে স্ন্যাপড্রাগন ৮২০ এসওসি থাকবে। ৩জিবি ও ৪জিবির সংস্করণে বাজারে আসবে ডিভাইসটি। ৩জিবির সংস্করণে ৩২জিবি ইন্টারনাল মেমোরি ও ৪জিবির সংস্করণে ৬৪জিবি ইন্টারনাল মেমোরি থাকবে।

জিওমির নতুন এই স্মার্টফোনে ছবি তোলা ও ভিডিও করার জন্য ডুয়াল এলইডি ফ্ল্যাশের ১৬ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা এবং ভিডিও চ্যাট ও সেলফি তোলার জন্য ১৩ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকবে।

ডিভাইসটিতে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ মার্শম্যালো ভিত্তিক এমআইইউআই থাকবে। দীর্ঘ সময় ব্যাকআপের জন্য ফোনটিতে ৩৬০০এমএএইচ ব্যাটারি থাকবে। ফোনটির ব্যাটারিতে থাকবে কুইক চার্জ ৩.০ প্রযুক্তি, যা ব্যাটারিকে দ্রুত চার্জ হতে সাহায্য করবে।

জিওমি এমআই ৫ এর ৩জিবির সংস্করণের দাম পরবে ১ হাজার ৯৯৯ ইয়েন এবং ৪জিবি সংস্করণের দাম পরবে ২ হাজার ৯৯৯ ইয়েন।

লুমিয়া ৬৫০
২০১৬ সালের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে লুমিয়া ৬৫০ নামের একটি স্মার্টফোন আনতে যাচ্ছে মার্কিন প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট।

সম্প্রতি লুমিয়া ৬৫০ স্মার্টফোনের বেশ কিছু ছবি ফাঁস হয়েছে অনলাইনে। ছবি বিশ্লেষণ করে বিভিন্ন প্রযুক্তি বিষয়ক সংবাদ মাধ্যম বলছে, স্মার্টফোনটিতে মেটাল ফ্রেমের স্লিম ডিজাইন থাকবে।

Microsoft Lumia 650 Spotted in Renders

উইন্ডোজ ১০ মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম চালিত এই হ্যান্ডসেটে ৫ ইঞ্চির এইচডি ডিসপ্লে থাকবে। এতে প্রসেসর হিসেবে থাকবে কোয়াড-কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ২১২ এসওসি।

১জিবি র‍্যামের এই ফোনে ৮জিবির ইন্টারনাল স্টোরেজ থাকবে, যা মাইক্রোএসডি কার্ড দিয়ে আরও অনেক বাড়ানো যাবে।

ডিভাইসটিতে ভিডিও করা এবং ছবি তোলার জন্য ৮ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা এবং ভিডিও চ্যাট ও সেলফি তোলার জন্য ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকবে।

লুমিয়া ৬৫০ কোয়ালকম কুইক চার্জ ২.০, ডুয়াল সিম কনফিগারেশন, ব্লুটুথ ৪.১, এনএফসি, এইচডি ভয়েস এবং ওয়াই-ফাই কলিং সেবা সমর্থন করবে। ডিভাইসটির ব্যাটারি বা দামের মতো অন্যান্য তথ্য পাওয়া যায়নি।

গ্যালাক্সি এ৯
সম্প্রতি চীনের বাজারে উন্মুক্ত করা হয়েছে গ্যালাক্সি এ৯। স্যামসাংয়ের এই ডিভাইস শিগগিরই বিশ্ববাজারে আসছে।

স্যামসাংয়ের চীনা ওয়েবসাইটে সম্প্রতি গ্যালাক্সি এ৯ স্মার্টফোন তালিকাভূক্ত করা হয়েছে। এখানেই ডিভাইসটির কনফিগারেশনের নানা তথ্যও প্রকাশ করা হয়েছে।

Samsung Galaxy A9

মিড-রেঞ্জের এই ফোন সাদা, পিংক ও সোনালী রঙে বাজারে আসবে। ডুয়াল সিমের এই ফোনে ১০৮০*১৯২০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের ৬ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড স্ক্রিন থাকবে। ডিসপ্লের পিক্সেল ঘনত্ব হবে ৪০১ পিপিআই।

ডিভাইসটিতে স্ন্যাপড্রাগন ৬২০ চিপসেট ব্যবহার করা হবে। এতে ৪এক্স করটেক্স-এ৭২ ও ৪এক্স করটেক্স-এ৫৩ কোরের অক্টা-কোর ১.৮হার্টজ প্রসেসর থাকবে।। আর অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে স্মার্টফোনটিতে থাকবে অ্যান্ড্রয়েড ৫.১.১ ললিপপ। তবে এতে অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ মার্শম্যালো হালনাগাদের সুবিধা রাখা হবে।

৩জিবি র‍্যামের এই ফোনে ৩২জিবির ইন্টারনাল স্টোরেজ সুবিধা থাকবে, যা মাইক্রোএসডি কার্ড দিয়ে ১২৮জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ভিডিও করা ও ছবি তোলার জন্য ফোনটিতে ১৩ মেগাপিক্সেলের এলইডি ফ্ল্যাশের অটোফোকাশ রিয়ার ক্যামেরা এবং ভিডিও চ্যাট ও সেলফি তোলার জন্য ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকবে।

এই ফোনে চার হাজার এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে, যা দীর্ঘ সময় ব্যাকআপ সুবিধা দেবে। কানেক্টিভিটির দিক থেকে ডিভাইসটি ৪জি এলটিই, জিপিএস, এনএফসি, এফএম রেডিও, ব্লুটুথ ভি৪.১, বেইডু, মাইক্রো-ইউএসবি ২.০ এবং ওয়াই-ফাই সমর্থন করবে।

ডিভাইসটিতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার ও স্যামসাং পে ফিচার থাকবে। এর দরদাম সম্পর্কিত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

আইফোন ৬সি
বর্তমানে কম দামের উন্নত কনফিগারেশনের স্মার্টফোনই বাজার মাতিয়ে থাকে। সেজন্য আইফোন ৫ এর মতো ছোট পর্দার সাশ্রয়ী দামের ডিভাইস আনতে যাচ্ছে মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল।

এটি ২০১৬ সালের শুরুতে বাজারে আসবে। মিং চি কুও নামের এক অ্যাপল পণ্য বিশ্লেষক সম্প্রতি এইসব তথ্য দিয়েছেন।

Apple iPhone 6c with 4-inch display expected to be launched early next year

এই প্রথম বারের মতো বিদ্যমান আইফোনের চেয়ে ছোট পর্দার ডিভাইস আনতে যাচ্ছে অ্যাপল। নতুন এই ডিভাইসের নাম আইফোন ৬সি হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মিং চি কুও জানিয়েছেন, আইফোন ৬সি আইফোন ৬ ও আইফোন ৬এসের মতো কিছুটা বাঁকানো হতে পারে। এতে আইফোন ৫এসের কাঠামো ব্যবহার করা হবে। আর আইফোন ৬এসের মতো এতে এ৯ চিপ ব্যবহার করা হবে। সোনালী, ধূসর ও রুপালি রঙে ডিভাইসটি উন্মোচন করা হবে।

*

*

আরও পড়ুন