Techno Header Top and Before feature image

ব্র্যান্ডউইজে সেরা আইবিএর প্রজেক্ট-২২

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : জাতীয় পর্যায়ের উদ্ভাবনী প্রতিযোগিতা ব্র্যান্ডউইজে সেরা হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটের (আইবিএ) দল প্রজেক্ট-২২।

প্রতিযোগিতায় আইবিএ’র ‘আভান্ট গার্ড’ দ্বিতীয় ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ প্রফেশনালসের (বিইউপি) দল ‘৩৬০ ডিগ্রী’ তৃতীয় হয়েছে।

সরকারের অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রকল্প ও আইবিএ যৌথভাবে ২০১৫ সালের ব্র্যান্ডউইজ প্রতিযোগিতার আয়োজক। ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে বিভিন্ন নাগরিক সেবা (ই-সেবা) প্রদানে উদ্ভাবন, জনগনকে সম্পৃক্ত করার প্রচার-প্রচারণার কৌশল এবং কর্মপন্থা নির্ধারণে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

brandwitz

শনিবার প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে নির্বাচিত ৬টি গ্রুপ জাতীয় তথ্য বাতায়ন, তথ্যকোষ, রুরাল ই-কর্মাস, স্মার্ট মাইগ্রেশন, জয়িতা ও মানব উন্নয়ন মিডিয়া বিষয়ে বিজনেস মডেল তৈরি করে বিচারক প্যানেলের সামনে উপস্থাপন করে। যেখান থেকে সেরা হয় এই তিন দল।

প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয়তে জায়গা করে নেয়া  দলগুলোকে মোট ৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকার পুরস্কার দেয়া হয়।

বিজয়ী দলগুলোর হাতে সম্মাননা ও চেক তুলে দেন ব্র্যান্ডইইজের গ্রান্ড ফিনালে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

এসময় সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিনের অচলায়তন ভেঙ্গে একটি উদ্ভাবনী সংস্কৃতি গড়ে তোলা হচ্ছে। মাঠপর্যায় থেকে শুরু করে সরকারের নীতি-নির্ধারণী পর্যন্ত ইনোভেশন টিম গড়ে তোলা হয়েছে। এইসব টিমের সদস্যরাই বিভিন্ন উদ্ভাবনী উদ্যোগ গ্রহণ করছে।

তিনি বলেন, উদ্ভাবনের জন্য ঝুঁকি নিতে হবে, উদ্ভাবকদের ভুল করার সুযোগ দিতে হবে। তবে একই ভুল বারবার করা যাবেনা।

প্রতিযোগিতার আয়োজকরা জানান, প্রতিযোগিতার মূল উদ্দেশ্য ছিল উদ্ভাবনী সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠায় দেশব্যাপী ২০টি পাবলিক-প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে উদ্ভাবনী ধারণার বিকাশ, উদ্ভাবনকে উৎসাহ এবং প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতা প্রদান করা।

এবার চূড়ান্ত পর্বে বিচারক ছিলেন মেঘনা গ্রুপের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর আসিফ ইকবাল, এসিআইয়ের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর সৈয়দ আলমগীর, বার্জার পেইন্টসের মার্কেটিং ডিরেক্টর রূপালী চৌধুরী এবং এটুআইয়ের পলিসি অ্যাডভাইজার আনীর চৌধুরী।

brandwitz2

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব মোঃ আবুল কালাম আজাদ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাসরিন আহমদ।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) এবং এটুআইয়ের প্রকল্প পরিচালক কবির বিন আনোয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে ছিলেন আইবিএর পরিচালক অধ্যাপক ডঃ এ কে এম সাইফুল মজিদ, এটুআই প্রোগ্রামের জনপ্রেক্ষিত বিশেষজ্ঞ নাঈমুজ্জামান মুক্তা ও আইবিএ কমিউনিশকেশন ক্লাবের মডারেটর সুতপা ভট্টাচার্য।

উল্লেখ্য, গত ১৬ সেপ্টেম্বর ব্র্যান্ডউইজ-২০১৫ প্রতিযোগিতা শুরু হয়। অনলাইনে আবেদনের ভিত্তিতে প্রথম রাউন্ডে নির্বাচিত ৪৮টি দল ইস্যুভিত্তিক সমস্যার বিভিন্ন সমাধান খুঁজে বের করে। এরপর ২৪টি দল পরবর্তী রাউন্ডে আসে। দ্বিতীয় রাউন্ডে প্রতিযোগিদের অভিনব বিপণন কার্যক্রমের ধারণাগুলো বিশ্লেষণ করে বিচারকরা সেরা ৬টি দলকে চূড়ান্ত রাউন্ডের জন্য নির্বাচিত করেন।

আল-আমীন দেওয়ান

*

*

আরও পড়ুন