আই স্ট্যান্ড উইথ আহমেদ!

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের ম্যাক আর্থার হাই স্কুলের ছাত্র আহমেদ মোহাম্মদকে মুক্তি দেওয়ার পর তার সমর্থনে আই স্ট্যান্ড উইথ আহমেদ টুইট করেছে লাখ লাখ মানুষ।

শুধু মার্কিন প্রেসিডেন্ট বা সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট প্রার্থীই নয় নির্দোষ কিশোরের সমর্থনে তার পাশে দাঁড়িয়েছে সামাজিক যোগাযোগ সাইট ফেইসবুক ও টুইটারের প্রতিষ্ঠাতা, নাসার বিজ্ঞানী ও সেলিব্রিটিসহ লাখো মানুষ।

১৪ বছর বয়সী কিশোর শখ করে একটি ঘড়ি বানিয়ে তার প্রিয় শিক্ষককে দেখিয়েছিলো। তবে তার উদ্ভাবিত ঘড়িটি বোমা ভেবে তাকে ক্লাসরুম থেকে ডেকে নিয়ে গ্রেফতার করে মার্কিন পুলিশ।

শুধু তাই নয় হ্যান্ডকাফ পরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় আহমেদ মোহাম্মদকে। তার আঙ্গুলের ছাপও নেয়া হয়। অবশ্য পরে নির্দোষ প্রমাণ হওয়ার পর তাকে ছেড়ে দেয় মার্কিন পুলিশ।

55

 

এরপর মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারে এই কিশোরের উদ্ভাবিত ঘড়ির প্রশংসা করে তাকে হোয়াইট হাউজে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।
ওবামা ছাড়াও মার্কিন সমাজের পক্ষপাতদুষ্টতার নিন্দা জানিয়েছেন সম্ভাব্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন।

শীর্ষ সোশ্যাল মিডিয়া ফেইসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ স্ট্যাটাস তার পেইজে লিখেছেন, উদ্ভাবনের পুরস্কার হাতকড়া নয়, হাততালি হওয়া উচিৎ। পাশাপশি আহমেদকে ফেইসবুক কার্যালয় পরিদর্শনের আমন্ত্রণও জানান জাকারবার্গ।

আরেক সোশ্যাল সাইট টুইটারের প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডোরসি তার টুইট করে এই কিশোরকে তার প্রতিষ্ঠানে ইন্টার্নশিপের প্রস্তাব দিয়েছেন।

মার্কিন মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র নাসার একাধিক বিজ্ঞানী তাদের টুইটারে কিশোরটির উদ্ধাবনী ক্ষমতার প্রশংস করেছেন। সেই সঙ্গে তাকে নাসা পরিদর্শনের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।

মার্কিন সেলিব্রিটি ছাড়াও বিশ্বজুড়ে আহমেদের পাশে দাঁড়িয়েছেন টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র তারকারা।

সবার সমর্থন পেয়ে খুশি হলেও অবাক হয়েছেন আহমেদ মোহাম্মদ। এক টুইটার বার্তায় তিনি লিখেছেন মুসলিম কিশোরের জন্য কারো ভাবনার অবকাশ হতে পারে- তা তার ভাবনাতে আসেনি।

পাশাপাশি টুইটার বার্তায় তার শিক্ষকদের প্রতিক্রিয়ায় হতাশা প্রকাশ করে স্কুল পরিবর্তনের কথা জানিয়েছে আহমেদ।

সোশ্যাল মিডিয়া অবলম্বনে সৌমিক আহমেদ

*

*

আরও পড়ুন