ভারতের ইউটার্ন : নিষেধাজ্ঞা উঠলো ৭০০ পর্নোসাইটের

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সমালোচনার মুখে ৭০০টি পর্নোসাইটের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে ভারত সরকার। তবে শিশু পর্নোগ্রাফি নির্ভর সাইটগুলো ওপর এখনো নিষেধাজ্ঞা বহাল আছে।

শিশুরা যাতে সহজে পর্নোসাইটে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য সম্প্রতি ৮৫৭ টি সাইট ব্লক করার নির্দেশ দেয় ভারত সরকার।তবে ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্কস (ভিপিএনএস) বা প্রক্সি সার্ভার ব্যবহার করে এসব সাইটে প্রবেশের সুবিধা রাখা হয়।

শিশু পর্নোগ্রাফির সাইট বন্ধ করা যাচ্ছে না বলে চলতি বছরের জুলাই মাসে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট অসন্তুষ্টি প্রকাশ করে। এরপর টেলিকম কোম্পানি ও ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারদের পর্নোসাইট ব্লক করার নির্দেশ দেয়া হয়।

India blocks access to 857 porn sites

পর্নোসাইট ব্লক করার সিদ্ধান্তকে অনেকে ব্যক্তিস্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ হিসেবে নেন। তারা এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে জোর সমালোচনা শুরু করেন। এর মধ্যে আছেন বেস্টসেলার লেখক চেতন ভগত, বলিউডের চিত্রনির্মাতা রামগোপাল ভার্মাসহ আরও অনেক সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব।

চেতন ভগত টুইট করে সরকারকে পরামর্শ দিয়েছেন, পর্নো নিষিদ্ধ করবেন না। পারলে ধর্ষণ নিষিদ্ধ করুন, জবরদস্তি নিষিদ্ধ করুন। যৌনতা নিষিদ্ধ করাটা কোনও সমাধান নয়।

রামগোপাল ভার্মাও টুইট করেছেন, ইচ্ছুক প্রাপ্তবয়স্কদের একটা নির্দোষ আনন্দ থেকে বঞ্চিত করা আর তালেবান বা আইএসসের মানুষের স্বাধীনতা হরণ করা একই।

কংগ্রেসের নেতা মিলিন্দ দেওরা টুইট করেছেন, পর্নো ভালবাসি কিনা সেটা এখানে প্রশ্ন নয়। সরকার এখানে ব্যক্তিস্বাধীনতা ছিনতাই করছে এটাই গুরুত্বপূর্ণ। এরপর কি তাহলে ফোন আর টিভি নিষিদ্ধ করা হবে?

প্রাপ্ত বয়স্কদের সাইট পর্নহাবের প্রকাশিত এক সমীক্ষা মতে, ২০১৪ সালে সারা পৃথিবীর মধ্যে ইন্টারনেটে পর্নো ট্র্যাফিকের উৎস হিসেবে চতুর্থ স্থানে রয়েছে ভারত।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে আহমেদ মনসুর

*

*

আরও পড়ুন