৩০০ অ্যাপে হাতের মুঠোয় সরকারি সেবা

Evaly in News page (Banner-2)

ইমরান হোসেন মিলন, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে সরকারি সেবা ও নীতি সম্পর্কে জানানো এবং তাদের অধিকারের ব্যাপারে সচেতন করতে দেশে উন্মুক্ত করা হয়েছে ৫০০ মোবাইল অ্যাপ। এর মধ্যে ৩০০ অ্যাপে মিলবে সরকারি সেবা।

এই অ্যাপগুলোর বিশেষত্ব হলো এগুলোর সাহায্যে বাংলা ভাষায় বিভিন্ন সেবা পাওয়া যাবে। এতে স্বল্প শিক্ষিত মানুষও তাদের ব্যবহৃত স্মার্টফোনে সহজেই অ্যাপগুলো ব্যবহার করতে পারেন।

বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় রোববার অ্যাপগুলো উন্মুক্ত করেছে।

apps

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির দেওয়া বক্তব্যে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে পরিণত করতে হলে প্রযুক্তি ব্যবহারের কোনো বিকল্প নেই। সরকার দেশে ২৫ হাজার সরকারি ওয়েবসাইট তৈরি করেছে। এবার সেগুলোর সেবা এই অ্যাপগুলোর সাহায্যে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আরও সহজে জনগণের কাছে পৌঁছে দেওয়া যাবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর শিকদার টেকশহরডটকমকে বলেন, সরকারি সেবা নির্বিঘ্নে পেতে এসব অ্যাপ কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা যায়। কেননা এর মাধ্যমে জনগণ খুব দ্রুততার সাথে সেবাগুলো গ্রহণ করতে পারবে। ফলে সরকারি কর্মকর্তাদেরও দায়িত্বশীলতা বেড়ে যাবে।

অ্যাপগুলোর মধ্যে আছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) অ্যাপ। এর সাহায্যে ব্যবহারকারী জানতে পারবেন তাদের অনুমোদিত সব পণ্যগুলো সম্পর্কে। এমনকি, এই অ্যাপ ব্যবহার করে ব্যবহারকারী ওই পণ্যের লাইসেন্স সম্পর্কেও জানতে পারবেন।

apps

গ্রাহকদের বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের তথ্য, বিলের পরিমাণ, পরিশোধের সময়সীমা এবং সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে জানাবে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ডিপিডিসি) ও ডেসকো বিল চেক অ্যাপ।

ওয়াসা বিল সম্পর্কিত তথ্য সহজেই পাওয়া যাবে ওয়াসা বিল চেক অ্যাপের সাহায্যে।

কর দেওয়ার সব তথ্য এনবিআর ই-টিন চেক অ্যাপের মাধ্যমে জানতে পারবেন ব্যবহারকারীরা।

ট্রেনের সময়সূচী, স্টেশনের খোঁজ, শ্রেণী অনুযায়ী টিকিটের মূল্য, জরুরী যোগাযোগ নাম্বার পাওয়া যাবে বিডি ট্রেন শিডিউল অ্যাপের সাহায্যে।

apps

দেশের বিখ্যাত চিত্রশিল্পীদের জীবন ও তাদের কর্ম সম্পর্কে ধারণা ধারণা দেবে বাংলাদেশ চিত্রশিল্পী অ্যাপে। এছাড়াও এই অ্যাপের সাহায্যে বিখ্যাত সব শিল্পকর্মের ছবিসহ ফটো-গ্যালারি পাওয়া যাবে।

পাসপোর্ট অফিসের নামের তালিকা, অবস্থান, প্রয়োজনীয় তথ্যের বিবরণ পাওয়া যাবে পাসপোর্ট অফিস অব বাংলাদেশ অ্যাপে।

লেটার অব ৭১ অ্যাপের সাহায্যে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময়ের লেখা চিঠির সংগ্রহ পড়া যাবে।

শুধু এগুলোই নয়, বঙ্গবন্ধুর সম্পর্কে তথ্য, দেশের লোকসাহিত্য, রাষ্ট্রপতির কার্যালয় বঙ্গভবন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বঙ্গবন্ধু নভোথিয়েটার, বাংলাদেশের পর্যটন এলাকা, সরকারি বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, ব্যাংক-বীমা প্রতিষ্ঠান, দেশের সবকটি সিটি কর্পোরেশন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, খেলাধুলা, স্বাস্থ্যসেবাসহ আরও অনেক বিষয়ে তথ্য ও সেবা এসব অ্যাপে পাওয়া যাবে।

এর আগে সরকারের আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে দেশে ১৮ মাস ধরে চলে এই অ্যাপ তৈরির কার্যক্রম। ‘জাতীয় পর্যায়ে মোবাইল অ্যাপস প্রশিক্ষক ও সৃজনশীল অ্যাপস উন্নয়ন’ প্রকল্পের আওতায় এই কর্মসূচীর বাস্তবায়ন করে দেশী অ্যাপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এথিকস অ্যাডভান্সড টেকনোলজি লিমিটেড (ইএটিএল)।

প্রকল্পটির অধীনে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় সাড়ে তিন হাজার শিক্ষার্থীকে এর আওতায় এনে তিন মাসের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। পরে শিক্ষার্থীরা কয়েকটি গ্রুপে ভাগ হয়ে এই অ্যাপগুলো তৈরি করেন।

এসব অ্যাপ যে কেউ বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারবেন। আইসিটি বিভাগের ওয়েব সাইট অথবা গুগল প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন।

*

*

আরও পড়ুন