নতুন সিএইচআরও গ্রামীণফোনে

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নতুন প্রধান মানবসম্পদ কর্মকর্তা (সিএইচআরও) হিসেবে মোঃ শরিফুল ইসলামকে নিয়োগ দিয়েছে গ্রামীণফোন বোর্ড। তিনি আগস্ট মাসের ১ তারিখ থেকে বিদায়ী সিএইচআরও কাজী মোহাম্মদ শাহেদের স্থলাভিষিক্ত হবেন।

বর্তমানে টেলিনরের সদরদপ্তর নরওয়েতে এইচআর গভর্নেন্সে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে কর্মরত শরিফুল ইসলাম ১ সেপ্টেম্বর থেকে গ্রামীণফোনে যোগ দেবেন। তবে বিদায়ী সিএইচআরও ১ আগস্ট থেকে টেলিনরের ভারতীয় মোবাইল অপারেটর ইউনিনরে সিএইচআরও হিসেবে যোগ দেবেন।

বাংলাদেশের নাগরিক মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম ১১ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে। এর মধ্যে ৯ বছর তিনি গ্রামীণফোনের মানবসম্পদ বিভাগে কাজ করেছেন। এছাড়াও তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রভাষক হিসেবে কাজ করেছেন এবং তার একটি স্থানীয় এবং একটি আন্তর্জাতিক প্রকাশনা আছে। তিনি খাদ্য ও পানীয়, প্রশাসন এবং বাজার গবেষণা খাতেও কাজ করেছেন।

Shariful Islam

গ্রামীণফোনে তিনি বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক ও নেতৃত্ব উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন। নিয়োগ, এমপ্লয়ার ব্র্যান্ডিং, প্রতিভা ব্যবস্থাপনা, নেতৃত্ব উন্নয়ন, প্রাতিষ্ঠানিক সংস্কৃতি এবং মানবসম্পদ কৌশল ইত্যাদি বিষয়ে কাজ করেছেন তিনি। তিনি গ্রামীণফোনের নিয়োগ ও প্রতিভা অন্বেষণ প্রক্রিয়া ঢেলে সাজান। সেন্টার অফ এক্সপার্টিজের প্রধান হিসেবে তিনি টিডিপি, ওয়ার্কডে, শেয়ার প্রোগ্রাম, পিপলস কাউন্সিল ইত্যাদি চালু করেন এবং দীর্ঘমেয়াদি মানবসম্পদ পরিকল্পনা নির্ধারণে সহায়তা করেন।

সেপ্টেম্বর ২০১৩ থেকে তিনি ভিপি গ্রুপ পিপল ডেভেলপমেন্ট হিসেবে অভ্যন্তরীণ কৌশলগত ও কোলাবরেশন প্ল্যাটফর্ম উন্নয়নে পরামর্শক ছিলেন এবং লিডারশীপ ডেভেলপমেন্ট ফ্রেমওয়ার্ক, মেনটরশিপ, গ্রুপ ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি প্রোগ্রাম, ডাইভারসিটি ও ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট নিয়ে কাজ করেছেন।

ম্যানেজমেন্টে পরিবর্তন সম্পর্কে গ্রামীণফোনের সিইও রাজীব শেঠি বলেন, গত তিন বছর কাজী মোহাম্মদ শাহেদ গ্রামীণফোনের পিপল অ্যান্ড অর্গানাইজেশন বিভাগে খুবই মূল্যবান অবদান রেখেছেন। শক্তিশালী নেতৃত্ব সৃষ্টি এবং প্রতিষ্ঠানে অভ্যন্তরীণ যোগাযোগের উন্নয়নে অনেক কাজ করেছেন। আশাকরি, ইউনিনরেও বড় পরিবর্তন আনার ক্ষেত্রে দৃঢ় ভূমিকা রাখবেন।

কাজী শাহেদ ২০১২ সালের নভেম্বরে গ্রামীণফোনে প্রধান মানবসম্পদ কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দেন।

নতুন সিএইচআরও শরিফুল ইসলাম নতুন পদে কাজ করার বিষয়ে উৎসাহ প্রকাশ করে বলেন, গ্রামীণফোনের (টেলিনর) ভিশন ও ব্যবসায়িক লক্ষ্যকে সমর্থন দেয়ার জন্য এর মানবসম্পদ বিভাগের কার্যক্রম, প্রাতিষ্ঠানিক সংস্কৃতি, দক্ষতা, কর্মী উন্নয়ন ইত্যাদি বিষয়ে চলমান কার্যক্রম অব্যাহত রাখাই হবে আমার লক্ষ্য।

মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অফ টেক্সাস থেকে আন্তর্জাতিক ব্যবস্থাপনায় এমবিএ এবং উইচিটা স্টেট ইউনিভার্সিটি ক্যানসাস থেকে অর্থনীতিতে বিবিএ ডিগ্রী অর্জন করেন।

ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত এবং দুই সন্তানের জনক।

আহমেদ মনসুর

*

*

আরও পড়ুন