Techno Header Top and Before feature image

তাক লাগানো দেশীয় উদ্ভাবনে ইনোভেশন জোন

Evaly in News page (Banner-2)

ইমরান হোসেন মিলন, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : খুব আগ্রহ নিয়ে দর্শনার্থীদের নিজের উদ্ভাবনের কথা বলছিলেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী প্রীতম চৌধুরী। প্রতিবন্ধীদের জন্য তিনি তৈরি করেছেন এমন এক হুইল চেয়ার, যা ব্যক্তির চিন্তাশক্তিকে বুঝে সে অনুযায়ী কাজ করে। মূলত কম্পিউটার প্রোগ্রামের সাহায্যে চলবে ওই হুইল চেয়ার।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের (বিআইসিসি) দোতলায় উঠে হাতের বামে দিকে গেলে এমন একটি চেয়ার চোখে পড়বে। যেখানে সবসময়ই দর্শনার্থীদের জটলা লেগে আছে।

বাংলাদেশে আইসিটি এক্সপো ২০১৫ উপলক্ষে এমন সব উদ্ভাবনের দেখা মিলবে মেলার ইনোভেশন জোনে।

ICT EXPO INOVATION ZONE

এখানে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তাদের উদ্ভাবনগুলো দর্শনার্থীদের সামনে তুলে ধরছেন।

ইনোভেশন জোনের স্টল ঘুরে দেখো যায়, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক ক্লাবের বেশ ক’জন সদস্য তাদের উদ্ভাবন প্রদর্শন করছেন।

ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও ওই ক্লাবের সদস্য ইফরান কবির দেখান তাদের উদ্ভাবন। তারা তৈরি করেছেন এমন একটি রোবট গাড়ি, যা বাদুড়ের মতো প্রতিধ্বনির সাহায্যে চলতে সক্ষম এবং সামনে কোনো বাধা আছে কিনা তা দেখে নিতে পারে এবং বাধা থাকলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অন্য পথে এগোতে পারে।

এছাড়াও ইনোভেশন জোনে ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা তাদের প্রজেক্ট প্রদর্শন করছেন। ঘন কুয়াশায় লঞ্চ চলাচলে সক্ষম এমন একটি পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছেন তারা।

একইভাবে আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশে (এআইইউবি), ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (ডিআইইউ) শিক্ষার্থীরা চিকিৎসা ক্ষেত্রের উন্নতির জন্য তাদের তৈরি করা প্রজেক্ট ও আবিষ্কারগুলো প্রদর্শন করেন।

আইসিটি এক্সপো মেলার ইনোভেশন জোনে এসব প্রদর্শনী দেখতে এসেছিলেন একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাসনিম সামিহা তারিন। তিনি বলেন, আমাদের দেশে এখন এতো উন্নত সব উদ্ভাবন হচ্ছে এটা না দেখলে বুঝতে পারতাম না। এরা আরও ভালো কিছু করবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

আরেক দর্শনার্থী স্কুল শিক্ষক ইবনে মিজান হাওলাদার বলেন, আমাদের উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে এসব উদ্ভাবনগুলো খুবই দরকার। প্রযুক্তির উন্নতির এই যুগে স্কুল পর্যায়ে এগুলো আবিষ্কারের জন্য সরকারের সহযোগিতার প্রয়োজন বলে জানান তিনি।

এই ইনোভেশন জোনে প্রদর্শনী চলবে মেলার তৃতীয় দিন পর্যন্ত।

*

*

আরও পড়ুন