লেনোভো সি২৬০ : দামেও মিষ্টি, কাজেও তাই

Evaly in News page (Banner-2)

শাহরিয়ার হৃদয়, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আগ্রহীরা তাদের বিশাল ডেক্সটপ পিসি সরিয়ে অনাসায়ে লেনোভো সি২৬০ টাচ বসাতে পারেন। এই ১৯ দশমিক ৫ ইঞ্চি স্ক্রিনে ডেস্কটপের সব কাজের পাশাপাশি স্মার্ট ডিভাইসের স্বাদও পাওয়া যাবে। টাচ স্ক্রিন হওয়াতে কিবোর্ড-মাউসেরও খুব একটা দরকার হবে না, যদিও দুটোই সাথে রয়েছে।

৪ জিবি ও ৮ জিবি র্যা মের লেনোভো সি২৬০ টাচ ও নন-টাচ ভার্সনে বাজারে পাওয়া যাবে।

ডিজাইন
ডিভাইসটির বডি পুরো পলিকার্বনেট মেটালের তৈরি। টেবিলে ঠিকভাবে বসানোর জন্য হ্যান্ডেল রয়েছে। এটি সুবিধামত ওপর-নিচে সরিয়ে পজিশন ঠিক করার ক্ষেত্রে সাহায্য করবে। ডিভাইসটি দিয়ে ডেস্কটপের সব কাজ করা যাবে বলে একটু ভারি এর ওজন। দু’পাশে মনিটরের মত অনেক বাটন আছে, যেগুলো দিয়ে স্ক্রিনের ব্রাইটনেস, কন্ট্রাস্ট ইত্যাদি নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

lenovo c260 (4)

 

 

ডিসপ্লে
১৯ দশমিক ৫ ইঞ্চির সাইজ একটা সাধারণ মনিটরের সমানই মনে হবে। ১৬০০*৯০০ রেজ্যুলেশন রয়েছে। শার্পনেস ভালো, ব্রাইটনেসও ভাল। এছাড়া টাচস্ক্রিন খুবই রেসপন্সিভ, অর্থাৎ দ্রুতগতিতে কাজ করবে স্মার্টফোনের মতোই।

সফটওয়্যার ও পারফর্মেন্স
উইন্ডোজ ৮.১ ব্যবহার করা হয়েছে এতে। টাচস্ক্রিনের জন্য অপটিমাইজড এই উইন্ডোজে তাই অন্য মজাও পাওয়া যাবে। যে কাজগুলো সবসময় মাউস দিয়ে করা হয়, ডেস্কটপ কাম ট্যাবে সেটা আঙুলের স্পর্শে করা যাবে। অবশ্য স্বাভাবিকভাবেই এতে অভ্যস্ত হতে সময় লাগবে।

কোয়াড-কোর ইন্টেল পেন্টিয়াম প্রসেসর ও ৪ জিবি র্যা ম রয়েছে এতে । ইন্টারনাল স্টোরেজ ১ টেরাবাইট পর্যন্ত পাওয়া যাচ্ছে। ইন্টেলের বিল্ট-ইন এইচডি গ্রাফিক্স ব্যবহার করা হয়েছে।

ইন্টারনেট ব্রাউজিং, এইচডি মুভি, কোনটাতেই ল্যাগ করবে না। মাইক্রোসফট অফিস, এক্সেল, ইত্যাদি সফটওয়্যারে কোন সমস্যা হবে না। শুধু অ্যাডবি ফটোশপ, ইলাস্ট্রেটরের মত সফটওয়্যার আটকে যেতে পারে।

lenovo c260 (2)

কানেক্টিভিটি
দুইটা ইউএসবি ২.০ ও একটা ইউএসবি ৩.০, ওয়াইফাই এবং তারসহ কিবোর্ড ও মাউস রয়েছে। এইচডিএমআই না থাকায় অসুবিধে, অন্য পিসির সাথে কানেক্ট করা যাবে না।

দাম
বাংলাদেশী টাকায় ডিভাইসটির দাম পড়বে ৪০ হাজার টাকা।

এক নজরে ভালো
– ভালো পারফর্মেন্স
– কম দাম
এক নজরে খারাপ
– এইচডিএমআই পোর্ট নেই

*

*

আরও পড়ুন