কলঙ্কও আছে অ্যাপল স্মার্টওয়াচের

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অ্যাপল স্মার্টওয়াচ দেখতে সুন্দর, ফিটফাট ও মার্জিত। কিন্তু এর আছে কিছু ত্রুটি। এছাড়া এর দামটাও আকাশ ছোঁয়া। এই দুই কারণে ডিভাইসটি তার আবেদন হারাবে। এমনটাই মনে করছেন প্রযুক্তি বিশ্লেষকরা।

২৪ এপ্রিল বাজারে আসছে অ্যাপলের বহুল প্রতীক্ষিত এই ঘড়িটি। এটি প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী টিম কুকের অধীনে আনা একমাত্র নতুন ধরনের ডিভাইস।

ঘড়িটি নিয়ে ওয়াল স্টিট জার্নালের প্রযুক্তি বিষয়ক সাংবাদিক গিওফ্রি ফওলার জানিয়েছেন, ডিভাইসটি হয়ত অনেক উন্নত, কিন্তু এর জন্য আমি এক হাজার ডলার খরচ করতে রাজি নই। দীর্ঘ সময় পর এর যে উন্নয়ন হয়েছে তা নিয়েও আমার অসন্তুষ্টি আছে।

Applewatch

এদিকে বলা হচ্ছে অ্যাপল ওয়াচের সর্বনিম্ন দাম হবে ৩৪৯ ডলার। ম্যাশএবলের খরবে এটি স্পোর্টস মডেলের দাম । অন্য মডেলের দাম হতে পারে আরও বেশি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দামটা একটু বেশিই অ্যাপল ওয়াচের।

অ্যাপলের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, আটারো ঘণ্টা চলার মতো ব্যাটারি লাইফ ও মসৃণ ডিজাইনের জন্য স্মার্টওয়াচের বিপুল প্রশংসা করেছেন প্রযুক্তি বিশ্লেষকরা।

কিন্তু আসল সত্য হলো ডিভাইসটির অন্যতম এক ত্রুটি নিয়ে এর ব্যাপক নিন্দা-মন্দ আছে বিশ্লেষকদের মধ্যে। ত্রুটিটা হলো নিকট দুরুত্বে কোনো আইফোন না থাকলে ঘড়িটির বেশিরভাগ অ্যাপ্লিকেশনই কাজ করে না।

প্রযুক্তি বিশ্লেষকদের বরাত দিয়ে ওয়াল স্টিট জার্নালের খবরে বলা হয়েছে, আইফোন ব্লুটুথ সংযোগ না পেলে ওয়াচটি দিয়ে ইমেইল দেখা, গান শোনা, ফোন করা বা স্বাস্থ্য সম্পর্কিত অ্যাপ ব্যবহার করা যায় না।

নিউ ইয়র্ক টাইমস অবলম্বনে আহমেদ মনসুর

আরও পড়ুন:

*

*

আরও পড়ুন