vivo Y16 Project

ডেল ইন্সপিরন ৭৫৩৭ : স্বাচ্ছ্যন্দে গ্রাফিক্স কাজ ও গেইমিং

Dell Inspiration 7537-techshohor

আদনান নিলয়, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দামি ল্যাপটপ কিনতে চান অনেকেই। তাদের কাছে ডেল ইন্সপিরন ১৫ ৭৫৩৭ বেশ জনপ্রিয়। প্রিমিয়াম ল্যাপটপের বাজারে হাইএন্ডের এ মডেল অনেকের পছন্দের।

দেখতে অনেকটা ম্যাকবুকের মত, তাই ম্যাকবুকের সস্তা সংস্করণও বলা যেতে পারে পিসিটিকে।

ডিজাইন
এর সাদা অ্যালুমিনিয়ামের বডি দেখতে খুবই চমৎকার। সিলভার রঙের টাচপ্যাড ও কিবোর্ড ল্যাপটপের সৌন্দর্য আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। পুরুত্ব বেশ কম, ০.৯ ইঞ্চির, কিন্তু ওজন বেশ ভারি। প্রায় আড়াই কেজির এ ল্যাপটপ বয়ে নিয়ে বেড়াতে বেশ সমস্যা হতে পারে।

Techshohor Youtube

Dell Inspiration 7537-techshohor

ডিসপ্লে
১৫.৬ ইঞ্চির ডিসপ্লেতে সদ্য আবিষ্কৃত ডেলের নিজস্ব ডব্লিউ এলিডি ট্রুলাইফ টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে। এ ডিসপ্লে বাজারের অন্যান্য ডিসপ্লে থেকে শার্প কন্ট্রাস্ট ও চকচকে ভাবের জন্য বিশেষ প্রশংসা পাওয়া।

মূলত, ভিডিও ও গেমিং-কেই প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে এই ১৩৬৬*৭৬৮ রেস্যুলুশনের ডিসপ্লেতে। তবে এ স্ক্রিনের একটা নেতিবাচক দিক হচ্ছে, ট্রুলাইফ টেকনোলজি স্ক্রিনের ব্রাইটনেস অনেকখানি কমিয়ে দেয়। রাতে সমস্যা না হলেও দিনের আলোয় ছোট ছোট লেখা পড়তে কষ্ট হতে পারে।

সাউন্ড
ল্যাপটপটির এক শক্তিশালী দিক এর সাউন্ড কোয়ালিটি। বিশ্ব বিখ্যাত হেডফোন কোম্পানি স্কালক্যান্ডির ডিজাইন করা ডুয়াল স্পিকার দিয়ে অত্যন্ত ভালো অডিও বের হবে।

কোয়ালিটি বোঝার জন্য যে কোন একটি গান চালালেই যথেষ্ট। মুভি অথবা গেমিংয়ে হেডফোনের অভাব সহজেই পূরণ করে দিতে পারে এ স্পিকার।

laptop-dell-inspiron-15-7537-techshohor

কনফিগারেশন ও পারফরম্যান্স
ইন্টেল ৪র্থ জেনারেশন কোর আই ৫ প্রসেসর ও ৬ জিবি র‍্যাম ব্যবহার করা হয়েছে এতে। যথেষ্ট শক্তিশালী কনফিগারেশন, পারফরম্যান্সাও তাই হবে দেখার মতো।

বাজারের সবচেয়ে গতিশীল নয়, কিন্তু দৈনন্দিন কাজে কোন বাধা আসার সম্ভাবনা নেই। ওয়েব ব্রাউজিং, ফটোশপের কাজও ভালোভাবে চলবে। কিন্তু পারফরম্যান্সের হাইলাইট অন্য জায়গায়।

ল্যাপটপটিতে ২ জিবি এনভিডিয়া জিফোর্স জিটি ৭৫০ গ্রাফিক্স কার্ড ব্যবহার করা হয়েছে। এ কারণে গ্রাফিক্সের কাজ ও গেমিং তাই এতে বেশ আনন্দময় হবে।

ব্যাটারি
ব্যাটার লাইফ একেবারে খারাপ না। একটানা ওয়েব ব্রাউজিঙেও সর্বনিম্ন ৬ ঘণ্টা ল্যাপটপটি জেগে থাকতে সক্ষম।

এটির মূল্য ৬৯ হাজার টাকা।

এক নজরে ভালো
– চমৎকার ডিসপ্লে
– ভালো সাউন্ড
– অসাধারণ গ্রাফিক্স

এক নজরে খারাপ
– ওজন বেশি
– ভারি ভারি প্রোগ্রাম ল্যাগ করতে পারে

*

*

আরও পড়ুন

vivo Y16 Project