Techno Header Top and Before feature image

ভারতে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগীতায় দ্বিতীয় জাবির অ্যাসাসিনস

acm-icpc-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোগ্রামিং দল অ্যাসাসিনস ভারতের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর প্রতিযোগীদের পেছনে ফেলে চমক দেখিয়েছে। বিশ্বের মর্যাদাপূর্ণ প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা এসিএম-আইসিপিসির অমৃতাপুরি সাইটে প্রথম রানার-আপ হয়েছে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের দলটি।

এ বিজয়ের ফলে মরক্কোতে অনুষ্ঠিতব্য ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়ানশিপে অংশ নেওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে জেইউ আন্ডারস্কোর অ্যাসাসিনস (JU_ASSASINS) নামের দলটির। এ দলটি চলতি মাসের শুরুতে ঢাকা সাইটে সাড়া জাগালেও শেষ পযর্ন্ত চতুর্থ হয়েছিল।

ঢাকায় না পারলেও অ্যাসাসিনস সদস্যরা ভারতের অমৃতা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিযোগিতায় অনেক বেশি উজ্জলতা ছড়িয়েছে।

acm-icpc-techshohor

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের এ দলের তিন সদস্যরা হলেন সিএসই বিভাগের অনিন্দ মজুমদার ও সুমন ভদ্র এবং আইআইটির নাফিস সাদিক। দলটির কোচ সিএসই বিভাগের চেয়্যারম্যান ড. শরিফ উদ্দিন।

অমৃতাপুরি সাইটে এবার ভারতের ১৫০ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৫০ দলের ৭৫০ জন প্রতিযোগী অংশ নেন। অংশগ্রহণকারী দলগুলোর বেশিরভাগই ছিল দেশটির প্রথম সারির বিশ্ববিদ্যালয়ের।

এর মধ্যে আছে বিরালা ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি, আইআইটি। বাঘা বাঘা সব প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে অ্যাসোনিস প্রথম রানার-আপ হয়েছে। চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আইআইটির রোরকি।

দলটি সপ্তাহ দুয়েক আগে এসিএম-আইসিপিসির ঢাকা সাইটে চতুর্থ স্থান দখল করে আলোচনায় এসেছিল অ্যাসাসিনস। এ সাইটে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের দল।

ঢাকায় হেরে যাওয়ায় জাবির দলটি ২০১৫ সালের ১৬ মে মরক্কোর মোহাম্মদ দ্যা ফিফথ বিশ্ববিদ্যালয়, আল আকায়ানা বিশ্ববিদ্যালয় ও মন্দিপলিস বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিতব্য এসিএম-আইসিপির ওয়ার্ল্ড ফাইনালে অংশগ্রহণের সুযোগ পায়নি।

সেই আক্ষেপ ঘোচাতেই অমুতাপুরি সাইট থেকে আবার অংশ নেয় অ্যাসাসিনস। এ সাইটে ভালো করে প্রথম রানার-আপ হওয়ায় সেখান থেকে ওয়ার্ল্ড ফাইনালে অংশগ্রহণের জোর সম্ভাবনা রয়েছে।

– সাইমুম সাদ

আরও পড়ুন:

*

*

আরও পড়ুন