কাজ দিয়ে সিলিকন ভ্যালি পৌঁছাতে চায় ডিইউআইটিএস!

Evaly in News page (Banner-2)

সাইমুম সাদ, কনটেন্ট কাউন্সিলর : কথা নয়, কাজ দিয়ে সিলিকন ভ্যালি পর্যন্ত পৌঁছতে চান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইটি সোসাইটির (ডিইউআইটিএস) তরুণ সংগঠকরা। নতুন কমিটি গঠনের পর থেকে সেই স্বপ্ন পূরণ অভিযাত্রায় বিভোর হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন তারা। এই স্বপ্নবাজদের গল্প শুনতে টিএসএসির ক্লাব অফিসে হাজির হয় টেকশহরডটকম। আড্ডার ছলে কথায় কথায় তারা জানান তাদের চড়াই-উৎড়াইয়ের গল্প।

টেকশহরডটকম দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে তথ্যপ্রযুক্তি নিয়ে কাজ করে এমন সংগঠনের কর্মকাণ্ড তুলে ধরতে ধারাবাহিকভাবে ফিচার প্রকাশ করবে। এরই অংশ হিসাবে প্রথম প্রতিবেদনে থাকছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইটি সোসাাইটি ডিইউআইটিসর পথচলার কথা।

এবার ক্লাবটির নতুন সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ঢাবির ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজের বায়েজিদ খান। ২০১২ সালের দিকে দ্বিতীয় বর্ষে থাকাকালে সাধারণ সদস্য হিসেবে আইটি সোসাইটিতে যোগ দেন তিনি। এরপর সবার সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করছেন ক্লাবের প্রতিটি ইভেন্টে।

duits

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্বন্ধে জানতে চাইলে বায়েজিত বলেন, প্রতিষ্ঠাতা কমিটি খুব অল্প সময়ের মধ্যেই অনেক কাজ করেছে। এখন আমাদের কাজ হলো তারই গতিটাকে অব্যাহত রাখা। সেই চেষ্টাই করে যাচ্ছি আমরা। আশা আছে, কাজের এই গতি অব্যাহত রেখে একদিন সিলিকন ভ্যালি পর্যন্ত পৌঁছানোর।

ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাফরুহ-উর রহমান ফারুকী বলেন, অনেক সময় বিভিন্ন প্রোগ্রামের জন্য রাতের পর রাত অফিসেই কাটাতে হয়। এখানে পদ-পদবির চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ। কাজের বেলায় সবাই মিলে পরামর্শ করেই তবেই সিদ্ধান্ত ঠিক করি।

ক্লাবটির অনুষ্ঠান বিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন সোহেলী আফরোজ রূপা। তিনিও ২০১২ সালে সাধারণ সদস্য হয়েই যোগদান করেন। আড্ডায় যোগ দিয়ে তিনি জানালেন, সাধারণ সদস্য হিসেবেই একদিন কাজ শুরু করেছিলাম, তখন তা না করলে কাজের অভিজ্ঞতা বলতেই কিছু থাকতো না।

তথ্যপ্রযুক্তি ইন্সটিটিউটের শিক্ষার্থী আরিফ ইবনে আলী এবার ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি জানালেন, ডিইউআইটিএসের প্রত্যেকেই তথ্যপ্রযুক্তি আন্দোলনের কর্মী বলা যায়।

ক্লাবটির প্রচার সম্পাদক মুখলিসুর রহমান মাহিন জানালেন, প্রচার সম্পাদক হিসেবে যোগ দেয়ার পর থেকে বিভিন্ন ফেইসবুক পেজে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। প্রেস রিলিজ তৈরি করে নিয়মিত ইভেন্টের সংবাদ মিডিয়াতে পাঠাচ্ছি।

২০১১ সালে প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আবদুল্লাহ আল ইমরানের হাত ধরে ক্লাবটি যাত্রা শুরু করে। তবে এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয় ২০১২ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি।

প্রতিষ্ঠার পর থেকেই সংগঠনটি শিক্ষার্থীদের তথ্যপ্রযুক্তি জ্ঞান বৃদ্ধিতে এবং তথ্য-প্রযুক্তিবান্ধব ক্যাম্পাস গড়ে তুলতে কর্মশালা, বিষয়ভিত্তিক ই-আড্ডা, সেমিনার, গোলটেবিল বৈঠক, জাতীয় প্রযুক্তি উৎসব, আন্ত:হল কুইজ ও অনলাইন আইডিয়া প্রতিযোগসহ বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে।

২০১২ সালের জুলাই মাসে ক্লাবটি ১ম জাতীয় ক্যাম্পাস প্রযুক্তি উৎসবের আয়োজন করে। চলতি বছর এই উৎসবে অংশ নেন দেশের প্রায় ৮০ টি বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ ও স্কুলের ১৫ শতাধিক শিক্ষার্থী।

এবার ক্লাবটির সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন আনিসুল ইসলাম, সহ-সভাপতি জান্নাতুল মাওয়া তাহরিমা,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কে এম ইমরান ও রাফিয়া সুলতানা, অনুষ্ঠান বিষয়ক সম্পাদক আদনান ফেরদৌস ও সোহেলী আফরোজ রূপা এবং দপ্তর সম্পাদক আকরাম চৌধুরী।

*

*

আরও পড়ুন