শ্রমবিধি তৈরিতে প্রয়োজনে অ্যামটব-জিপিইইউ বৈঠক

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : শ্রমবিধিমালা প্রণয়নে টেলিকম অপারেটরদের সংগঠন অ্যামটব ও গ্রামীণফোন অ্যামপ্লয়িজ ইউনিয়ন (জিপিইইউ) উভয়ের প্রস্তাবই পর্যালোচনা করা হবে। প্রয়োজনে অ্যামটব ও জিপিইইউ নিয়ে একসাথে আলোচনা করা হবে।

সোমবার মতিঝিলের শ্রম পরিচালকের কার্যালয়ে জিপিইইউ এর সাথে এক সভায় এসব কথা বলেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু।

জিপিইইউর সাধারণ সম্পাদক মিয়া মাসুদ টেকশহরডটকমকে জানান, প্রতিমন্ত্রী আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন যে শ্রমবিধিমালা প্রণয়নে সকল স্টেক হোল্ডারদের সাথে আলোচনা করে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

10277785_10154915365310235_3687279071807560299_n

প্রয়োজনে প্রতিমন্ত্রী অ্যামটব এবং জিপিইইউকে নিয়ে একসাথে আলোচনায় বসবেন বলে জানান মাসুদ।

মাসুদ বলেন, শ্রমবিধিমালা প্রণয়নে অ্যামটব ১৫ দফা প্রস্তাব দিয়েছে। সেখানে শ্রমিকের সংজ্ঞা বদলে দেয়ার ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। এতে শ্রমিককে তার মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হবে।

জিপিইইউ এর সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিধিমালা প্রণয়নে শ্রমিকের সংজ্ঞা এবং ধারা-উপধারা পরিবর্তনে যে প্রস্তাব অ্যামটব দিয়েছে তাতে শ্রমিকের অস্থিত্ব বিপন্ন হবে বলে আমরা প্রতিন্ত্রীকে জানিয়েছি।

সভায় জিপিইইউ এর সভাপতি ফজলুল হক, অ্যাডভাইজার মঈনুল কাদের, কার্যনির্বাহী সদস্য আহমেদ মনজুরুদ্দৌলা, সভাপতি ফজলুল হক, সংগঠনের কমিউনেকশন সেক্রেটারি আদিবা জেরিন উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, শ্রমবিধিমালা প্রণয়নে টেলিকম অপারেটরদের সংগটন অ্যামটবের প্রস্তাব গ্রহণ না করতে সরকারের প্রতি দাবি জানিয়ে আসছে জিপিইইউ। সম্প্রতি প্রেসক্লাব চত্ত্বরে শ্রমিকবান্ধব শ্রমবিধিমালা প্রণয়নের দাবিতে এক মানববন্ধন কর্মসূচীও পালন করেছে সংগঠনটি।

আল আমীন দেওয়ান

আরও পড়ুন:

*

*

আরও পড়ুন