আট মিনিটের মধ্যে ৭ মিনিটই যায় অ্যাপে!

Handwriting apps
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ২০০৮ সালে অ্যাপ স্টোর উন্মোচনের সময় অ্যাপল ঘোষণা করেছিল, এক সময় সবকিছুর জন্য অ্যাপ থাকবে। সেই পূর্বাভাস এখন বাস্তবতায় পরিণত হয়েছে।

আবহাওয়ার আপডেট থেকে শুরু করে রেস্টুরেন্ট খোঁজা, সঙ্গী খোঁজা, এমনকি বাসার হারানো জিনিস খোঁজা—সবকিছুর জন্য এখন অ্যাপ। অ্যাপ নেই, এমন বিষয়বস্তুই বরং দুর্লভ।

কমস্কোর নামে একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, চলতি বছর মার্কিনীদের ব্যবহৃত মোট ডিজিটাল মিডিয়ার অর্ধেকের বেশি ছিল অ্যাপ, যা ডেস্কটপ ও মোবাইল ব্রাউজার ব্যবহারকারীদের চেয়ে বেশি। প্রতি তিনটি ডাউনলোডের একটি থাকে অ্যাপ।

আরও পড়ুন: আইফোন ৬ এ নজর কাড়বে যেসব অ্যাপস

 

Handwriting apps

যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীরা বর্তমানে দিনের ২৪ শতাংশ অংশ ডিজিটাল মিডিয়ায় ব্যয় করেন। এই সময়ের ৫২ ভাগ জুড়ে আছে বিভিন্ন অ্যাপ। কমস্কোর এক কথায় জানিয়েছে, বর্তমানে মোবাইল ডিভাইসে প্রতি ৮ মিনিটের মধ্যে ৭ মিনিট ইউজাররা অ্যাপে ব্যয় করেন।

অ্যাপের এই জয়জয়কার কে সামনে রেখে কমস্কোর আরও কিছু পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে:

সবচেয়ে জনপ্রিয়
গবেষণা প্রতিষ্ঠানটির তালিকায় দেখা যায় ব্যবহারের দিক থেকে সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যাপ ফেইসবুক (১১.৫ কোটি)। এরপরে রয়েছে ইউটিউব (৮.৩ কোটি) ও গুগল প্লে (৭.২ কোটি)। তালিকার শীর্ষে থাকা অন্যগুলো হলো গুগল সার্চ (৭ কোটি), প্যান্ডোরা (৬.৯ কোটি), গুগল ম্যাপস (৬.৪ কোটি), জিমেইল (৬ কোটি), ইন্সটাগ্রাম (৪.৭ কোটি), অ্যাপল ম্যাপস (৪.২ কোটি) ও ইয়াহু স্টক উইজেট (৪.২ কোটি)।

সবচেয়ে লাভজনক
বেশি ডাউনলোড মানে বেশি টাকা, অ্যাপ মার্কেটের ক্ষেত্রে এই কথাটি ভুল। টপ ডাউনলোডের বেশি অ্যাপ সেবাভিত্তিক, তায় আয়ের কথা বললে সবার আগে গেইমের নাম আসবে। আর গেইমের ক্ষেত্রে বর্তমানে সবার উপরে আছে ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস। এই গেইমটির দৈনিক আয় ১৩ লাখ ডলার! এরপর আছে ক্যান্ডি ক্রাশ, মাইনক্রাফটের মতো জনপ্রিয় গেইম।

সেরা ওএস
স্মার্টফোন যুদ্ধের সবচেয়ে বড় প্রশ্ন—আইফোন বা অ্যান্ড্রয়েড?

কমস্কোরের মতে, আইফোনের ব্যবহার বেশিরভাগ সংবাদ বা খবর সংক্রান্ত অ্যাপ বেশি ব্যবহার করেন। অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা ব্যস্ত থাকেন সার্চ, জিমেইল, নেভিগেশনের মতো বিষয়গুলোতে, যেগুলোতে গুগলের নিজস্ব সেবা রয়েছে।

এছাড়া আইফোনের চেয়ে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেশি হলেও আয়ের দিক থেকে তারা আইফোনের চেয়ে পিছিয়ে। এছাড়া আইফোন ব্যবহারকারীরা অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের চেয়ে নয় ঘণ্টা বেশি অ্যাপ ব্যবহার করেন।

সব মিলিয়ে অ্যান্ড্রয়েড আর আইফোনকে সমান সমান বলা যেতে পারে।

– শাহরিয়ার হৃদয়

আরও পড়ুন:

সরকারি সেবার ভোগান্তি কমাতে ২৫ অ্যাপস উন্মুক্ত

হাজার কোটি টাকার অ্যাপস বাজারের সম্ভাবনা বাংলাদেশে

দেড় হাজার ভুয়া অ্যাপস সরালো মাইক্রোসফট

*

*

আরও পড়ুন