vivo Y16 Project

কোরিয়ার সেরা ট্রেনিং ইকোনমিক পার্টনার হবে বাংলাদেশ - পলক

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, কোরিয়ার সাথে অর্থনৈতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে সেরা ট্রেনিং ইকোনমিক পার্টনার হিসেবে বাংলাদেশের স্থান করে নেওয়ার সক্ষমতা রয়েছে। বাংলাদেশ এবং কোরিয়ার মধ্যে একটি সুন্দর সম্পর্ক বিদ্যমান। দুই দেশের মধ্যে একসঙ্গে কাজ করার বেশ সুযোগ ও সম্ভাবনা রয়েছে।

বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর রাজধানীর হোটেল ইন্টার কন্টিনেন্টাল ঢাকাতে অনুষ্ঠিত কোইকা বাংলাদেশ এলামনাই নাইট অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বাংলাদেশে নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং-কিউন উপস্থিত ছিলেন।

পলক KOICA এবং সরকারের বিভিন্ন কর্মকর্তার সাথে চলমান বিভিন্ন প্রকল্পে সম্প্রতি ভ্রমণের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন এবং কোরিয়া এর শিল্প, বাণিজ্য এবং অর্থনৈতিক পরিস্থিতি বিষয়ে আলোকপাত করেন।

Techshohor Youtube

প্রতিমন্ত্রী পলক, বাংলাদেশের আইসিটি খাতের উন্নয়নে কোরিয়া কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন কার্যক্রমের প্রতিচ্ছবি তার বক্তব্যে তুলে ধরেন। তিনি আরও বলেন, চারটি স্তম্ভের ভিত্তিতে আমরা সফলভাবে আমাদের ডিজিটাল বাংলাদেশের লক্ষ্য ও কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেছি এবং ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ ভিশন অর্জনে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। আমাদের উদ্ভাবকরা স্মার্ট বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ। স্মার্ট বাংলাদেশ লক্ষ্য অর্জনে তরুণসহ সকলের সক্রিয় অংশগ্রহণের মাধ্যমে দুই দেশের সুযোগগুলোকে কাজে লাগিয়ে উন্নত আগামীর পথে এগিয়ে যাক আমাদের নতুন প্রজন্ম। আমরা চাই কোরিয়ার সাথে আমাদের সম্পর্ক আরো শক্তিশালী হোক এবং বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো দৃঢ় হোক।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী এবং অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ শাহরিয়ার কাদের সিদ্দিকী। সমাপনী বক্তব্য রাখেন পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য (সচিব) মোসাম্মৎ নাসিমা বেগম এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন কোইকা বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর মিস ইউংআ দো ।

এছাড়া, উক্ত আয়োজনে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাগণ ও অন্যান্য অতিথিগণ উপস্থিত ছিলেন।

*

*

আরও পড়ুন

vivo Y16 Project