vivo Y16 Project

বাজারে এসেছে স্যামসাং গ্যালাক্সি বাডস২ প্রো

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : স্যামসাং সর্বাধুনিক ফ্ল্যাগশিপ ওয়্যারলেস ইয়ারবাডস হিসেবে বাংলাদেশের বাজারে উন্মোচন করেছে গ্যালাক্সি বাডস২ প্রো। এই উপলক্ষ্যে চলছে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক অফার ।

অডিওপ্রেমী হোক বা না হোক, ভালো অডিও সিস্টেম এখন সবার জন্যই প্রয়োজন। গান শোনা, মিউজিকের তালে তাল মিলিয়ে শরীরচর্চা করা কিংবা অনলাইনে কোনো কনফারেন্স বা মিটিং করা, সব ক্ষেত্রেই ভালো সাউন্ড কোয়ালিটি প্রয়োজন। স্যামসাং এই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে নতুন ও সর্বাধুনিক ফিচারে গ্যালাক্সি বাডস২ প্রো বাজারে নিয়ে এসেছে।

এ বিষয়ে স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের হেড অব মোবাইল মো. মুয়ীদূর রহমান বলেন, ওয়্যারলেস অডিওর চাহিদা ক্রমাগত বাড়ছে। স্যামসাং এর ব্যবহারকারীদের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও সেরা ফিচারে ভরপুর দুর্দান্ত অডিওর অভিজ্ঞতা দিতে এবার নিয়ে এসেছে গ্যালাক্সি বাডস২ প্রো। এটি গান শোনা, ভিডিও গেমস খেলা ও কাছের মানুষের সাথে কথা বলার ক্ষেত্রে সবচেয়ে নিখুঁত ও আরামদায়ক অনুভূতি নিশ্চিত করবে। ক্রেতারা এখন স্যামসাং গ্যালাক্সি বাডস২ প্রো মাত্র ২৬,৯৯৯ টাকায় কিনতে পারবেন। ক্রেতারা এখনই ইয়ারবাডসটি কিনে উন্মোচন অফার উপলক্ষে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক নিশ্চিত করতে পারেন।

Techshohor Youtube

সাউন্ড কোয়ালিটি নিশ্চিত করতে এতে ব্যবহার করা হয়েছে ২৪ বিটের হাই-ফাই অডিও। সাউন্ডকে একদম আসলের মতো করার জন্য এতে ব্যবহার করা হয়েছে ৩৬০ অডিও, যা ব্যবহারকারীদের কনসার্টের অভিজ্ঞতা দিবে। সর্বাধুনিক ৩৬০ অডিও ব্যবহারকারীদের মাথা দোলানোর সাথে সাথে সাউন্ড দিকনির্দেশ করতেও সক্ষম হবে। আছে অ্যাকটিভ নয়েজ ক্যানসেলেশন (এএনসি) ফিচার, এর মাধ্যমে এটি বাইরের সমস্ত অপ্রয়োজনীয় আওয়াজ এমনকি বাতাসের শোঁ শোঁ শব্দকেও আলাদা করে বাদ দিতে সক্ষম হবে। এছাড়াও, আশপাশে কথা চলতে থাকলে ভয়েসকে আলাদাভাবে চিহ্নিত করার মাধ্যমে এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে কথা শোনার পরিবেশ তৈরি করবে, এতে করে ব্যবহারকারীকে আলাদা করে বাডস বন্ধ করতে হবে না।

সর্বাধুনিক এই গ্যালাক্সি বাডসে ব্যবহার করা হয়েছে স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক ডিজাইন স্ট্রাকচার। আরামদায়কভাবে পুরোপুরি কানের সাথে সামঞ্জস্য করার মতো করে ডিজাইন করা হয়েছে এটি। সর্বোচ্চ স্বাচ্ছন্দ্য ও স্পষ্ট সাউন্ড নিশ্চিত করতে এতে ব্যবহার করা হয়েছে এনহ্যান্সড উইন্ড ফ্লো ফিচার, যা ইয়ার ক্যানেলের চাপ ও অপ্রয়োজনীয় আওয়াজ কমিয়ে আনতে সহায়তা করে। এর আগের ভার্সনের ইয়ারবাডসের তুলনায় এটির আকার ১৫ শতাংশ কমিয়ে আনা হয়েছে, ফলে এটির ওজন হয়েছে মাত্র ৫.৫ গ্রাম।
তার ওপর ব্যবহারকারীদের জন্য যথার্থ আকারের বাডস বাছাই করা সহজ করতে এটির সাথে থাকছে তিনটি আলাদা আকারের সিলিকন টিপস।

গ্যালাক্সি বাডস২ প্রো তে রয়েছে আইপিএক্স৭ ওয়াটার রেসিজটেন্স। দুর্ঘটনাবশত পানিতে ভিজে গেলে, বৃষ্টির কারণে অথবা শরীরচর্চা করার সময় ঝরে পড়া ঘামেও এই বাডসটি স্বাভাবিকভাবে কাজ চালিয়ে যেতে সক্ষম হবে।

গ্যালাক্সি বাডস২ প্রো দিচ্ছে বিরামহীন কানেক্টিভিটির নিশ্চয়তা। অ্যান্ড্রয়েড ১০ ও এর ওপরের স্যামসাং গ্যালাক্সি ডিভাইসগুলোর সাথে মাত্র এক ট্যাপে বাডস কেডস খুললেই কানেক্ট হয়ে যাবে গ্যালাক্সি বাডস২ প্রো। অটো সুইচ ফিচারের কারণে এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোবাইলের কার্যক্রম ডিটেক্ট করতে পারবে এবং স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোন, ট্যাবলেট, ঘড়ি এমনকি টিভির সাথে নিরবচ্ছিন্নভাবে কানেকশন পরিবর্তন করে নিতে পারবে। এছাড়া, মাত্র দু’বার গ্যালাক্সি বাডস২ প্রো’তে ট্যাপ করেই ফোনে আসা কল রিসিভ করা যাবে। এটির স্মার্টথিংস ফাইন্ড ফিচারের কারণে ব্যবহারকারীরা খুব সহজেই এদিক-ওদিক রাখা ইয়ারবাডস খুঁজে পেতে সক্ষম হবেন। ইয়ারবাডস ভুল করে রেখে দূরে যাওয়ার সময় এটির সাথে থাকা এলার্ম ব্যবহারকারীকে সঙ্গে সঙ্গে নোটিফিকেশন পাঠাবে।

ইয়ারবাডসটি পাওয়া যাচ্ছে গ্রাফাইট, সাদা এবং বোরা পার্পলের মতো প্রিমিয়াম সব কালারে। ইয়ারবাডসটিতে ১৮ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যাটারি সাপোর্ট থাকবে; এছাড়া, ব্যবহারের সময় টানা এএনসি ব্যবহার করা হলেও এতে ৫ ঘণ্টা চার্জ থাকবে।

*

*

আরও পড়ুন

vivo Y16 Project