চীনে বন্ধ গুগল ট্রান্সলেটের

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর: চীনে ট্রান্সলেটের সেবা বন্ধ করে দিয়েছে প্রযুক্তি জায়ান্ট গুগল। এর মধ্য দিয়ে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশটিতে গুগলের সর্বশেষ সেবাটিও বন্ধ হয়ে গেলো।

চীনের সাথে গুগলের সম্পর্ক জটিল। স্থানীয় সরকারের কঠোর সেন্সরশিপ অনলাইন ব্যবস্থার কারণে ২০১০ সালে চীন থেকে সার্চ ইঞ্জিন প্রত্যাহার করে নেয় গুগল। এছাড়া গুগল ম্যাপ ও জিমেইলের মতো সেবাগুলো খোদ চীন সরকার বন্ধ করে দিয়েছে। এর ফলে সার্চ ইঞ্জিন বাইডু, সোশ্যাল মিডিয়া এব গেম জায়ান্ট টেনসেন্টের মতো স্থানীয় কোম্পানিগুলো চীনের বাজারে আধিপত্য করে যাচ্ছে।

চীনে এই মুহুর্তে গুগলের উপস্থিতি খুবই নগন্য। স্মার্টফোনে ব্যবহৃত এর কিছু হার্ডওয়্যার চীনেই তৈরি করা হয়। সম্প্রতি নিউ ইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে পিক্সেল স্মার্টফোনের কিছু উৎপাদন কার্যক্রম ভিয়েতনামে সরিয়ে নিয়েছে গুগল।
চীনের ডেভেলপারদের দিয়ে বিশ্বব্যাপি অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের অ্যাপ তৈরি করতে চাইছে গুগল। যা গুগল প্লে স্টোরের মাধ্যমে সবক্ষেত্রে পাওয়া যাবে। চীনে ব্লক হওয়ার কারনে এ ব্যবস্থা নিতে চাইছে গুগল।

Techshohor Youtube

২০১৮ সালে নিজেদের সার্চ ইঞ্জিন নিয়ে পুনরায় চীনে প্রবেশের উদ্যোগ নিয়েছিল গুগল। কিন্তু কর্মকর্তা এবং রাজনীতিবিদদের তীব্র আপত্তির মুখে পিছু হটতে বাধ্য হয় কোম্পানিটি। চীন-যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিবাদের মাঝে পড়ে অব্যাহত ক্ষতির মুখে রয়েছে গুগল। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং সেমিকন্ডাক্টরের মতো সংবেদনশীল প্রযুক্তি পণ্যগুলো চীনে প্রবেশের ক্ষেত্রে বাধা দিয়ে যাচ্ছে।

সিএনবিসি/আরএপি

*

*

আরও পড়ুন