শখের রান্নায় মন জয় করে চলেছেন উল্কা'স কিচেন-র উল্কা

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নাম তাঁর উল্কা , ফারহানা নাজনীন উল্কা , ক্লাস নাইন টেনে থাকাকালীন সময়ে রান্নার প্রতি আগ্রহ জাগে, নতুন কোন আইটেম বা খাবার করতে হবে , পারতে হবে – এমন আগ্রহ ই আজকের উল্কাস কিচেনের মূল পয়েন্ট ।

ভাই , বন্ধু, মেয়ে আর স্বামীর উৎসাহে শুরু করেন উল্কা । রান্না করতে ভীষণ পছন্দ করেন , রেঁধে অন্যদের খাওয়াতে গিয়ে সকলের প্রশংসা প্রাপ্তি তাঁকে আরও আত্মবিশ্বাসী করে তোলে । ছোট ভাই অনেক আগে থেকেই আপাকে পেইজ খুলতে বলেছে, প্রফেশন হিসেবে নিতে বলেছে কিন্তু তখন গুরুত্ত না দিলেও পরে কোভিডে সব কেমন মনমরা অবস্থায় এসে নিজের ভেতর পরিবর্তন চান উল্কা । নবম শ্রেনীতে পড়ুয়া মেয়ে খুব সাহায্য করেছে, বড় মেয়ে বন্ধুর মত এগিয়ে এসেছে, খুলে দেয় পেইজ । বন্ধুরা দেয় উৎসাহ । বেড়ে যায় উল্কার গতি ।

ব্যক্তিগতভাবে উচ্ছল উল্কা বেশ প্রানোবন্ত এবং মিশুক । একই রকম ফুড আইটেম নিয়ে কাজ করা প্রতিযোগিদের নিয়ে ভাবেন না । কেবল নিজের কোয়ালিটি নিয়ে এগিয়ে যেতে চান ।

Techshohor Youtube

প্রথমে কেক নিয়ে শুরু করলেও পরে দই মিষ্টি চিলি সস তৈরি করতে লাগলেন। খাবার নিয়ে কাজ করতে গিয়ে আশে পাশের অল্প বিস্তর কটু কথা শুনেছেন উল্কা । তবে গুরুত্ত দেন নাই । কারন যে যা বলেছে বলুক , ভাল কাজ করতে গেলে বিনা কথায় হয় না , বাঁধা আসবেই । সব কথা তো ধরে বসে থাকলে চলে না । বাঁধার চেয়ে উৎসাহের তীব্রতা ছিল বেশি ।

ছোট বেলা থেকেই আগ্রহ ছিল কিছু করব । কিন্তু বাবার মৃত্যুর পর পড়াশুনায় বাঁধা এসেছে , শুরু হয়েছে নতুন পরিচয় । বিয়ের পর নতুন আমেজের জীবন । তাই ছোট বেলার সেই কিছু করার আগ্রহ আজ বড় বেলায় এসে তাঁকে দমিয়ে রাখতে পারে নি।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি ? এমন প্রশ্নে উল্কা জানালেন , আমি কারও মা , কারও বোন কারও ভাগ্নি এই পরিচয়ে নয় আমি আমার নামে পরিচিত হতে চাই । আমার কাজেই আমি প্রতিষ্ঠিত হতে চাই । নিয়মিত কাজ করে যেতে চান উল্কা ।

ভিডিওতে দেখুন বিস্তারিত

*

*