এবার ইডটকোর অডিট

edotco-techshohor

আল-আমীন দেওয়ান : টেলিযোগাযোগ খাতে আলোচিত গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলালিংকের অডিটের পর এবার টাওয়ার কোম্পানি ইডটকোর অডিট হচ্ছে।

ইতোমধ্যে অডিট ফার্ম নিয়োগের পূর্বপ্রস্তুতি শেষ করেছে বিটিআরসি ।

সম্প্রতি এই কোম্পানিটিকে ‘এসএমপি’করা হয়েছে, দেয়া হয়েছে বিধিনিষেধ। এতে ইডটকোর নতুন টাওয়ার নির্মাণ, টাওয়ার কেনার মতো কার্যক্রম সীমিতকরণ হচ্ছে। আর এবার হতে যাচ্ছে অডিট।

Techshohor Youtube

বিটিআরসির ইএন্ডও মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. এহসানুল কবীরকে আহবায়ক করে করা ৭ সদস্যদের কমিটি অডিট ফার্ম নিয়োগের এক্সপ্রেশন অব ইন্টারেস্ট (ইওআই), রিকোয়েস্ট ফর প্রপোজাল (আরএফপি), কস্ট ইস্টিমেট প্রস্তুত শেষ করেছে।

বিটিআরসির ভাইস-চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র টেকশহর ডটকমকে বলেন, ইডটকোর অডিটের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রয়োজনীয় প্রস্তুতিও সম্পন্ন করা হচ্ছে।

রাজস্বসহ সরকারের পাওনা ফাঁকি দেয়ার সম্ভাবনা দেখছেন কী ? এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, অডিট করাই হয় কোথাও কোনো ফাঁকি আছে কিনা, লেনদেন ঠিকঠাক হয়েছে কিনা। আর অডিটে কিছু না কিছু বের হয়ে আসে সাধারণত, সেটা কোনো কোম্পানি জেনে বা না জেনে যেভাবেই করুক না কেনো।

এই প্রথম বিটিআরসি কোনো টাওয়ার শেয়ারিং খাতের কোম্পানির অডিট করতে যাচ্ছে। তাই এ কার্যক্রম পদ্ধতি নানাভাবে পর্যালোচনা করেছে নিয়ন্ত্রণ সংস্থাটি।

ইডটকোর এই অডিট হবে ২০১৩ সালের ১৫ জানুয়ারি হতে কোম্পানিটির টাওয়ার শেয়ারিং লাইসেন্স পাওয়ার তারিখ ২০১৮ সালের ১ নভেম্বর পর্যন্ত এবং লাইসেন্স পাওয়ার এই তারিখ হতে ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ের।

ইডটকো ২০১১ সালে মোবাইল ফোন অপারেটর রবির সহযোগী কোম্পানি হিসেবে ‘বাংলাদেশ ইনফ্রাস্ট্রাকচার কোম্পানি লিমিটেড’ নামে ব্যবসা শুরু করে। পরে ‘ইডটকো বাংলাদেশ কোম্পানি লিমিটেড’ নাম নিয়ে রবির শেয়ার হস্তান্তর শেষে আলাদা কোম্পানি হয়। ইডটকো মালয়েশিয়ার কোম্পানি।

টেলিযোগাযোগ খাতে গ্রামীণফোন ও রবির অডিট সম্পন্ন করার পর গ্রামীণফোনের কাছে অডিট আপত্তির ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা হতে ২ হাজার কোাটি টাকা এবং রবির অডিট আপত্তির ৮৬৭ কোটি ২৪ লাখ টাকা হতে ১৩৮ কোটি টাকা আদায় করছে বিটিআরসি।

আর বাংলালিংকের অডিট এখন চলছে। অডিট প্রতিবেদন এখনও চুড়ান্ত হয়নি তবে সর্বশেষ প্রতিবেদন পর্যন্ত ৮২০ কোটি ৭২ লাখ টাকার ফাঁকি বের হয়েছে।

*

*

আরও পড়ুন