Samsung HHP Online Campaign

অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে স্ক্রিনশট নেয়ার সহজ নিয়ম

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর: অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে স্ক্রিনশট নেয়া সহজ একটি কাজ। কয়েকটি বাটনে চাপ দেয়ার পরেই স্ক্রিনের প্রত্যাশিত অংশটি আপনার মোবাইলে সেভ হয়ে যাবে। অবশ্য অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসটির নির্মাতা এবং ওএস ভার্সনের ওপর এই স্ক্রিনশট নেয়ার পদ্ধতিগুলো নির্ভর করে। স্যামসাং, গুগল, মটোরোলা এবং ওয়ানপ্লাসের ফোনগুলো স্ক্রিনশট নেয়ার সক্ষমতা রেখেই তৈরি করা হয়েছে।

কোন অ্যান্ড্রয়েড ফোনে কিভাবে স্ক্রিনশট নেয়া যায়-

সম্প্রতি যেসব অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস বাজারে এসেছে সেগুলোয় স্ক্রিনশট নেয়ার পদ্ধতি মোটামুটি একইরকম। পাওয়ার এবং ভলিউম ডাউন বাটন একসঙ্গে চাপ দিতে হয়। অন্যগুলোয় মূলত পাওয়ার বাটনে চাপ দেয়ার পর মেনু থেকে স্ক্রিনশট শব্দটি বাছাই করতে হয়।

Techshohor Youtube

যেসব স্যামসাং গ্যালাক্সি ডিভাইসে এস পেন স্টাইলাস ব্যবহার করা হয় সেক্ষেত্রে এস পেন এর বাটনটি ধরে রাখতে হবে এবং স্ক্রিনগ্র্যাব নিতে স্ক্রিনজুড়ে দাগ টানতে হবে। আরেকটি উপায় রয়েছে। ফোন থেকে এস পেনটি খুলে ফেলতে হবে এবং মেনু থেকে স্মার্ট সিলেক্ট বাটতে চাপতে হবে। এরপর স্কয়ার, ফ্রি অথবা সার্কল এমন স্থান বেছে নেয়ার পর স্ক্রিনটি ক্যাপচার করতে হবে। এরপর স্ক্রিনে ফ্লাশ হবে এবং সাউন্ড অন থাকলে শাটার দেয়ার মতো শব্দ হবে ও স্ক্রিনশটটি ফটো লাইব্রেরিতে দেখাবে। পুরো পেইজ ধারণ করতে চাইলে স্ক্রলিং স্ক্রিনশট নিতে হবে। অ্যান্ড্রয়েড১২ ক্ষেত্রে স্ক্রিনশট টুলবার দিয়ে তা নেয়া যায়।

অ্যান্ড্রয়েড ১২ ডিভাইসগুলোর ক্ষেত্রে ক্যাপচার মোর বাটনে ক্লিক করে পুরো পেজ ক্যাপচার না হওয়া পর্যন্ত স্ক্রিনশট উইন্ডো টানতে হবে। স্ক্রিনশট তৈরি হয়ে যাওয়ার পর সেভ বাটনে চাপতে হবে।
ওয়ানপ্লাস ফোনের ক্ষেত্রে ব্যবহারকারী থামতে না বলা পর্যন্ত স্ক্রিনটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্ক্রল হতে থাকবে।
স্যামসাং গ্যালাক্সি ডিভাইসগুলোর ক্ষেত্রে স্ক্রিনশট নেয়ার পদ্ধতি কিছুটা ভিন্ন। স্ক্রিনশট নেয়ার পর তা দৃশ্যমান হওয়ার জন্য টুলবারের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। ফোনের পর্দায় স্ক্রিনশট সম্প্রসারিত করতে চাইলে ডাবল ডাউন অ্যারো আইকনে আলতো করে চাপতে হবে।

জেস্টারের মাধ্যমে কিভাবে স্ক্রিনশট নেয়া যায়

হাত নাড়ানো অথবা আঙ্গুল উঠানো এরকম নির্দিষ্ট কিছু নড়াচড়ার মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলোয় স্ক্রিনশট নেয়ার সুযোগ রয়েছে। অবশ্য নির্মাতাদের ওপর নির্ভর করবে এক্ষেত্রে কেমন অঙ্গভঙ্গি প্রয়োজন।
পিক্সেল ফোর এ ফাইভজি এবং এর পরবর্তী ফোনগুলোয় অ্যাপলের ব্যা ট্যাপের মতো কুইক ট্যাপের সুবিধা থাকে। এজন্য সেটিংস- সিস্টেম-জেস্টার-কুইক ট্যাপ এ যাওয়ার পর কুইক ট্যাপ কার্যকর করতে হবে এবং স্ক্রিনশট নেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কাজ করতে হবে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি ব্যবহারকারীদের জন্য পছন্দের স্ক্রিনটি ক্যাপচার করার জন্য ব্যবহারকারীর হাত ফোন কারাতের মতো করে কাটার স্টাইল করতে হবে। এরপর ফোনের স্ক্রিনের বাম থেকে ডানে হাত ঘুরাতে হবে।

অ্যান্ড্রয়েড স্ক্রিন রেকর্ডার কিভাবে ব্যবহার করা যায়

পর্দার নির্দিষ্ট কোন অংশের স্ক্রিনশট নিতে সমস্যা হলে বিল্ড ইন স্ক্রিন রেকর্ডার ফিচার ব্যবহার করলে বিষয়টি অনেকটাই সহজ হয়। যে কেউ অ্যান্ড্রয়েড ১১ অথবা এরচেয়ে উচ্চতর সংস্করন ব্যবহারকারীরা ফোনের কুইক সেটিংস মেনু খোলে স্ক্রিন রেকর্ডারে আলতো চাপ দিয়ে স্ক্রিন রেকর্ডের জন্য রেকর্ডিং চালু করতে পারবে। একপর্যায়ে ভিডিওটি ক্যাপচার হলে এর একটি স্ক্রিনশট নিয়ে নিলেই হবে। এছাড়া স্ক্রিনে আকতে অথবা সামনের ক্যামেরা চালু করতে একটি টুলবার প্রদর্শিত হবে। টুলবার এবং সেলফি উইন্ডোটি ইচ্ছামতো স্ক্রিনের চারপাশে ঘুরানো যাবে। অতিরিক্ত সেটিংসের জন্য স্ক্রিন রেকর্ডার কুইক সেটিংস আইকনে দীর্ঘক্ষন চাপ দিতে হবে।

আরএপি

*

*