vivo Y16 Project

ট্রিপল ক্যামেরার বড় পর্দার স্মার্টফোন এনেছে ওয়ালটন

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ট্রিপল ক্যামেরার বড় পর্দার নতুন স্মার্টফোন এনেছে ওয়ালটন । ওয়ালটন ফোনটিকে বলছে, ‘দ্যা ইন্টেলিজেন্ট সুপারহিরো’। ফোনটি ‘বাজেট সুপারহিরো’ প্রিমো জিএইচ টেন-এর উন্নত সংস্করণ।

নজরকাড়া ডিজাইনের ফোনটিতে বড় পর্দার এইচডি প্লাস ডিসপ্লে, ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা, শক্তিশালী র‍্যাম-রম ও ব্যাটারি, আপডেটেড ১২ ন্যানোমিটার প্রসেসরসহ আকর্ষণীয় সব ফিচার রয়েছে। পারফরমেন্স ও ফটোগ্রাফিসহ সবদিক বিবেচনায় বাজেটের মধ্যে ভ্যাট ছাড়া ফোনটির দাম মাত্র ৭,৯৯৯ টাকা।

ওয়ালটন মোবাইলের মার্কেটিং ইনচার্জ হাবিবুর রহমান তুহিন জানান, রয়েল ব্লু এবং এমারেল্ড গ্রিন রঙের ‘প্রিমো জিএইচ টেনআই’ ফোনটিতে রয়েছে স্মার্ট শেডস। ফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ইনসেল আইপিএস প্রযুক্তির ২০:৯ রেশিওর ভি-নচ ডিসপ্লে। ৬.৫২ ইঞ্চির এইচডি প্লাস পর্দার রেজ্যুলেশন ১৫৬০ বাই ৭২০ পিক্সেল। ক্যাপাসিটিভ টাচ স্ক্রিন সুবিধাযুক্ত স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ধূলা ও আঁচররোধী ২.৫ডি কার্ভড গ্লাস। ফলে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারে অনন্য অভিজ্ঞতা পাবেন গ্রাহক।

Techshohor Youtube

ফোনটি পরিচালিত হবে অ্যান্ড্রয়েড ১১ (গো এডিশন) অপারেটিং সিস্টেমে । এতে ব্যবহৃত হয়েছে ২.০ গিগাহার্টস গতির ইউনিসক টাইগার টি৩১০ এআরএম কর্টেক্স এ৭৫ প্রসেসর। সঙ্গে রয়েছে পাওয়ার ভিআর জিটি৭২০০ গ্রাফিক্স এবং ২ গিগাবাইট র‌্যাম। ফলে বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, থ্রিডি গেমিং এবং দ্রুত ভিডিও লোড ও ল্যাগ-ফ্রি ভিডিও স্ট্রিমিং সুবিধা পাওয়া যাবে। অভ্যন্তরীণ মেমোরি ৩২ গিগাবাইটের যা মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ১২৮ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

‘প্রিমো জিএইচ টেনআই’ মডেলের ফোনটির পেছনে রয়েছে এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত এফ/২.০ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ পিডিএএফ প্রযুক্তিযুক্ত এআই ট্রিপল ক্যামেরা। ১/৪ ইঞ্চির সেন্সরযুক্ত ৮ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরার পাশাপাশি রয়েছে ডেপথ ক্যামেরা এবং ম্যাক্রো সেন্সর। আকর্ষণীয় সেলফির জন্য এই ফোনের সামনে রয়েছে এফ/২.২ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ পিডিএএফ প্রযুক্তিযুক্ত ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।

স্মার্টফোনটিতে পর্যাপ্ত পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ব্যবহৃত হয়েছে ৪০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। কানেক্টিভিটি হিসেবে আছে ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ, মাইক্রো ইউএসবি, কাস্ট স্ক্রিন, ল্যান হটস্পট, ওটিএ এবং ওটিজি। সেন্সর হিসেবে আছে এক্সিলারোমিটার (থ্রিডি), জিপিএস, এ-জিপিএস, লাইট (ব্রাইটনেস), প্রোক্সিমিটি ইত্যাদি। ফোনের সুরক্ষায় রয়েছে ফেস আনলক ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

এর অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে ভিওএলটিটিই বা ভোল্টি সাপোর্টসহ ডুয়াল সিমে ফোরজি নেটওয়ার্ক সাপোর্ট, মাইক্রো এসডি কার্ডের জন্য আলাদা স্লট, রেকর্ডিং সুবিধাসহ এফএম রেডিও, ফুল এইচডি ভিডিও প্লে-ব্যাক, ডার্ক মোড, পকেট মোড, স্মার্ট কন্ট্রোল, জেসচার নেভিগেশন ইত্যাদি।

বাংলাদেশে তৈরি এই স্মার্টফোনে ৩০ দিনের বিশেষ রিপ্লেসমেন্ট সুবিধাসহ এক বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা থাকছে।

সুত্র – প্রেস বিজ্ঞপ্তি

*

*

আরও পড়ুন

vivo Y16 Project