vivo Y16 Project

ওয়ালটনের সিপিইউ লিকুইড কুলার বাজারে

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর:  দুই মডেলের সিপিইউ লিকুইড কুলার বাজারে এনেছে ওয়ালটন। ডেক্সটপ কম্পিউটারের এই লিকুইড কুলারগুলো অত্যাধুনিক সব ফিচারে ভরপুর। একাধিক ফ্যানসহ কপার বেইসে প্লাস্টিক বডিতে তৈরি এসব কুলারে ব্যবহৃত হয়েছে অ্যালুমিনিয়াম রেডিয়েটর।

ওয়ালটন কম্পিউটার বিভাগ জানিয়েছে , পাওয়ার ডিভাইস ব্র্যান্ড ‘আর্ক’ এর প্যাকেজিং-এ বাজারে আসা লিকুইড কুলার দুটির মডেল ডব্লিউএলসি১২০বি (WLC120B) এবং ডব্লিউএলসি২৪০বি  (WLC240B)। দেশের যে কোনো ওয়ালটন প্লাজা, ডিস্ট্রিবিউটর শোরুম, আইটি ডিলার, কম্পিউটার ডিলার শোরুম এবং ই-প্লাজা থেকে লিকুইড কুলার কেনা যাবে। দাম যথাক্রমে ৫ হাজার ৮৫০ এবং ৮ হাজার ৫৫০ টাকা। 

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ডিএমডি এবং কম্পিউটার বিভাগের ইনচার্জ প্রকৌশলী লিয়াকত আলী বলেন, ক্রেতাদের চাহিদা ও প্রয়োজনীয়তা বিবেচনায় সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও ফিচারের সাশ্রয়ী মূল্যের ডিজিটাল ডিভাইস উৎপাদন ও বাজারজাত করে আসছে ওয়ালটন।

Techshohor Youtube

তিনি আরও বলেন , কম্পিউটারের সিপিউ বা সেন্ট্রাল প্রসেসিং ইউনিট সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সাধারণ এয়ার কুলার সিপিউ ঠান্ডা রাখতে কম কার্যকরী। তাই মানুষ এখন লিকুইড কুলার ব্যবহারের দিকে ঝুঁকছে। গ্রাহকদের চাহিদার প্রেক্ষিতেই লিকুইড কুলার বাজারে ছাড়া হয়েছে। এর ফলে কম্পিউটার ব্যবহারে ক্রেতার ভোগান্তি হ্রাস পাবে।

সিপিইউ কুলিং সিস্টেম বা শীতল রাখার পদ্ধতি যত উন্নত হচ্ছে, কম্পিউটার তত শক্তিশালী হচ্ছে। ওয়ালটনের লিকুইড কুলার ব্যবহারে দীর্ঘ সময় সিপিইউ চালু থাকলেও অতিরিক্ত গরম হবে না। আরামদায়কভাবে কম্পিউটার ব্যবহার করা যাবে।

ওয়ালটন কম্পিউটার ও আইটি এক্সেসসরিজের প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান রাদ জানান, লিকুইড কুলিং সিস্টেম কম্পিউটারের প্রসেসরের জন্য রেডিয়েটর হিসেবে কাজ করে। প্রসেসর থেকে তাপ শোষণ করে পিসির বাইরে পাঠিয়ে দিয়ে প্রসেসরকে ঠান্ডা রাখার এটি একটি দারুণ কার্যকর যন্ত্রাংশ। এতে পিসির কার্যক্ষমতা যেমন বাড়ে, তেমনই দীর্ঘদিন সার্ভিস দেয়। এর অ্যারো-ডায়নামিক ফ্যানের নয়েজ লেভেল খুবই কম। শতভাগ নিচ্ছিদ্র ওয়ালটন লিকুইড কুলার সহজেই ইনস্টল করা যায়।

ওয়ালটনের ‘আর্ক’ লিকুইড কুলারে গ্রাহকরা পাচ্ছেন ২ বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি।

সূত্র – প্রেস বিজ্ঞপ্তি

*

*

আরও পড়ুন

vivo Y16 Project