Techno Header Top and Before feature image

আস্থা আইটিতে চলছে ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রাম ‘ডেভ বুটক্যাম্প’

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বাংলাদেশের  কাস্টম সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি আস্থা আইটিতে চলছে  ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রাম ‘ডেভ বুটক্যাম্প”এর দ্বিতীয় ব্যাচের প্রশিক্ষণ, ৩ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া এই প্রশিক্ষণ চলবে জানুয়ারির ৩১ তারিখ পর্যন্ত ।

আস্থা আইটির প্রথম ডেভ বুটক্যাম্প প্রোগ্রামটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০২০ সালে। এ বছরও কম্পিউটার সায়েন্স গ্র্যাজুয়েটদের সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করার জন্য প্রস্তুত করতে তিন মাসের এই ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রামটি করা হয়েছে। 

এই প্রোগ্রামে ডিজাইন প্যাটার্ন, সফটওয়্যার আর্কিটেকচার, গিট, ডিস্ট্রিবিউটেড প্রোগ্রামিং এবং মাইক্রোসার্ভিস, ডেভঅপস সহ আরও বেশ কিছু বিষয়ে হাতে-কলমে, প্রজেক্ট সম্পন্ন করার মাধ্যমে অ্যাডভান্সড পর্যায়ের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। প্রশিক্ষণের দায়িত্বে থাকবেন কোম্পানিটিতে কর্মরত সংশ্লিষ্ট বিষয়ের বিশেষজ্ঞরা ।

বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েটরা পড়াশোনা শেষে সরাসরি কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করতে গিয়ে অ্যাকাডেমিক শিক্ষা এবং ব্যবহারিক প্রয়োগের মধ্যে ব্যাপক বিভেদ পান। এই পরিস্থিতিতে সফটওয়্যার ইন্ডাস্ট্রির কোনো কোম্পানিতে হাতে কলমে প্রশিক্ষণের সুযোগ অনেক কম্পিউটার সায়েন্স গ্র্যাজুয়েটদের জন্য অ্যাকাডেমিক ও প্রফেশনাল জীবনের সংযোগ স্থাপন করতে সক্ষমতা আনে ।  

এ প্রসঙ্গে আস্থা আইটির প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও হাসনাইন রিজভি রহমান বলেন, “হাতেগোনা  কিছু উদাহরণ ছাড়া বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আমরা দেখেছি যে বাংলাদেশের কম্পিউটার সায়েন্স গ্র্যাজুয়েটরা ইন্ডাস্ট্রি-রেডি না। কেউ প্রবলেম সল্ভিং-এ দক্ষ, কিন্তু আধুনিক প্রযুক্তি সম্পর্কে ধারণা কম। আবার কেউ নতুন নতুন সব প্রযুক্তি নিয়ে পড়াশোনা করতে পছন্দ করে কিন্তু প্রবলেম সলভিং-এর অভিজ্ঞতা নেই। একজন ভালো সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারের দুই দিক দিয়েই পারদর্শিতা থাকাটা জরুরী।”

প্রতিযোগীদের ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে আস্থা আইটির পরিচালক এবং সিওও তাসনুভা আহমেদ জানান , “আমরা লক্ষ্য করেছি এই সেক্টরে মেয়েদের অংশগ্রহণের হার অনেক কম। পরবর্তীতে অবশ্যই আমরা এই গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা সমাধান করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করব।”

বুটক্যাম্পে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেককে তাদের কাঙ্ক্ষিত পারদর্শিতার সাথে সামঞ্জস্য রেখে তৈরি করা একটি কোডিং প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে হয়। প্রায় ১২০০ প্রতিযোগীদের ভেতর থেকে সেরা ২০  জনকে বাছাই করে ইন্টার্নশিপে যোগদান করতে আমন্ত্রণ জানানো হয় । নির্বাচিত ইন্টার্নদেরকে বিনামূল্যে  ইন্টার্নশিপ শেষে তাদের  কর্মদক্ষতার ভিত্তিতে একাধিক ব্যক্তিকে নিয়োগ দেওয়ার চেষ্টা করা হবে । 

সূত্র – প্রেস বিজ্ঞপ্তি , ১৭ নভেম্বর , ২০২১

*

*

আরও পড়ুন