Samsung HHP Online Campaign

নাগরিক অভিযোগ সমাধানে সাতক্ষীরায় জিআরএসের পরীক্ষামূলক উদ্বোধন

টেক শহর .কম ডেস্ক : নাগরিক অভিযোগসমূহ চিহ্নিতকরণের লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকারের অনলাইন অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থা বা গ্রিভেন্স রিডরেস সিস্টেম (জিআরএস) সাতক্ষীরা জেলায় পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির প্রধান অতিথি হিসেবে অনলাইন জিআরএস এর উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউএনডিপি বাংলাদেশের ডেপুটি রেসিডেন্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ ভ্যান নুয়েন। এটুআই-এর পলিসি অ্যাডভাইজর আনির চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্যানেল হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর, প্রকল্প পরিচালক (যুগ্ম সচিব), এটুআই; মোঃ খালেদ হাসান, যুগ্ম সচিব, সোশ্যাল সেফটি নেট (এসএসএন), মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ; আঙ্গা আর টিমিলসিনা, এন্টি-করাপশন গ্লোবাল অ্যাডভাইজার, ইউএনডিপি, এসিপিআইএস; এসআইডিএ এর প্রতিনিধি এবং জনপ্রতিনিধি আসাদুজ্জামান বাবু।

Techshohor Youtube

জিআরএস প্রথম চালু করা হয় ১৯৮৬ সালে। ২০১৫ সালে ২১টি জেলায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এই সিস্টেমটির অনলাইন সংস্করণ চালু করে। কিন্তু সিস্টেমটির কার্যক্রম শুধুমাত্র জেলা পর্যায়ে সীমাবদ্ধ থাকার কারণে এটির পরিপূর্ণ ব্যবহার করা সম্ভব হয়নি। নতুনভাবে অনলাইন জিআরএস সিস্টেমটি পরীক্ষামূলকভাবে সাতক্ষীরার সদর ও আশাশুনি উপজেলায় শুরু করা হয়।

জিআরএস এর নতুন সংস্করণটিতে জাতীয় হেল্পলাইন 333 এবং ফেসবুকের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যুক্ত করা হয়েছে। জিআরএস অ্যাপের মাধ্যমে নাগরিকগণ অনলাইনেও তাদের অভিযোগ তুলে ধরতে পারবেন।ফলে নাগরিকদের অভিযোগের সমাধান করার জন্য এটি একটি কার্যকর হাতিয়ার এবং এসডিজি-১৬ অর্জনের পথে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে বক্তারা গুরুত্তারোপ করেন।

প্রধান অতিথি মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীর বলেন, “নাগরিকদের সর্বোচ্চ সেবা প্রদানের জন্য সরকার সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাচ্ছে। নাগরিকগণ এখন সশরীরে সরকারি দপ্তরে না এসেও ঝামেলাবিহীন অনলাইনে তাদের অভিযোগ জানাতে পারবেন”।

বিশেষ অতিথি ভ্যান নুয়েন, বলেন, “জিআরএস হল সেবা প্রদানকারী এবং সেবা গ্রহণকারীদেরকে একই প্ল্যাটফর্মে একীভূত করার একটি গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার।” তিনি নাগরিকদের জিআরএস ব্যবহার করতে উৎসাহিত করেন।

জনসেবা প্রদানকে শক্তিশালী করার উপর জিআরএস-এর ভূমিকা এবং ভবিষ্যত প্রভাব নিয়ে আলোচনা হয় ।বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কাজী আরিফুর রহমান; এরপর জিআরএস সম্পর্কে বিস্তারিত উপস্থাপন করেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মোঃ মোখলেসুর রহমান। খন্দকার মনোয়ার মোর্শেদ জিআরএস-এর পরবর্তী পদক্ষেপগুলো সম্পর্কে ধারণা দেন এবং কীভাবে অফলাইন ও অনলাইন যোগাযোগ মাধ্যমগুলোকে অন্তর্ভুক্ত করে নাগরিকদের সর্বোচ্চ সচেতনতা ও অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা হবে তা ব্যক্ত করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে ইউএনডিপি, এটুআই, আইসিটি বিভাগ এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

সুত্র ঃ প্রেস বিজ্ঞপ্তি / ১০ নভেম্বর / ২০২১

*

*

আরও পড়ুন