Techno Header Top and Before feature image

মাইক্রোসফট অফিস অ্যাপে আসছে ভিডিও এডিটিং ও অডিও রেকর্ডিং

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : মাইক্রোসফট কিছু মিডিয়া তৈরির টুল সংযুক্ত করার মাধ্যমে অফিস অ্যাপকে বুস্ট করছে। অ্যাপটি আপডেটের একটি সুইপিং সেটের অংশ হিসাবে মাইক্রোসফট অফিস স্যুটে ক্লিপচ্যাম্প ভিডিও এডিটিং যুক্ত করছে। সম্প্রতি যুক্ত করা ওয়েব-ভিত্তিক এই টুলটি আপনাকে পেশাদার ক্লিপ তৈরি করতে সহায়তা করবে। এর মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন প্রোজেক্ট, কোর্স কিংবা ব্যক্তিগত ভিডিও এডিটিং করতে পারবেন।

টুলটি ব্যবহারের ফলে আপনার পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টেশনে ভিডিও ক্লিপ সংযুক্ত করা আরোও সহজ হবে। মাইক্রোসফ্ট পাওয়ারপয়েন্টে একটি “রেকর্ডিং স্টুডিও” যুক্ত করছে যার ফলে আপনি যখন আপনি লাইভ উপস্থাপন করতে পারবেন না বা চাইবেন না তখন সেই মুহুর্তগুলির জন্য অডিও ক্যাপচার করতে পারবেন। চাইলে স্লাইডগুলোকে অ্যানোটেট করতে পারবেন, ব্যাকগ্রাউন্ড কাস্টমাইজ করতে পারবেন এবং আপনাকে রেকর্ড করতে সাহায্য করবে এরকম ভিউ বাছাই করতে পারবেন। রেকর্ড করা হয়ে গেলে আপনি প্রেজেন্টেশনটি প্রিভিউ করতে পারবেন এবং যতটা প্রয়োজন ততটা পুনরায় রেকর্ড করতে পারবেন।

তবে এই ফিচারটির জন্য আপনাকে কিছুদিন ধৈর্য ধরতে হবে। যদিও মাইক্রোসফট আশাবাদী যে, এটি ২০২২ সালের প্রথম দিকের নাগাদ সর্বসাধারনের জন্য উন্মুক্ত হবে।

এছাড়াও মাইক্রোসফট কনটেক্সট আইকিউ নিয়ে আসছে যা মাইক্রোসফট 365-এর জন্য AI অভিজ্ঞতা। এর ফলে আপনি যখন লোকেদের ট্যাগ করতে চান তখন এটি প্রাসঙ্গিক পরিচিত লোকদেরকে সাজেস্ট করবে।
মাইক্রোসফট স্প্রেডশীট অ্যাপে জাভাস্ক্রিপ্ট ফ্রেমওয়ার্ক প্রবর্তন করছে, যা আপনাকে ওয়েব-ভিত্তিক ভাষা ব্যবহার করে কাস্টম ডেটা প্রকার এবং ফাংশন তৈরি করতে দিবে। এতে করে ডেভলপাররা এক্সেল ব্যবহারের দিকে ঝুঁকবে। জাভাস্ক্রিপ্ট নভেম্বরের পরে প্রিভিউ আকারে পাওয়া যাবে। যারা ডাটা নিয়ে কাজ করেন তাদের জন্য এই ফিচারটি খুব দরকারি।

সূত্র : ইন্টারনেট/জেডএ/নভে ০৭/১১৫৫

*

*

আরও পড়ুন