Techno Header Top and Before feature image

ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের উদ্দেশ্যে লেখা জাকারবার্গের চিঠি

বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার রাতে ফেইসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ প্রতিষ্ঠানের নাম বদলে রেখেছেন ‘মেটা’। মূলত ‘মেটাভার্স’-এর সংক্ষিপ্ত রূপই এই নামকরণ।

এদিন ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের উদ্দেশ্যে একটি চিঠি লিখেছেন জাকারবার্গ। এই চিঠিতে তিনি মেটাভার্স আসলে বিশ্বকে কতোটা বদলে দিতে পারে তার সংক্ষিপ্ত রূপ তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন। চিঠিটি বাংলায় অনুবাদ করে তুলে ধরা হলাে টেকশহর.কমের পাঠকদের জন্য।

সহ-প্রতিষ্ঠাতার চিঠি, ২০২১

আমরা ইন্টারনেট এবং আমাদের প্রতিষ্ঠানের জন্যও পরবর্তী অধ্যায়ের শুরুতে আছি। সাম্প্রতিক দশকগুলিতে, প্রযুক্তি মানুষকে আরও স্বাভাবিকভাবে সংযুক্ত করার ও নিজেদের প্রকাশ করার শক্তি দিয়েছে। আমি যখন ফেইসবুক শুরু করি, আমরা বেশিরভাগই ওয়েবসাইটে টেক্সট টাইপ করতাম। আমরা যখন ক্যামেরাসহ ফোন পেয়েছি, তখন ইন্টারনেট, মোবাইলফোন আরও বেশি ভিজ্যুয়াল হয়ে উঠেছে। কানেকশনস্ দ্রুততর হওয়ার সাথে সাথে ভিডিও অভিজ্ঞতা শেয়ার করার একটি সমৃদ্ধ পদ্ধতি হয়ে উঠেছে। আমরা ‘ডেস্কটপ টু ওয়েব টু মোবাইল’ কিংবা ‘টেক্সট টু ফটো টু ভিডিও’-তে চলে এসেছি।  কিন্তু এটাই শেষ নয়। পরবর্তী প্ল্যাটফর্মটি আরও বেশি গুরুত্ববহ। 

আমরা এটিকে মেটাভার্স বলি। এটিতে আমাদের তৈরি প্রতিটি পণ্য থাকবে। মেটাভার্সের সংজ্ঞায়িত গুণটি হবে উপস্থিতির অনুভূতি- যেমন আপনি অন্য ব্যক্তির সাথে বা অন্য জায়গায় আছেন। অন্য ব্যক্তির সাথে সত্যিকারের উপস্থিত বোধ করা সামাজিক প্রযুক্তির চূড়ান্ত স্বপ্ন। এ কারণেই আমরা এটি নির্মাণের দিকে মনোনিবেশ করছি। আপনি কল্পনা করতে পারেন এমন প্রায় সবকিছু মেটাভার্সে করতে পারবেন। বন্ধু এবং পরিবারের সাথে একত্র হওয়া, কাজ করা, শেখা, খেলা, কেনাকাটা করা, নির্মাণ করা এবং সেই সাথে সম্পূর্ণ নতুন অভিজ্ঞতা থাকবে। আমরা একটি ফিল্ম তৈরি করেছি, যা ব্যাখ্যা করবে কীভাবে আপনি একদিন অব্যশই মেটাভার্স ব্যবহার করবেন। 

এই ভবিষ্যতে, আপনি অফিসে যাতায়াত ছাড়াই, বন্ধুদের সাথে কনসার্টে বা আপনার বাবা-মায়ের বসার ঘরে থাকা অবস্থায় হলোগ্রাম হিসাবে তাৎক্ষণিকভাবে টেলিপোর্ট করতে সক্ষম হবেন। আপনি যেখানেই থাকুন না কেন  মেটাভার্স আরও সুযোগ সৃষ্টি করবে। আপনি আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলিতে আরও বেশি সময় ব্যয় করতে পারবেন। পাশাপাশি ট্র্যাফিক টাইম কমাতে ও আপনার কার্বন ব্যবহার কমাতে পারবেন।  

আজ আপনার কতগুলো শারীরিক বিষয় ভবিষ্যতে হলোগ্রাম হতে পারে তা ভাবুন!  আপনার টিভি, একাধিক মনিটরের সাথে আপনার নিখুঁত কাজের সেটআপ, আপনার বোর্ড গেম এবং আরও অনেক কিছু কারখানায় একত্রিত শারীরিক জিনিসের পরিবর্তে সেগুলি হবে বিশ্বজুড়ে নির্মাতাদের দ্বারা ডিজাইন করা হলোগ্রাম। আপনি বিভিন্ন ডিভাইসে এই অভিজ্ঞতাগুলো পাবেন-এটাই পরিবর্ধিত বাস্তবতা। 

ভৌত জগতে উপস্থিত থাকার জন্য চশমা, সম্পূর্ণরূপে নিমজ্জিত হওয়ার জন্য ভার্চুয়াল রিয়েলিটি এবং বিদ্যমান প্ল্যাটফর্ম থেকে জাম্প করতে প্রয়োজন ফোন ও কম্পিউটার। এটি পর্দায় বা স্ক্রিনে বেশি সময় ব্যয় করার বিষয়ে নয়; এটা ইতিমধ্যে ব্যয় করা সময় আরো ভালো করা সম্পর্কে বলা। 

আমাদের ভূমিকা এবং দায়িত্ব

মেটাভার্স একটি কোম্পানি দ্বারা তৈরি করা হবে না। এটি নির্মাতা এবং ডেভেলপারদের দ্বারা নির্মিত হবে যারা নতুন অভিজ্ঞতা এবং ডিজিটাল আইটেম তৈরি করবে, যা আন্তঃপরিচালনাযোগ্য। আজকের প্ল্যাটফর্ম ও পলিসির সীমাবদ্ধতার চেয়ে বৃহত্তর সৃজনশীল অর্থনীতিকে প্রকাশ করবে এটি। এই জার্নিতে আমাদের ভূমিকা হল মৌলিক প্রযুক্তির উন্নতি, সামাজিক প্ল্যাটফর্ম এবং সৃজনশীল সরঞ্জামগুলির বিকাশকে ত্বরান্বিত করা যাতে মেটাভার্সকে প্রাণবন্ত করা যায় এবং আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপের মাধ্যমে এই প্রযুক্তিগুলি বুনন সম্ভব হয়। 

আমরা বিশ্বাস করি যে, আজকে বিদ্যমান যেকোন কিছুর চেয়ে মেটাভার্স  ভাল সামাজিক অভিজ্ঞতা দিবে এবং আমরা এর সম্ভাব্যতা অর্জনে সহায়তা করার জন্য আমাদের শক্তি উৎসর্গ করব। যেমনটি আমি আমাদের মূল প্রতিষ্ঠাতার চিঠিতে লিখেছিলাম: “আমরা অর্থ উপার্জনের জন্য সার্ভিস তৈরি করি না বরং  আমরা আরও ভাল সার্ভিস বা সেবা তৈরি করার জন্য অর্থ উপার্জন করি।” আমরা  আমাদের ব্যবসা তৈরি করেছি যাতে করে আরও  ভালো সার্ভিস তৈরির জন্য খুব বড় এবং দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগের ব্যবস্থা করতে পারি।  আমরা সে পরিকল্পনা করে যাচ্ছি। গত পাঁচ বছর আমার এবং আমাদের কোম্পানির জন্য  অনেক উপায়ই পক্ষে ছিল না। তবে আমার একটি মূল লার্নিং হল,‘ যে পণ্যগুলি তৈরি করা হয়েছে এবং যা মানুষ পছন্দ করে- তা যথেষ্ট নয়।’

আমি বলেবা যে ইন্টারনেটের গল্পটি সহজবোধ্য নয়। প্রতিটি অধ্যায় নতুন কণ্ঠস্বর এবং নতুন ধারণা নিয়ে আসে, তবে নতুন চ্যালেঞ্জ, ঝুঁকি এবং প্রতিষ্ঠিত স্বার্থের ব্যাঘাতও নিয়ে আসে। তাই আমাদেরকে  শুরু থেকেই একসাথে কাজ করতে হবে যাতে করে জীবনে ভবিষ্যতের সর্বোত্তম ভার্সনটি পেতে পারি।

প্রথমদিন থেকেই মেটাভার্সের গোপনীয়তা ও নিরাপত্তা তৈরি করা দরকার। তাই ওপেন স্ট্যান্ডার্ড এবং ইন্টারঅপারেবিলিটি যুক্ত করতে হবে। এর জন্য শুধু অভিনব প্রযুক্তিগত কাজ লাগবে (যেমন ক্রিপ্টো এবং এনএফটি  প্রজেক্টকে সমর্থন করা) তা কিন্তু নয়। পাশাপাশি নতুন রুপে পরিচালনাও লাগবে। সর্বোপরি, আমাদের এমন একটি ইকোসিস্টেম তৈরিতে সাহায্য করতে হবে যাতে ভবিষ্যতে আরও বেশি লোকের অংশীদারিত্ব থাকে এবং তারা কেবল ভোক্তা হিসাবে নয় বরং নির্মাতা হিসাবে উপকৃত হতে পারে।

আমি বিশ্বাস করি যে, ভোক্তাদের পছন্দের অভাব এবং ডেভেলপারদের জন্য উচ্চ ফি উদ্ভাবনকে দমিয়ে দিচ্ছে এবং ইন্টারনেট অর্থনীতিকে আটকে রেখেছে। আমরা একটি ভিন্ন পদ্ধতি গ্রহণ করার চেষ্টা করেছি। আমরা চাই আমাদের সেবাগুলো যতটা সম্ভব বেশি লোকের কাছে অ্যাক্সেসযোগ্য হোক এবং কম খরচের হোক। আমাদের মোবাইল অ্যাপসগুলো ফ্রি। আমাদের বিজ্ঞাপন মডেলটি এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যাতে ব্যবসায়িরা সর্বনিম্ন ফি প্রদানে সার্ভিসটি নিতে পারে। আমাদের বাণিজ্য সরঞ্জামগুলিও সামান্য খরচে পাওয়া যাবে। ফলে কোটি কোটি মানুষ আমাদের সেবাগুলোকে ভালবাসে এবং লক্ষ লক্ষ ব্যবসা আমাদের সরঞ্জামগুলির উপর নির্ভর করে। 

এটি সেই পদ্ধতি যা আমরা মেটাভার্স তৈরি করতে সাহায্য করতে আনতে চাই। আমরা আমাদের ডিভাইসগুলিকে আরও বেশি লোকের কাছে পৌছানোর জন্য কম দামে বা ভর্তুকি দিয়ে বিক্রি করার পরিকল্পনা করছি। আমরা পিসি থেকে সাইড-লোডিং এবং স্ট্রিমিং সুবিধা চালিয়ে যাব যাতে  করে ব্যবহারকারীরা অ্যাপগুলি খুঁজে পেতে বা গ্রাহকদের কাছে পৌঁছানোর জন্য কোয়েস্ট স্টোর ব্যবহার করতে বাধ্য হতে না হয়।  আমরা যতটা সম্ভব কম ফি দিয়ে ডেভেলপার এবং ক্রিয়েটর সেবা  অফার করবো যাতে করে সৃজনশীল অর্থনীতিকে সর্বাধিক প্রচলন করতে পারি।  তবে আমাদের এটা নিশ্চিত করতে হবে যে, এই পন্থায় আমরা বেশি অর্থ হারাব না। আমরা আশা করি যে, আগামী দশকের মধ্যে মেটাভার্স এক বিলিয়ন মানুষের কাছে পৌঁছাবে, শত শত বিলিয়ন ডলারের ডিজিটাল কমার্স হোস্ট করবে, এবং লক্ষ লক্ষ নির্মাতা ও ডেভলপারদের চাকরির জন্য সহায়তা করবে।  

আমরা কারা

এই পরবর্তী অধ্যায় বা মেটাভার্স শুরু করার সাথে সাথে আমাদের কোম্পানি এবং আমাদের পরিচয়ের জন্য এর অর্থ কী তা নিয়ে অনেক চিন্তাভাবনা করেছি আমি। আমরা এমন একটি কোম্পানি যা লোকেদের কানেক্ট করার উপর ফোকাস করে। যদিও বেশিরভাগ প্রযুক্তি সংস্থাগুলি লোকেরা কীভাবে প্রযুক্তির সাথে ইন্টারঅ্যাক্ট করে তার উপর ফোকাস করে। কিন্তু আমরা সর্বদা প্রযুক্তি তৈরিতে ফোকাস করেছি যাতে লোকেরা একে অপরের সাথে যোগাযোগ করতে পারে। বর্তমানে আমরা সামাজিক মিডিয়া কোম্পানি হিসেবে পরিচিত। বিশ্বের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত প্রযুক্তি পণ্যের একটি ফেইসবুক। এটি একটি আইকনিক সোশ্যাল মিডিয়া ব্র্যান্ড। 

সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ তৈরিা করা সবসময়ই আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এবং সামনে আরও অনেক তেরি করতে হবে। কিন্তু এটা আমরা করছি না। আমাদের ডিএনএ-তে, আমরা মানুষকে একত্রিত করার জন্য প্রযুক্তি তৈরি করি। মেটাভার্স হল লোকেদের সংযোগের পরবর্তী সীমানা। 

এই মুহুর্তে আমাদের ব্র্যান্ডটি একটি পণ্যের সাথে এতটাই শক্তভাবে যুক্ত যে এটি ভবিষ্যতে আমরা যা করব বা করছি তা উপস্থাপন করতে পারবে না। আমি আশা করি  সময়ের সাথে আমাদেরকে একটি মেটাভার্স কোম্পানি হিসাবে দেখা হবে। আমি আমাদের কাজ এবং আমাদের পরিচয়ের উপস্থাপক হতে চাই। বলতে চাই আমরা কিসের দিকে যাচ্ছি। আমরা এইমাত্র ঘোষণা করেছি যে, আমরা আমাদের কোম্পানিতে একটি মৌলিক পরিবর্তন করছি। আমরা এখন আমাদের ব্যবসাকে দুটি ভিন্ন সেগমেন্ট হিসেবে দেখছি: একটি আমাদের অ্যাপ পরিবারের জন্য এবং অন্যটি ভবিষ্যৎ প্লাটফর্মে আমাদের কাজের জন্য। 

মেটাভার্সে আমাদের কাজ শুধুমাত্র এই সেগমেন্টেগুলোর মধ্যে একটি নয়। মেটাভার্স সামাজিক অভিজ্ঞতা এবং ভবিষ্যতের প্রযুক্তি উভয়কেই অন্তর্ভুক্ত করেছে। আমরা আমাদের দৃষ্টিকে প্রসারিত করার সাথে সাথে আমাদের একটি নতুন ব্র্যান্ড গ্রহণ করার সময় এসেছে।  আমরা কে এবং আমরা যে ভবিষ্যত গড়তে চাই তা প্রতিফলিত করতে আমাদের কোম্পানি এখন থেকে ‘মেটা’। আর এটি শেয়ারে করতে পেরে আমি গর্বিত। কিন্তু আমাদের মিশন একই রয়ে গেছে। আমরা লোকদেরকে একত্রিত করতে চাই। আমাদের অ্যাপ এবং তাদের ব্র্যান্ডগুলিও পরিবর্তন হচ্ছে না। আমরা এখনও সেই কোম্পানি যা মানুষের চারপাশে প্রযুক্তি ডিজাইন করে। কিন্তু মেটাভার্সকে প্রাণবন্ত করতে সাহায্য করার জন্য আমাদের অ্যাপসসহ আমাদের সমস্ত পণ্য এখন নতুন ভিশনে আছে। এখন আমাদের কাছে একটি নাম আছে যাতে সেই প্রশস্ত সেবাগুলো অন্তর্ভুক্ত করেছি। 

এখন থেকে আমরা ফেইসবুক-ফার্স্ট-এর পরিবর্তে মেটাভার্স ফার্স্ট হব। এর মানে হল যে সময়ের সাথে সাথে আমাদের অন্যান্য সেবা ব্যবহার করার জন্য আপনার একটি ফেইসবুক অ্যাকাউন্টের প্রয়োজন হবে না। যেহেতু আমাদের নতুন ব্র্যান্ড আমাদের পণ্যগুলো দেখাতে শুরু করেছে, আমি আশা করি সারা বিশ্বের লোকেরা মেটা ব্র্যান্ড এবং আমরা যে ভবিষ্যতের জন্য দাঁড়িয়েছি তা জানতে পারবে। আমি ক্লাসিক স্টাডি করতাম, এবং “মেটা” শব্দটি এসেছে গ্রীক শব্দ থেকে যার অর্থ ” তার পরেও বা বহুদূর”। আমার জন্য এর প্রতীকী অর্থ হলো আরও অনেক নির্মাণ করে যেতে হবে এবং গল্পের পরবর্তী অধ্যায় সবসময় থাকে। আমাদের এমন একটি গল্প আছে যা একটি ডর্ম রুমে শুরু হয়েছিল এবং এটি আমাদের কল্পনার বাইরে চলে গেছে। আমাদের অ্যাপগুলির একটি পরিবার যা ব্যবহারে লোকেরা একে অপরের সাথে কানেক্ট থাকতে, তাদের ভয়েস খুঁজে পেতে এবং ব্যবসা শুরু করতে ব্যবহার করে। আর এগুলো পুরো বিশ্বকে বদলে দিয়েছে। 

আমরা এখন পর্যন্ত যা তৈরি করেছি তার জন্য আমি গর্বিত, এবং পরবর্তীতে যা আসছে তা নিয়ে আমি উদ্দীপ্ত। আমরা এমন এক ভবিষ্যতে যাচ্ছি যেখানে প্রত্যেকে একে অপরের সাথে উপস্থিত থাকতে পারে, নতুন সুযোগ তৈরি করতে পারে এবং নতুন জিনিসগুলি অনুভব করতে পারে। একটি এমন একটি ভবিষ্যৎ যা আমাদের সকলের দ্বারা তৈরি হবে। আমরা এমন কিছু তৈরি করেছি যা মানুষকে নতুন উপায়ে একত্রিত করেছে। আমরা কঠিন সামাজিক সমস্যাগুলির সাথে লড়াই করা থেকে শিখেছি এবং কাছাকাছি প্ল্যাটফর্মের অধীনে জীবনযাপন করা থেকে শিখেছি। এখন সময় এসেছে আমরা যা শিখেছি তা দিয়ে পরবর্তী অধ্যায় তৈরি করার।  আর পরবর্তী অধ্যায় তৈরি করতে বিশ্বের অন্য যেকোনো কোম্পানির চেয়ে বেশি শক্তি উৎসর্গ করছি। আপনি যদি এই ভবিষ্যত দেখতে চান, আমি আশা করি আপনি আমাদের সাথে যোগ দেবেন। ভবিষ্যৎ আমাদের কল্পনার বাইরে চরে যেতে শুরু করেছে। 

সংকলন: জুবায়ের আহম্মেদ। সূত্র: ফেইসবুক নিউজফিড /অক্টােবর ৩০/ দুপুর ১২:৪৪

*

*

আরও পড়ুন