Techno Header Top and Before feature image

ব্লকচেইন প্রযুক্তি ব্যবহারে গুরুত্ব পলকের

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ব্লকচেইন প্রযুক্তিকে নতুন ধারার ইন্টারনেট উল্লেখ করে এর ব্যবহারে গুরুত্ব আরোপ করেছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

রোববার রাতে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াডের সমাপনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

টিপু মুনশি বলেন, ব্লকচেইন একপ্রকার ডেটাবেইজ টেকনোলজি যা দৈনন্দিন জীবনে প্রয়োজনীয়তা রয়েছে ।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ব্লকচেইন প্রযুক্তি নতুন ধারার ইন্টারনেট। এটি প্রতিটি ক্ষেত্রেই ব্যাপক পরিবর্তন আনছে। ফিনটেক, এগ্রিটেক, হেলথটেক, এ্যডুটেক প্রতিটি ক্ষেত্রে আজ, কাল বা পরশু এই ব্লকচেইন ব্যবহৃত হবে। তাই এই প্রযুক্তিকে আলিঙ্গন করতে হবে। সুযোগ কাজে লাগাতে হবে।

তিনি বলেন, শিল্পখাতে রূপান্তরের অপারেটিং মডেলে দীর্ঘ মেয়াদে ব্লকচেইন ব্যবহৃত হবে। যেভাবে ইন্টারনেটে ব্যাপকভিত্তিক তথ্য বিনিময় করা হয়, তেমনি ভ্যালুচেঞ্জ, মালিকানা হস্তান্তর এবং লেনদেন যাচাইয়ে ব্লকচেইন ব্যবহৃত হবে।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের (বিসিসি) নির্বাহী পরিচালক ড. মোঃ আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মোহাম্মদ কায়কোবাদ এবং এই অলিম্পিয়াড আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান সিইও হাবিবুল্লাহ এন করিম। এতে  অনলাইনে সংযুক্ত হয়ে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন হংকং ব্লকচেইন সোসাইটির প্রেসিডেন্ট ড. লরেন্স মা এবং ব্লকচেইন সোসাইটির ডেভিড সিজেল।

এবারে অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতায় ব্রোঞ্চ এবং সিলভার দুইটি ক্যাটাগরিতে বিজয়ী ১০টি দল পেয়েছে ৪০ হাজার মার্কিন ডলারেরও বেশি মূল্যের পুরস্কার । প্রতিযোগিতাটি তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলসহ ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ এবং টেকনোহেভেন কোম্পানি যৌথভাবে আয়োজন করে। এবারই প্রথম এই আয়োজন হংকংয়ের বাইরে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

প্রতিযোগিতায় মোট ১২ টি দেশ অংশগ্রহণ করে। ৮ ই অক্টোবর একটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে ৩ দিনব্যাপী এই অলিম্পিয়াড চলে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত। এ বছর অন্যান্য আয়োজনের পাশাপাশি সিবিডিসি এবং ক্রিপ্টোকারেন্সি, ই-গভর্নেন্স, আইডেন্টিটি অ্যান্ড প্রাইভেসি এবং ফিনটেক বিষয়ে মোট ৪ টি সেমিনারের আয়োজন করা হয়।  

*

*

আরও পড়ুন