Techno Header Top and Before feature image

ব্লকচেইন হতে পারে বাংলাদেশে বিনিয়োগের অন্যতম একটি প্রযুক্তি খাত : পলক

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : “অনুপ্রেরণামূলক ক্ষমতায়ন এবং উদ্ভাবন” এই প্রতিপাদ্য নিয়ে আগামী ৮ ই অক্টোবর “আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড ২০২১” এর যাত্রা শুরু হতে যাচ্ছে । ১০ অক্টোবর পর্যন্ত এই অলিম্পিয়াডে অন্যান্য আয়োজনের পাশাপাশি মোট ৪ টি সেমিনারের আয়োজন থাকছে। সেমিনারগুলি হবে সিবিডিসি এবং ক্রিপ্টোকারেন্সি, ই-গভর্নেন্স, আইডেন্টিটি অ্যান্ড প্রাইভেসি এবং ফিনটেক বিষয়ে। 

হংকং থেকে শুরু হওয়া বহুল প্রত্যাশিত এই অলিম্পিয়াড এবারই প্রথম হংকং এর বাইরে বাংলাদেশে আয়োজিত হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ পর্বে “ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ ২০২১” -এর বিজয়ী ১২ টি দল এই আয়োজনের আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অংশ নিচ্ছে। বিজয়ীদের জন্য সর্বমোট ৪০,০০০ মার্কিন ডলারেরও বেশি মূল্যের পুরস্কারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে এইসকল তথ্য জানান প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এর নির্বাহী পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব ড. মোঃ আব্দুল মান্নান, পিএএ,তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. খন্দকার আজিজুল ইসলাম,ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির সিএসই বিভাগের বিশিষ্ট অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ, আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড ২০২১” এর চেয়ারম্যান এবং টেকনোহেভেন কোম্পানি লিমিটেড এর প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও হাবিবুল্লাহ এন করিম এবং অনলাইনে সংযুক্ত হন হংকং ব্লকচেইন সোসাইটির প্রেসিডেন্ট ড. লরেন্স মা।

মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক বলেন, ব্লকচেইন হতে পারে বাংলাদেশের বিনিয়োগের অন্যতম একটি প্রযুক্তি খাত। ব্লকচেইনকে উৎসাহিত করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে আসতে হবে এবং ব্লকচেইনকে তাদের কারিকুলামে অন্তর্ভুক্ত করা প্রয়োজন। ব্লকচেইনের মত একটি ভবিষ্যতমূখী প্রযুক্তি সম্পর্কে যাতে এই দেশের কিশোর-কিশোরিরাও জানতে পারে সেই জন্য আমরা শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব আরো নতুন করে আরো ৫০০০ প্রতিষ্ঠা করতে যাচ্ছি এবং পরবর্তী পর্যায়ে আরো ১০ হাজার পরিকল্পনা আছে।

সারাদেশে সফট্ওয়্যার, হার্ডওয়্যার, ও বিপিও সেক্টরে ১৫ লক্ষ তরুণ-তরুণীরা কাজ করে আইসিটি শিল্পের অবদান রাখছে। তিনি আরো বলেন, বিগত ১২ বছরে ১৫ লক্ষ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা সম্ভব হয়েছে। সরকারের ৫২ হাজার ওয়েবসাইট ১৫ হাজার সেবা প্রদান করছে। আইসিটি শিল্প ১২ বছর আগে মাত্র ২৬ মিলিয়ন ডলারে ছিল বর্তমানে ১.৩ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়েছে। 

এখন আমাদের পোশাক শিল্প থেকে আয়, আমাদের প্রবাসী কর্মীদের আয়, কৃষি ও অন্যান্য যে সকল শ্রমনির্ভর অর্থনীতি শিল্প আছে সেগুলোর সাথে জ্ঞান ভিত্তিক সমাজ ও একটি প্রযুক্তি-নির্ভর অর্থনীতি গড়ে তুলতে তিনি গুরুতারোপ করেন । আর এ সকল কিছুর জন্য আমাদের সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা রয়েছে। আর সেই পরিকল্পনার অংশ হিসেবে আমরা বেছে নিয়েছি “ব্লকচেইন প্রযুক্তি”।

পলক আরও বলেন, আজকের যারা শিশু, তারাই হবে ২০৪১ সালের লিডার। প্রতিটি সেক্টরে তারাই নেতৃত্ব দেবে। আজকের শিশু প্রজন্মকে আমরা যেভাবে গড়ে তুলবো, ২০৪১ সালের জ্ঞানভিত্তিক বাংলাদেশ সেভাবেই গড়ে উঠবে।

ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির সিএসই বিভাগের বিশিষ্ট অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ জানান, ন্যাশনাল ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড থেকে বাংলাদেশ এর বিজয়ী ১২ টি দল এই আয়োজনের আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অংশ নিচ্ছে যা আমাদের জন্য গর্বের বিষয় এবং সফলতা।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এর নির্বাহী পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব ড. মোঃ আব্দুল মান্নান, পিএএ  বলেন, আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড হল একটি গ্লোবাল কম্পিটিশন। এটা আয়োজন করা আমাদের জন্য সত্যিই খুব সম্মানজনক।

হংকং ব্লকচেইন সোসাইটির প্রেসিডেন্ট ড. লরেন্স মা বাংলাদেশকে এই “আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড (IBCOL)” সফলভাবে আয়োজনের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে ব্লকচেইন প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে উন্নত প্রযুক্তিগত সমাধান পাওয়া সম্ভব বলে তিনি প্রত্যাশা করেন।

আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড ২০২১” এর চেয়ারম্যান এবং টেকনোহেভেন কোম্পানি লিমিটেড এর প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও হাবিবুল্লাহ এন করিম আয়োজকসহ সকলকে এই আয়োজনে পাশে থাকার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

এই বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় মোট ১২ টি দেশ অংশগ্রহণ করছে: চীন, হংকং, ভিয়েতনাম, ফিলিপাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইরান, ইন্দোনেশিয়া, নেদারল্যান্ড, নেপাল, মঙ্গোলিয়া, শ্রীলঙ্কা এবং বাংলাদেশ থেকে মোট ৫০ টিরও বেশি দল অংশগ্রহণ করছে। অনুষ্ঠানসহ সেমিনারগুলো IBCOL এর (https://ibcol2021.com) -এই ঠিকানায় বিশ্বব্যাপী সকল অংশগ্রহণকারী এবং দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল-সহ ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ এবং টেকনোহেভেন কোম্পানি লিমিটেড যৌথভাবে ১ম বারের মত বাংলাদেশে আয়োজিতব্য “আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড ২০২১” আয়োজন করছে।

এছাড়াও অন্যান্য সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে রয়েছে এফবিসিসিআই, বেসিস, আইবিএ, এসিআই লি., ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি, ইউথ পলিসি ফোরাম ও একাত্তর টিভি।

আরও পড়ুন

দেশে শুরু হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড ২০২১

ব্লকচেইনে দ্রুত ও স্বচ্ছ হবে ডিজিটাল সেবা

আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের দুটি পুরস্কার

টিটি / ৬ অক্টোবর / ২০২১

*

*

আরও পড়ুন