vivo Y16 Project

অনলাইন ও অফলাইনে সেবা বাড়াল ভিভো

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর ঃ তারুণ্যনির্ভর ব্র্যান্ড হিসেবে ভিভো গ্রাহকদের স্মার্টফোন ব্যবহারের প্রতিটি ধাপে সেবা দিতে চায় । তথ্য দেওয়া থেকে শুরু করে স্মার্টফোন বিক্রয়ের পরেও ভিভো গ্রাহকসেবা বাড়িয়েছে । সার্ভিস সেন্টার ছাড়াও কলসেন্টার , ই-মেইল এবং ফেইসবুক পেইজের মাধ্যমে ভিভো প্রতিদিন এই সেবা দিচ্ছে ।

বর্তমানে সারা বাংলাদেশে ভিভোর রয়েছে ২০টি কাস্টমার সার্ভিস সেন্টার। রাজধানীতে রয়েছে ২টি; আর এর বাইরে রয়েছে নারায়ণগঞ্জ, সাভার, গাজীপুর, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, জামালপুর, কিশোরগঞ্জ, সেলেট, বগুড়া, রাজশাহী, রংপুর, যশোর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজারে। এই গ্রাহক সেবা কেন্দ্রগুলোতে প্রতিটি কাস্টমারকে এক ঘন্টার ভিত্তিতে তাদের ভিভো স্মার্টফোনের সমাধানের যেকোনো সার্ভিস সরাসরি দেয়া হয়ে থাকে।

ভিভো সার্ভিস ডে পালিত হয় প্রতি মাসের তৃতীয় বৃহস্পতিবার। গত বছরের নভেম্বর মাসে এই সার্ভিসটি চালু করে প্রতিষ্ঠানটি। এরপর সারাদেশের প্রায় ৬৪ জেলার গ্রাহকদের কাছে বিপুল জনপ্রিয়তা পায় এই সার্ভিস। ওইদিন বিনামূল্যে বিক্রয় পরবর্তী সেবা পান গ্রাহকরা।

Techshohor Youtube

বিনামূল্যে সেবাগুলোর মধ্যে থাকে ফ্রি পেস্টিং অব প্রটেক্টিং ফিল্ম, ফ্রি সফটওয়্যার আপগ্রেড। স্মার্টফোনের চার্জার, ডাটা ক্যাবল ও ইয়ারফোন কেনার ক্ষেত্রে ১০% ছাড় পান গ্রাহকরা।

গ্রাহক সেবা নিয়ে ভিভো বাংলাদেশের অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার রিয়াসাত আহমেদ বলেন, বিক্রয় পরবর্তী সেবায় বাড়তি জোর দিয়ে থাকে ভিভো। ভিভো সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে স্মার্টফোন সেবা নিয়ে গ্রাহকেরদোরগোড়ায় পৌঁছাতে চায়, যাতে গ্রাহকরা কোনো ঝামেলা ছাড়াই ভিভো’র নিত্যনতুন উদ্ভাবনগুলো উপভোগ করতে পারে। ‘

বাংলাদেশে কাজ শুরুর পর প্রায় সাড়ে তিন বছর ধরে দেশের স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের নিরন্তর গ্রাহক সেবা দিয়ে যাচ্ছে ভিভো। দেশের প্রতিটি অঞ্চলে স্মার্টফোন সেবা পৌঁছে দিতে কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। অনলাইনের মাধ্যমে এখন বাসায় বসেই যাচাই-বাছাইয়ের পর কেনা যাচ্ছে ভিভো’র যেকোনো স্মার্টফোন। অর্ডার করলেই বাসায় পৌঁছে যাচ্ছে ভিভোর স্মার্টফোন।

*

*

আরও পড়ুন

vivo Y16 Project