vivo Y16 Project

আপনার অ্যাকাউন্ট খালি করে দিতে পারে জোকার ভাইরাস!

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অ্যান্ড্রয়েড নির্ভর ডিভাইসে আবারো ফিরে এলো ‘জোকার’ নামে এক ভয়ঙ্কর ভাইরাস (ম্যালওয়্যার) । এটা সাধারণ কোনো ভাইরাস না যে, ডিভাইসের ফাইল নষ্ট করেই ক্ষ্যান্ত হবে। এটি ডিভাইস থেকে গোপনে ব্যাংক সংক্রান্ত তথ্য (যদি থাকে) নিয়ে পুরো অ্যাকাউন্ট খালি করে দিতে পারে।

আর সবচেয়ে বড় আশঙ্কার কথা হচ্ছে, এই ভাইরাসটি গুগল প্লে-স্টোরের বেশ কিছু অ্যাপে গোপনে ঘাপটি মেরে আছে। কেউ এসব অ্যাপ ইন্সটল করলেই অ্যাকাউন্টের অর্থ খোয়ানোর মতো পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে!

২০১৭ সালে প্রথমবারের মতো এই ভাইরাসের ভার্চুয়াল প্রাদুর্ভাব শুরু হয়। তখনও অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মের প্লে-স্টোরের অ্যাপে লুটিয়ে থাকতো। এরপর সেসব অ্যাপ কেউ ইনস্টল করতেই তাকে টার্গেট করে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এমনকি অ্যাকাউন্টের টাকা “অনলাইন পেমেন্ট” সুবিধার মাধ্যমে হাতিয়ে নিত। এরপর গুগল কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে তদন্ত করে সন্দেহভাজন ১,৭০০ অ্যাপ প্লে-স্টোর থেকে মুছে দেয়।

Techshohor Youtube

সাম্প্রতিক সময়ে সেরকম ঘটনার জেরে সেই ‘জোকার’ ভাইরাস ফিরে এসেছে বলে প্রমাণ পেয়েছেন বেলজিয়ামের পুলিশ বিভাগ। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তারা জানায়, ৮টি অ্যাপে জোকার ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

গত বছরের (২০২০) সেপ্টেম্বরে, ২৪টি অ্যাপে জোকার ভাইরাসের উপস্থিতি ছিল। এই অ্যাপগুলো তখন যুক্তরাষ্ট্র, স্পেন, ব্রাজিলসহ ৩০টি দেশের পাঁচ লাখেরও বেশি সংখ্যক মানুষের স্মার্টফোনে ইনস্টল করা ছিল। এরপর এই ব্যাপারে অভিযোগ পেয়ে অ্যাপগুলো বন্ধ করে দেয় গুগল।

নিরাপত্তা গবেষণা প্রতিষ্ঠান কুইক হেল সিকিউরিটি ল্যাবের মতে, এ ধরনের ভাইরাস স্মার্টফোনের টেক্সট মেসেজ, কন্টাক্ট ও আরো অনেক তথ্য হাতিয়ে নিতে পারে। শুধু তা-ই না, আক্রান্ত ব্যক্তির ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বা কার্ডের তথ্য ব্যবহার করে কোনো অনলাইন পেমেন্ট বা বিল পরিশোধের মাধ্যমে অর্থ লুটে নিতে পারে।

সূত্র : ইন্টারনেট টিআর/আগস্ট ২৫/২০২১/১২১০

আরও পড়ুন

৯৯ শতাংশ ভাইরাস অ্যান্ড্রয়েডের মাধ্যমে ছড়ায়!

ম্যালওয়ার দিয়ে স্মার্টফোন হতে অর্থ চুরি!

মোবাইল থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে ম্যালওয়্যার ‘শেভকপি’

অনলাইনে নিরাপদ লেনদেনের সতর্কতার কৌশল

*

*

আরও পড়ুন

vivo Y16 Project