Techno Header Top and Before feature image

ভারতে ডিএনএ টিকার অনুমোদন

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ভারতে প্রথমবারের মতো তৈরি হলো ডিএনএ কোভিড টিকা। করোনা প্রতিরোধে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারের জন্য দেশটির ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা এই টিকার অনুমোদন দিয়েছে। ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ক্যাডিলা হেলথ কেয়ারের এই টিকার নাম দেয়া হয়েছে জাইডাস ক্যাডিলা (ZyCoV-D)।

জাইডাস ক্যাডিলার ৩টি ডোজ দেয়া হলে ঔপসর্গিক রোগের ঝুঁকি ৬৬ শতাংশ কমে যায় বলে দাবি করেছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। আগামী অক্টোবর মাসের মধ্যে এই টিকার ব্যবহার শুরু হতে পেরে। প্রতিবছর ১২০ মিলিয়ন ডোজ তৈরির পরিকল্পনা করেছে ক্যাডিলা হেলথ কেয়ার। ভারতে করোনা টিকা প্রস্তুতকারী ওষুধ প্রস্তুতকারীদের মধ্যে এটি হচ্ছে দ্বিতীয় কোনো প্রতিষ্ঠান যারা টিকা বাজারজাতের অনুমোদন পেলো।  

দেশটিতে ৫৭০ মিলিয়ন মানুষ কোভিশেলড, কোভ্যাক্সিন ও স্পুটনিক-ভি টিকা নিয়েছেন। এই তিনটি টিকাই এতোদিন অনুমোদিত ছিল, এখন এগুলোর সঙ্গে যোগ হয়েছে জাইডাস ক্যাডিলা। দেশটির মোট জনসংখ্যার প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে টিকা নেয়া মানুষদের সংখ্যা মাত্র ১৩ শতাংশ।  

ক্যাডিলা হেলথ কেয়ার জানায়, তারা ভারতের ৫০টি সেন্টারে ইতোমধ্যে বড়সড় ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল করেছে। এই ট্রায়ালে ২৮ হাজার সেচ্ছাসেবী যুক্ত ছিল। এছাড়া এই করোনা টিকা এমন এক হাজার জনের শরীরে প্রয়োগ করা হয়, যাদের বয়স ১২ থেকে ১৮ বছর। টিকা দেয়ার পর ফলাফল ভালো ছিল, এমনকি এটি মিউটান্ট স্ট্র্যাইনস ও ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রেও এটি কার্যকর বলে দাবি করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

জনপ্রিয় ভাইরোলজিস্ট প্রফেসর শহিদ জামিল বলেন, এই টিকার ব্যাপারে আমি খুব আশাবাদী যে, এটি ভালো কিছু নিয়ে আসবে। যদি এটি ঠিকঠাক কাজ করে, তাহলে আগামীতে টিকা কার্যক্রম সহজ হয়ে যাবে।

এর আগে পরীক্ষায় ডিএনএ টিকা প্রাণীদের শরীরে ঠিকঠাক কাজ করেছিল। জাইডাস ক্যাডিলাই হচ্ছে বিশ্বের প্রথম কোনো ডিএনএ করোনা টিকা, যা মানুষের শরীরে ব্যবহারের উপযোগী।

যুক্তরাষ্ট্রেও বেশ কিছু ডিএনএ টিকা উদ্ভাবিত হয়েছে, যেগুলো কুকুর, ঘোড়ার ত্বক ও বিভিন্ন রোগের প্রতিশেষক হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এছাড়া ১৬০টির মতো ভিন্ন ভিন্ন ডিএনএ টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল হয়েছে দেশটিতে। এর প্রায় সবই ক্যানসার রোগীর ওপর পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে।

সূত্র : ইন্টারনেট/টিআর/আগস্ট ২১/২০২১/১৬৫০

*

*

আরও পড়ুন