Techno Header Top and Before feature image

মোবাইল অপারেটরদের সেবার মান, ভাগ্যবান ঢাকাবাসী !

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সেবার মান নিয়ে এবার কোনো প্রশ্ন উঠলে অন্তত ঢাকা নগরবাসীকে বিটিআরসির পরীক্ষার রেজাল্ট কার্ড দেখিয়ে দিতে পারবে মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো।

দুই সিটি করপোরেশনে সেবার মান নিয়ে বিটিআরসির কাছে বেশ ভালোভাবেই উতরে গেছে তারা।

মোবাইল ফোন অপারেটদের সেবার মান নিয়ে সারাদেশে বিস্তর অভিযোগ সবসময়েই , এমনকি বিটিআরসিও সেবার মান নিয়ে সন্তুষ্ট নয়। নিয়ন্ত্রণ সংস্থার খোদ চেয়ারম্যানই একাধিকবার সেবার মান ভালো নয় বলে উল্লেখ করেছেন। 

এবার ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন এলাকায় ২৩ জানুয়ারি থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত  ‘কোয়ালিটি অব সার্ভিস ড্রাইভ টেস্ট’ চালায় বিটিআরসি। 

ভয়েস কল, ডেটা ও  নেটওয়ার্কের কাভারেজ এলাকা-এই তিন মূল বিভাগে মোবাইল ফোন অপারেটরদের সেবার মান যাচাই করা হয়।

এতে ভয়েস কলের ক্ষেত্রে অন্যতম ইস্যু কলড্রপের ক্ষেত্রে কী অবস্থা দেখা যাক। চার অপারেটরই কলড্রপের সীমার অনেক নীচে রয়েছে। গ্রামীণফোনের রয়েছে দশমিক ১৮ শতাংশ, বাংলালিংকের দশমিক ৩১, রবির দশমিক ৩৭ এবং টেলিটকের ১ দশমিক ৩১ শতাংশ।

যেখানে কিউওএস অনুযায়ী এটি ২ শতাংশ পর্যন্ত হওয়ার সুযোগ আছে।

কল সেটআপ সফল হওয়ার হারেও অপারেটরগুলোর বেঞ্চমার্ক ঠিক রেখেছে। তিনটি অপারেটরই ৯৯ শতাংশ সীমার উপরে আর টেলিটক ৯৮ শতাংশ সীমার উপরে এই সেটআপ রেট রেখেছে।

এছাড়া কল সেটআপের জন্যে বিটিআরসি নির্ধারিত যে সাত সেকেন্ডের সময় বেঁধে দেওয়া আছে তার সীমার মধ্যে রয়েছে বেসরকারি তিন অপারেটর। তবে এখানে টেলিটক ৮ দশমিক ২৮ সেকেন্ড সময় নিচ্ছে ।

এমওএস স্কোরে চার অপারেটরই বেঞ্চমার্কের উপরে রয়েছে। কিওএস নীতিতে এর সীমা ৩ দশমিক ৫।

ডেটায় থ্রিজিতে বেঞ্চমার্কের চেয়ে ভালো সেবা দিচ্ছে বেসরকারি তিন অপারেটর। এতে জিপির ডাউনলোড গতি ৩ দশমিক ৯৬ এমবিপিএস, রবির ৪ দশমিক ০২ এমবিপিএস, বাংলালিংকের ৩ দশমিক ৯৯ এবং টেলিটকের ১ দশমিক ৭৪ এমবিপিএস। এতে দেখা যাচ্ছে টেলিটক অল্পের জন্য বেঞ্চমার্ক পার করতে পারেনি। 

কোয়ালিটি অব সার্ভিস (কিউওএস) নীতিমালা অনুযায়ী,  থ্রিজি প্রযুক্তির ইন্টারনেটে ডাউনলোডের সর্বনিম্ন গতি ২ এমবিপিএস পর্যন্ত । 

থ্রিজিতে আপলোডে গ্রামীণফোনে গতি ৭ দশমিক ৮৪, রবির ৯ দশমিক ৪৩, বাংলালিংকের ৮ দশমিক ৪৫ এবং টেলিটকে ২ দশমিক ৩১ এমবিপিএস। কিউওএসে এটি ১২৮ কেবিপিএসের নীচে হওয়া যাবে না।

ফোরজিতে জিপি ও রবির ডাউনলোড গতি ৫ দশমিক ৭২ এমবিপিএস, বাংলালিংকের ৪ দশমিক ৯৪ ও টেলিটকে ২ দশমিক ৮২ এমবিপিএস। 

কোয়ালিটি অব সার্ভিস (কিউওএস) নীতিমালা অনুযায়ী,  ফোরজি প্রযুক্তির ইন্টারনেটে ডাউনলোডের সর্বনিন্ম গতি  ৭ এমবিপিএস হতে হবে। এতে দেখা যাচ্ছে কেউ বেঞ্চমার্ক পার করতে পারেনি।

ফোরজিতে আপলোডে গ্রামীণফোন ১০ এমবিপিএস, রবি ১২ দশমিক ৬৯ এমবিপিএস, বাংলালিংক ১০ দশমিক ৭২ ও টেলিটক ৪ দশমিক ৫২ এমবিপিএস গতি রয়েছে। এতে বেঞ্চমার্ক ১ এমবিপিএস। 

নেটওয়ার্কের কাভারেজ এরিয়াতে ফোরজিতে বেঞ্চমার্কের সামান্য কম ছাড়া বাকি নেটওয়ার্কে উতরে গেছে অপারেটরগুলো।

খাত সংশ্লিষ্টরা বলছেন সার্বিক বিবেচনায় ঢাকা সিটি করপোরেশন এলাকায় টেস্ট ড্রাইভের রেজাল্ট ভালো, অপারেটরগুলো উন্নতি করছে।

এবার প্রশ্ন, বিটিআরসির কোয়ালিটি অব সার্ভিস ড্রাইভ টেস্টে ঢাকার বাইরের গ্রাহকদের কী রেজাল্ট ‍উপহার দেয় অপারেটরগুলো। তারা কী ঢাকা নগরবাসীর মতো এমন সেবা পাচ্ছে ?

এডি/২০২১/মার্চ২৫

*

*

আরও পড়ুন