Techno Header Top and Before feature image

বিটকয়েন নিয়ে দুই ধনী দুই দিকে

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বিশ্বের সবচেয়ে ধনীর খেতাবটি দীর্ঘ দিন ধরে ছিল মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের নামের পাশে। এরপর এলো অ্যামাজনের জেফ বেজোস, আর বর্তমানে টেসলা ও স্পেসএক্সের প্রধান ইলন মাস্ক।

বিটকয়েন ইস্যুতে এক নম্বর ধনী মাস্কের বিপরীতে অবস্থান নিয়েছেন তিন নম্বর ধনী বিল গেটস।

ইলন মাস্কের আরেক পরিচয়– তিনি ক্রিপ্টোকারেন্সির (বিটকয়েন) দারুণ সমর্থক ও প্রচারক। সম্প্রতি তিনি ১.৫ বিলিয়ন ডলার তার প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বিটকয়েনে বিনিয়োগ করেছেন। এর সঙ্গে এও বলেছেন, এখন থেকে বিটকয়েন দিয়ে টেসলা থেকে গাড়ি কেনা যাবে। বিটকয়েনের ব্যাপারে লোকজনকে আগ্রহী হয়ে ওঠার পেছনেও তার ভূমিকা আছে।

এদিকে বিল গেটস বলেছেন ভিন্ন কথা। গেটসের মতে– মাস্কের টনকে টন অর্থ, তার মতো ব্যক্তি বিটকয়েন কেনার পর দর উঠা-নামা করলেও কিছু যায় আসে না। কিন্তু যাদের এতো এতো অর্থ নেই, তাদের উচিত বিটকয়েন নিয়ে যা কিছু হচ্ছে, এইসব শুধুই দেখে যাওয়া!

বিগত বছরের চেয়ে বিটকয়েনের অগ্রগতি ৪০০ শতাংশ বেড়েছে। বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরাও এখন এই ডিজিটাল মূদ্রার ওপর ঝুঁকছে। এছাড়া সাম্প্রতিক বিভিন্ন ঘটনাবলী এটাই প্রমাণ করছে যে– বিটকয়েনের প্রসার মূলধারার মূদ্রার মতোই গ্রহণযোগ্য হতে যাচ্ছে।

টেসলা বিটকয়েনে বিনিয়োগ করায় এবং মাস্ক এ ব্যাপারে টুইট করার পর এর দাম বহু গুণ বেড়ে গেছে। বৃহস্পতিবার সকালে বিটকয়েন লেনদেনের দর ছিল ৫১,৪০০ ডলার।

সূত্র : ইন্টারনেট/টিআর/ফেব্রুয়ারি ২৭/২০২১/১৩২৮

আরও পড়ুন

বিটকয়েন এতটা বিদ্যুৎখেকো!

জানুয়ারিতে আসছে ফেইসবুকের ‘বিটকয়েন’!

২০১৩ সালের পর সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় বিটকয়েন

বিটকয়েনে অনুদান নেবে ইউনিসেফ

*

*

আরও পড়ুন