Techno Header Top and Before feature image

রোবট থেকে এক্সআর : নেপথ্যে ফাইভজি?

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : একদিকে পঞ্চম প্রজন্মের তারবিহীন নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি ফাইভজির বিস্তার হচ্ছে। অন্যদিকে প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা ও উদ্ভাবকদেরও এ নিয়ে ছক কষতে হচ্ছে। কারণ ফাইভজির প্রচলনের পাশাপাশি আগামী প্রজন্মের প্রযুক্তি ও উপযোগী ডিভাইসেরও ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থান থাকতে হবে।

এছাড়া আগামীতে বিপুল চাহিদা সামলাতে পণ্য উৎপাদন ব্যবস্থাপনায় প্রযুক্তির ব্যবহার কেমন হবে, তার রূপরেখা ও বাস্তবায়ন নিয়েও কাজ চলছে।

ইতোমধ্যে উৎপাদন ও ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) ও ইন্ডাস্ট্রিয়াল রোবটের বহুল ব্যবহার শুরু হয়েছে।

কারখানায় এক জায়গা থেকে মালামাল এনে আরেক জায়গায় রাখা, উৎপাদন প্রক্রিয়ায় যোগান প্রস্তুত করে দেয়া, উৎপাদনে সহযোগিতা ইত্যাদি কাজ আজকাল চলাচলে সক্ষম রোবট দিয়ে করানো হচ্ছে। কিন্তু ভবিষ্যতে আরো কঠিন, ভারী ও গুরুত্বপূর্ণ কাজে তাদের ব্যবহার হবে, এটা জোর দিয়েই বলা যায়। এছাড়া এক কারখানার এক অংশ থেকে আরেক অংশের তদারকি বা ব্যবস্থাপনার কাজটিও সহজ করে দেবে প্রযুক্তি।

রুপান্তরিত ডিজিটাল যন্ত্র নির্ভর স্বয়ংক্রিয় উৎপাদন ব্যবস্থার প্রচলন ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। নতুন নতুন প্রযুক্তির ফলে পণ্য উৎপাদনের পদ্ধতি ও ধারণাও বদলে যাচ্ছে।

আর রোবট নির্ভর এই স্বয়ংক্রিয় প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নিতে নেপথ্যে ভূমিকা রাখবে ফাইভজি প্রযুক্তি।
স্বয়ংক্রিয় উৎপাদন ব্যবস্থায় বড় একটি অনুষঙ্গ হচ্ছে সংশ্লিষ্ট উপাদানগুলোর সঙ্গে নিরবচ্ছিন্ন ও নিরাপদ যোগাযোগ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা। এর ফলশ্রুতিতেই রোবট প্রযুক্তির মতোই এক্সটেন্ডেট রিয়েলিটি (এএক্স) প্রযুক্তির ব্যবহারের সুযোগ তৈরি হবে বা হচ্ছে।

বাস্তব ও ভার্চুয়াল পরিবেশকে সমন্বয়ের সম্মিলিত রূপ হচ্ছে এক্সআর। যেমন–একজন লোক তার অফিসে বসে এক্সআর ডিভাইস চোখে লাগিয়েছেন, এর মাধ্যমে তিনি ঠিক একই সময়ের কারখানার যাবতীয় বাস্তব কর্মকাণ্ড দেখতে পাচ্ছেন এবং তদারকি করছেন। এমনকি তিনি কোনো ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল রোবট ঘরানার কোনো যন্ত্রে ভার্চুয়ালি হাত দিয়ে কাজ করছেন, এমনটিও সম্ভব হবে। এখানে যোগাযোগ স্থাপনে ভূমিকা রাখবে ফাইভজি।

সূত্র : ইন্টারনেট/টিআর/ফেব্রুয়ারি ৮/২০২১/১০৩২

*

*

আরও পড়ুন