vivo Y16 Project

মত প্রকাশের অ্যাপ সরালো গুগল ও অ্যাপল

পার্লার অ্যাপ। ছবি : বিবিসি

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : স্বাধীনভাবে মত প্রকাশের জন্য ফেইসবুক বা টুইটার উপযুক্ত জায়গা নয়। তাই মুক্তভাবে মত প্রকাশের জন্য মার্কিনিরা ব্যবহার করছেন পার্লার নামের একটি অ্যাপ।

এতে ভুল তথ্য ছড়ানো হলেও সেগুলো কখনও সরানো হয় না। উস্কানি বা বিদ্বেষ ছড়ানোর পরিণতি নিয়েও অ্যাপ নির্মাতাদের কোনো মাথা ব্যাথা নেই। তাই বাধ্য হয়ে পার্লার অ্যাপটি প্লে স্টোর থেকে সরিয়েছে গুগল। কনটেন্ট মডারেশনের শর্ত না মানায় পার্লারের জন্য অ্যাপস্টোরের দরজা বন্ধ করেছে অ্যাপল।

ক্লাউড হোস্টিং সার্ভিস অ্যামাজন ওয়েব সার্ভিস থেকেও পার্লারের অ্যাপ ও ওয়েবসাইট সরানো হয়েছে। তাই নতুন হোস্টিং প্রোভাইডার না পাওয়া পর্যন্ত পার্লারের ওয়েবসাইট বন্ধ থাকবে।

Techshohor Youtube

অ্যাপটির সিইও জন মেজের ভাষ্য, টুইটার বা ফেইসবুক নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দলের মতাদর্শ মেনে চলে। স্বৈরাচারী কোম্পানিগুলো মত প্রকাশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী নয়।

২০১৮ সালে অ্যাপটি চালু হয়। তখন থেকেই ডোনাল্ড ট্রাম্প সমর্থকদের কাছে অ্যাপটি জনপ্রিয়। পার্লার অ্যাপটি নিজেদেরকে নিরপেক্ষ দাবি করে। টুইটারে নিষিদ্ধ হওয়া অনেকের কাছেই অ্যাপটি বেশ জনপ্রিয়। অ্যাপটির ব্যবহারকারী সংখ্যা ১ মিলিয়ন।

মার্কিন নির্বাচনের পর অ্যাপটি যুক্তরাষ্ট্রের সর্বাধিক ডাউনলোডকৃত অ্যাপে পরিণত হয়। কংগ্রেসের দ্বারা জো বাইডেনের জয়কে অনুমোদন দেওয়া কিভাবে ঠেকানো যায় সে বিষয়ে আলোচনা হয় পার্লারে। ক্যাপিটাল হিলে তাণ্ডব চালানোর আগে খোলামেলাভাবেই ট্রাম্প সমর্থকরা সেখানে আগ্রাসী মনোভাব প্রকাশ করতে থাকেন।

বিবিসি অবলম্বনে এজেড/ জানুয়ারি ১০/২০২০/৯.৫৭

আরও পড়ুন

৪৬ হাজার অ্যাপ মুছে দিলো অ্যাপল

ক্যাপিটাল হিলে তাণ্ডব : দায় ফেইসবুকেরও আছে

ট্রাম্পের জন্য টুইটার ‘চিরতরে’ বন্ধ

ট্রাম্পের পোস্টে টুইটারের ফ্ল্যাগ

*

*

আরও পড়ুন

vivo Y16 Project